জাতীয় আদিবাসী পরিষদের সভাপতি রবীন্দ্রনাথ সরেন মারা গেছেন

11

উত্তরবঙ্গের ক্ষুদ্র নৃগোষ্ঠীর মানুষদের অধিকার আন্দোলনের নেতা, জাতীয় আদিবাসী পরিষদের সভাপতি ও আদিবাসী ফোরামের সহসভাপতি রবীন্দ্রনাথ সরেন মারা গেছেন। তিনি শুক্রবার দিবাগত রাত একটা ২৫ মিনিটে দিনাজপুরের পার্বতিপুর উপজেলার বারকোনা গ্রামে নিজ বাড়িতে মারা যান। বিকেল সাড়ে চারটায় পারিবারিক শ্মশানে তাঁকে দাহ করা হয়। রবীন্দ্রনাথ সরেনের ছেলে মানিক সরেন বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।
১৯৯৩ সালে ৩ সেপ্টেম্বর উত্তরবঙ্গের ক্ষুদ্র নৃ গোষ্ঠীর মানুষদের বৃহত্তম সংগঠন জাতীয় আদিবাসী পরিষদের প্রতিষ্ঠাতা সাধারণ সম্পাদক ছিলেন রবীন্দ্রনাথ সরেন। ২০১৪ সাল থেকে তিনি সভাপতির দায়িত্ব পালন করে আসছিলেন। দীর্ঘ ৩০ বছর ধরে তিনি উত্তরবঙ্গের ক্ষুদ্র নৃ গোষ্ঠীর উপর নির্যাতন-নিপীড়ন ও বঞ্চনার বিরুদ্ধে এবং আদিবাসী হিসেবে সাংবিধানিক স্বীকৃতি, আলাদা ভূমি কমিশন গঠনসহ ৯ দফা দাবিতে আন্দোলন-সংগ্রামের নেতৃত্ব দিয়ে আসছিলেন।
জাতীয় আদিবাসী পরিষদের সাধারণ সম্পাদক নরেন পাহান বলেন, রবীন্দ্রনাথ সরেনের শূন্যতা পূরণ হওয়ার নয়। তাঁর মৃত্যুতে উত্তরবঙ্গসহ সারাদেশের আদিবাসীদের মধ্যে শোকের ছায়া বিরাজ করছে। জাতীয় আদিবাসী পরিষদ গভীর শোক প্রকাশ করছে।