চিঠি

21

প্রিয় রেডিও মহানন্দা ৯৮.৮ এফএম, আজ তোমাকে আমার মনের কথা লিখছি। তুমি নিশ্চয়ই আমার মনের কথা বুঝবে। তোমার বাণী সুর ধ্বনি অন্তরে ধারণ করেই লিখছি।
তুমি আমার ঘুম ভাঙ্গার প্রথম সকাল বেলার শুভ্র সতেজ মন, যে মনের গহীনে তোমায় রেখে নিত্য করি আরাধনা, তোমায় পেতে আপন করে গভীরভাবে। তোমার প্রথম জন্মদিনে তোমার পাশেই ছিলাম, আজও তোমার পাশেই আছি। সবাই তোমায় পেতে চাই, মাঝি তোমার কণ্ঠ শুনতে শুনতে মহানন্দা, পদ্মা, পুনর্ভবার বুকে নৌকা বায়। জেলে তোমার নামে জাল ফেলে নদীর জলে, তারপর ধরে ফেলে মুক্তদানার মতো ছোট-বড় মাছের ঝাঁক। গ্রামের অশিক্ষিত চাষা তোমার নামে একটি একটি করে বীজ বোপন করে ধরিত্রীর বুকে, চাষির বৌ কুলোর বাতাসে ঘরে তোলে সোনার ফসল। নবান্নের অনুষ্ঠানে মেতে উঠে গ্রামের মানুষ। বিকেলে ও সন্ধ্যায় গ্রামের মোড়ের ছোট্ট দোকানে বসে চায়ের কাপে চুমুক দেয় আর শুনতে থাকে আজকের চাঁপাইনবাবগঞ্জ।
আমি দূরে আছি বলে ভুলে যায়নি তোমায়, হারাতে দেব না বলে হাতটি ধরেছি দশটি বছর আগে, যদি বন্ধু হও, হাতটি বাড়াও মন্ত্রে দীক্ষিত আমি। প্রতি সন্ধ্যায় সাড়ে ছয়টা ও সাড়ে নয়টায় চেয়ে থাকি তোমার মাধ্যমে আমার জেলার খবর ও দেশের খবর শোনার জন্য। রেডিও মহানন্দা তুমি মিশে আছো আমাদের সত্তায়, রক্তকণিকায়। তুমি মিশে আছো চাঁপাইনবাবগঞ্জের মানুষের নিশ্বাসের মাঝে। শীত গ্রীষ্ম বর্ষায় তোমার আগাম বার্তায় আমরা পথ চলি। আমার গ্রামের মা বোন বৌদিদের কাঁথা সেলাইয়ের প্রতি ফোঁড়ে তুমি মিশে আছো। আমি দূর থেকে আমার গ্রামের স্বাদ পাই আঞ্চলিক ভাষায় অনুষ্ঠান লগড়্যা পাঁচ ফোড়ংয়ের মাধ্যমে।
তুমি আজ দেশে পরিচিত, বিশ্বেও পরিচিত। তোমায় সবার কাছে হাজির করতে একদল তরুণ-তরুণী প্রাণপণ ছুটে চলছে নিরলসভাবে। তোমার জন্মদিন সার্থক ও সুন্দর হোক এই কামনায়, সবাইকে জন্মদিনের ফুলেল শুভেচ্ছা।

সুব্রত সেন : কাঁচপুর, নারায়ণগঞ্জ