চোরাই মোটরসাইকেল ও মাদকসহ গ্রেফতার ৪

143

dsc07108চাঁপাইনবাবগঞ্জে র‌্যাব-৫’র সদস্যরা পৃথক অভিযান চালিয়ে নেশা জাতীয় ইঞ্জেকশন, চোরাই মোটর সাইকেল ও চোরাই মোবাইলসেটসহ ৪জনকে গ্রেফকার করেছেন।
এর মধ্যে শিবগঞ্জ উপজেলার কানসাট-চামাবাজার এলাকা থেকে র‌্যাব-৫, চাঁপাইনবাবগঞ্জ ক্যাম্পের একটি আভিযানিক দল শুক্রবার দুপুরে নেশাজাতীয় ইঞ্জেকশনসহ মো. সজলু ওরফে শফিকুল (৪০) নামে ১ জনকে গ্রেফতার করা হয়। গ্রেফতার শফিকুল শিবগঞ্জ উপজেলার চককীর্ত্তি ইউনিয়নের বিমুর্শী গ্রামের মৃত রাশিদ মন্ডলের ছেলে ।
র‌্যাব জানায়, চাঁপাইনবাবগঞ্জ ক্যাম্প কমান্ডার এএসপি মো. নূরে আলমের নেতৃত্বে শুক্রবার দুপুর আড়াইটার দিকে কানসাট-চামাবাজার রোডের চৌধুরীপাড়া এলাকায় একটি আমবাগানে অভিযান পরিচালনা করে। এসময় অবৈধভাবে চোরাইপথে আনা ৪৮০ টি ভারতীয় তৈরী নেশাজাতীয় ইঞ্জেকশনসহ হাতেনাতে শফিকুলকে গ্রেফতার করা হয়। উদ্ধারকৃত নেশাজাতীয় ইঞ্জেকশনের আনুমানিক মূল্য ১ লাখ ২০ হাজার টাকা। এ ব্যাপারে শিবগঞ্জ থানায় আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হয়েছে।
চাঁপাইনবাবগঞ্জের শিবগঞ্জ উপজেলার হরিনগর খনিপাড়া গ্রামে অভিযান পরিচালনা করে চুনাখালী গুমপাড়ার মো. মজিবুর রহমানের ছেলে মো. আব্দুল করিম (২০), চুনাখালী গটিপাড়ার ইসমাইল আলীর ছেলে মো. রহমত আলী (২০), নামে আরও ২জনকে ১ টি চোরাই হিরো হোন্ড, ২টি মোবাইল ফোনসহ গ্রেফতার করা হয়। অপর দিকে একই দিন রাতে চাঁপাইনবাবগঞ্জ সদর উপজেলার রামচন্দ্রপুর হাটে “মা টেলিকম” নামক মোবাইলের দোকানে পৃথক অভিযান পরিচালনা করে উপরধূমি গ্রামের মনিরুল ইসলামের ছেলে মো. জনি (২৬)কে ৬ টি ভারতীয় ও অন্যান্য দেশের তৈরী এ্যান্ড্রয়েড মোবাইল সেটসহ গ্রেফতার করা হয়েছে।
চাঁপাইনবাবগঞ্জ ক্যাম্পের একটি আভিযানিক দল এএসপি মো. নূরে আলমের নেতৃত্বে বৃহস্পতিবার অভিযান চালানো হয়।