জেলায় কর্মবিরতি চলছে

13

দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা আইন-২০১২’র আলোকে প্রস্তাবিত জনবল কাঠামো ও নিয়োগবিধি বাস্তবায়ন, জেলা ত্রাণ ও পুনর্বাসন কর্মকর্তা (ডিআরআরও) পদ আপগ্রেডেশন, উপজেলা প্রকল্প বাস্তবায়ন কর্মকর্তা (পিআইও) পদ আপগ্রেডেশন, সচিবালয়ের ন্যায় দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা অধিদপ্তরের কর্মচারীদের পদনাম পরিবর্তন, দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা অধিদপ্তরের সকল শূন্যপদ পদোন্নতি / চলতি দায়িত্ব¡ / নিয়োগের মাধ্যমে পূরণের দাবিতে সারাদেশের মতো চাঁপাইনবাবগঞ্জ জেলায় কর্মবিরতি পালন করছেন দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা অধিদপ্তরাধীন সংযুক্ত কর্মকর্তা-কর্মচারীগণ।
গত ১২ সেপ্টেম্বর থেকে শুরু হওয়া কর্মসূচি প্রতিদিন সকাল ৮টা থেকে বেলা ১২টা পর্যন্ত চলছে। আজ বৃহস্পতিবার পর্যন্ত চলবে এবং কেন্দ্রীয় নেতৃবৃন্দ পরবর্তী নির্দেশনা দিলে নতুন কর্মসূচি কী হবে তা জানা যাবে বলে জানিয়েছেন চাঁপাইনবাবগঞ্জ সদর উপজেলা প্রকল্প বাস্তবায়ন কর্মকর্তা মৌদুদ আলম খাঁ। তিনি কেন্দ্রীয় প্রেস বিজ্ঞপ্তির উদ্ধৃতি দিয়ে বলেনÑ মহান মুক্তিযুদ্ধের মাধ্যমে সদ্য স্বাধীন যুদ্ধবিধ্বস্ত ও দুর্যোগপ্রবণ দেশের কোটি কোটি মানুষের পুনর্বাসন, গ্রামীণ অবকাঠামো ও যোগাযোগ ব্যবস্থার উন্নয়ন এবং পুনর্গঠনের লক্ষে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান ১৯৭২ সালে ত্রাণ ও পুনর্বাসন মন্ত্রণালয় গঠন করেন। এরপর থেকে দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা অধিদপ্তরের কর্মকর্তা-কর্মচারীরা জেলা ও উপজেলা পর্যায়ে নিষ্ঠার সঙ্গে ত্রাণ ও পুনর্বাসন কার্যক্রম চালিয়ে যাচ্ছে। দারিদ্র্য বিমোচনে সরকারের কর্মসূচি বাস্তবায়ন করে যাচ্ছে।
মৌদুদ আলম খাঁ বলেন, বৈশ্বিক মহামারি কোভিড-১৯ পরিস্থিতিতে অসহায় দরিদ্র মানুষের জন্য প্রশাসনের পাশে থেকে মানবিক সহায়তা প্রদান কার্যক্রম পরিচালনা, সরকারের গুরুত্বপূর্ণ মানবিক সহায়তা (জিআর ক্যাশ, খাদ্যশস্য, ঢেউটিন, শীতবস্ত্র ইত্যাদি) কার্যক্রম বাস্তবায়ন; এ অধিদপ্তরের বিভিন্ন উন্নয়নমূলক কর্মসূচি যেমনÑ গ্রামীণ অবকাঠামো সংস্কার (কাবিখা-কাবিটা), গ্রামীণ অবকাঠামো রক্ষণাবেক্ষণ (টিআর), অতিদরিদ্রদের জন্য কর্মসংস্থান কর্মসূচি (ইজিপিপি), মুজিব কিল্লা নির্মাণ ও সংস্কার, কালভার্ট নির্মাণ, বন্যা আশ্রয় কেন্দ্র নির্মাণ, বহুমুখী ঘূর্ণিঝড় আশ্রয় কেন্দ্র নির্মাণ, গ্রামীণ রাস্তা টেকসইকরণে এইচবিবিকরণসহ উপজেলা পর্যায়ে বিভিন্ন গুরুত্বপূর্ণ উন্নয়নমূলক কার্যক্রম বাস্তবায়ন; বীর মুক্তিযোদ্ধাদের জন্য মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক মন্ত্রণালয় কর্তৃক গৃহীত কর্মসূচি ‘বীর নিবাস’ নির্মাণ কাজ বাস্তবায়ন; প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ের গৃহীত কর্মসুচি ‘মুজিব শতবর্ষ উপলক্ষে ভূমিহীন ও গৃহহীন পরিবারের জন্য গৃহ নির্মাণ সর্বোচ্চ গুরুত্ব দিয়ে ন্যায়-নিষ্ঠা ও আন্তরিকতার সাথে উপজেলা প্রকল্প বাস্তবায়ন কর্মকর্তাগণ বাস্তবায়ন করে যাচ্ছে। এছড়াও মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ের আশ্রয়ণ প্রকল্প বাস্তবায়ন; বিভিন্ন দুর্ঘটনা যেমনÑ অগ্নিকা-, মহামারি, নৌকাডুবি, লঞ্চডুবি, সর্প দংশন, বজ্রপাতে নিহত ও আহতদের চিকিৎসার্থে তাৎক্ষণিক মানবিক সহায়তা প্রদান কার্যক্রম; আশ্রয় কেন্দ্র ব্যবস্থাপনা, দুর্যোগকালীণ ত্রাণ কার্য পরিচালনা করা; দুর্যোগজনিত ঝুঁকিহ্রাসে বিভিন্ন ধরনের অবকাঠামো ও অকাঠামো নির্মাণ ও সংস্কার করে জনসাধারণের সামর্থ্য বৃদ্ধি করে দারিদ্র্য বিমোচন কর্মসূচি উল্লেখ্য।
দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা আইন-২০১২ এ প্রয়োজনীয় জনবল কাঠামো গঠনের জন্য বলা হলেও গত দশ বছরে এর সন্তোষজনক কোনো অগ্রগতি হয়নি। তাই দাবিসমহূ বাস্তবায়নের জোর দাবি জানানো হয় কর্মরিতি থেকে।
এ সময় মৌদুদ আলম খাঁসহ অন্যরা উপস্থিত ছিলেন।