জেলায় দুইদিনে শনাক্ত ৮৬ উপসর্গ নিয়ে মৃত্যু ২ জনের

24

চাঁপাইনবাবগঞ্জে দুইদিনে আরটি-পিসিআর পরীক্ষায় নতুন করে ৮২ জন এবং অ্যান্টিজেন পরীক্ষায় ৪জন করোনা রোগী শনাক্ত হয়েছে। অপরদিকে জেলা হাসপাতালের করোনা ওয়ার্ডে করোনা ভাইরাসের উপসর্গ নিয়ে মারা গেছেন ২জন রোগী।
সিভিল সার্জন অফিস সূত্র জানিয়েছে, গত ৩১ জুলাই সদর উপজেলায় ৩৫ জন, শিবগঞ্জ উপজেলার ২ জন ও ভোলাহাট উপজেলার ১৪ জনসহ ৫১ জন করোনা রোগী হিসেবে শনাক্ত হয়। ওই দিন র‌্যাপিড অ্যান্টিজেন পরীক্ষায় আরো ৪জন শনাক্ত হয়। এর পরদিন গত ১ আগস্ট আরটি-পিসিআর পরীক্ষায় ৯৪ জনে ৩১জন করোনা রোগী হিসেবে শনাক্ত হয়েছে। এর মধ্যে জেলার সদর উপজেলার ১৫ জন, শিবগঞ্জ উপজেলার ৭ ও গোমস্তাপুর উপজেলার ৯ জন রয়েছে।
জেলা করোনা প্রতিরোধ কমিটির সদস্য সচিব সিভিল সার্জন ডা. জাহিদ নজরুল চৌধুরী এইসব তথ্য নিশ্চিত করে জেলাবাসীকে মাস্ক পরিধান করার অনুরোধ জানিয়েছেন। তিনি আরো জানান, গত জুলাই মাসে ৬ হাজার ৫৬৩ জনের নমূনা পরীক্ষায় শনাক্ত হয় ৮৭০ জন। ওই মাসে শনাক্তের গড় হার ২৩.২৫ শতাংশ।
এদিকে ২৫০ শয্যা বিশিষ্ট জেলা হাসপাতালের করোনা ওয়ার্ডের ফোকাল পার্সন ডা. আহনাফ শাহরিয়ার সোমবার দুপুরে জানান, গত ১ আগস্ট শিবগঞ্জ উপজেলার আশরাফুল (৫৫) নামের এক ব্যক্তি করোনার উপসর্গ নিয়ে ভর্তি হন এবং ওইদনি দিবাগত রাত ২ টা ৫০ মিনিটে তিনি মৃত্যুবরণ করেন।
এছাড়া চাঁপাইনবাবগঞ্জ পৌরসভার বেলেপুকুর মহল্লার মাজেদা বেগম নামের ৫৯ বছরের এক নারী আজ সোমবার বিকেল সাড়ে ৩ টায় মৃত্যুবরণ করেছেন। তিনি গত ৭ জুলাই থেকে করোনা ওয়ার্ডে চিকিৎসাধীন ছিলেন। তিনি করোনা ভাইরাসের উপসর্গ নিয়ে মারা গেছেন বলে জানান ডা. আহনাফ শাহিরিয়ার।