চিঠি

15

মো. আলি হাসান

আসসালামু আলাইকুম। আজ চাঁপাইনবাবগঞ্জ জেলার একমাত্র কমিউনিটি রেডিও ‘রেডিও মহানন্দা ৯৮.৮ এফএম’র জন্মদিন। ১০ম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী।
রেডিও মহানন্দা বলে ‘জীবনের কথা জীবনের সুর’। এটা চাঁপাইনবাবগঞ্জের একমাত্র কমিউনিটি রেডিও ও শ্রোতাদের নিজস্ব গণমাধ্যম। নদীর ¯্রােত বয়ে চলার মতো দেখতে দেখতে রেডিও মহানন্দা হাঁটি হাঁটি পা করে ১০ বছর পেরিয়ে ১১ বছরে পদার্পণ করছে। ৭ বছর থেকে গম্ভীরা ও ৩ বছর থেকে নিয়মিত শ্রোতা হিসেবে থাকতে পেরে নিজেকে ধন্য মনে করি।
রেডিও মহানন্দা ১০ বছর ধরে চাঁপাইনবাবগঞ্জবাসীকে বিভিন্নভাবে শিক্ষা, স্বাস্থ্য, চিকিৎসা, বিনোদন, ঐতিহ্য, হারানো সংস্কৃতি তুলে ধরছে। নারী শিক্ষা ও সহিংসতা প্রতিরোধ, বাল্যবিবাহ প্রতিরোধ, যুবদের উন্নয়ন ও উদ্যোক্তা তৈরি ইত্যাদি ক্ষেত্রে রেডিও মহানন্দা প্রচার করে চলছে। আবার সরকারি জরুরি তথ্যগুলোও জানাচ্ছে। নারীদের উন্নয়ন বিষয়ে অনুষ্ঠান করছে। সমাজের উন্নয়ন ও সংস্কৃতি জনগণের মাঝে ১০ বছর থেকে তুলে ধরছে। যেহেতু এটা একটা কমিউনিটি রেডিও, তাই প্রান্তিক জনগোষ্ঠীর বিভিন্ন তথ্য বিভিন্নভাবে তুলে ধরছে।
গম্ভীরা চাঁপাইনবাবগঞ্জের ঐতিহ্য। গম্ভীরায় আমাদের ঐতিহ্য, সংস্কৃতি, শিক্ষা, স্বাস্থ্য, বিভিন্ন বিষয় তুলে ধরা হয়। আমাদের হারানো ঐতিহ্য তুলে ধরার জন্য রেডিও মহানন্দাকে ধন্যবাদ জানাই। ‘হাঁরঘে গেরাম’ বা ‘বাহা সান্দিশ’র মাধ্যমে অবহেলিত জনগোষ্ঠী বিভিন্ন আদিবাসীর তথ্য বা গ্রামের উন্নয়নের তথ্যগুলো সরকারি অথবা বেসরকারি প্রতিষ্ঠানগুলো জানতে পারছে। আর দৈনন্দিন ঘটনাপ্রবাহ নিয়ে নিউজ ‘আজকের চাঁপাইনবাবগঞ্জ’-এর কথা না হয় আজ নাই বললাম। এটা নিয়ে নতুন কিছু বলার নেই। নিউজ শোনার জন্য প্রতিদিন লাখ লাখ শ্রোতা অধীর আগ্রহে অপেক্ষা করেন। দেশ-বিদেশের বিশিষ্ট বরেণ্য ব্যক্তিদের জীবনগাঁথা নিয়ে সাজানো আয়োজন ‘মনীষীদের কথা’। এতে মনীষীদের সম্পর্কে জানতে পারছি। স্থানীয় সম্ভাবনাময় প্রতিভাবান শিল্পীদের অংশগ্রহণে গানের অনুষ্ঠান ‘ক্যাফে মহানন্দা’। একজন প্রতিভাবান শিল্পী চাইলে রেডিও মহানন্দার মাধ্যমে খুব সহজে তার আশা পূরণ করতে পারছে। নিজের লেখা বা নিজের কণ্ঠে গাইতে পারছে। নারীদের উন্নয়নে প্রয়াস সংগঠিত নারীদের সমিতি ও ঋণের মাধ্যমে আত্মনির্ভরশীলতা বিষয়ক অনুষ্ঠান ‘আপন শক্তি’। এছাড়াও মানবপাচার ও শিশুদের নিয়েও আয়োজন রয়েছে। কৃষকের জীবনমান উন্নয়নে ‘কৃষি ও জীবন’ এবং শিক্ষার্থীদের জন্য ছাত্র, শিক্ষক, অভিভাবক ও ব্যবস্থাপনা কমিটির অংশগ্রহণে স্কুল ও কলেজভিত্তিক ম্যাগাজিন অনুষ্ঠান ‘আমাদের ক্যাম্পাস’। এটি শিক্ষার্থীদের জনপ্রিয় একটি অনুষ্ঠান। শ্রোতার কথা মাথায় রেখে শ্রোতাদের চিঠি পাঠ ও উত্তরদাতা এবং শ্রোতাদের অংশগ্রহণমূলক অনুষ্ঠান হচ্ছে ‘ইচ্ছে দুয়ার’। এখানে শ্রোতারা সকল মতামত জানাতে পারে, লিখতে পারে নিজের সকল ভাবনা।
অনেক আয়োজনে কুইজের ব্যবস্থা আছে, আছে পুরস্কার প্রাপ্তির আনন্দ। আমি ২ বছরে কুইজ বিজয়ী হয়েছি ১৭ বারের বেশি। পুরস্কার পেয়েছি ১১টির মতো। বাকিগুলো হয়তো পেয়ে যাব। অনেক সময় বিভিন্ন চিঠি লিখেছি, সঠিক উত্তর পেয়েছি। চিঠি লিখে গান শুনতে চেয়েছি, পছন্দের গানটা শুনতে পেয়েছি।
কি নেই রেডিও মহানন্দায়? সকল কিছু দিয়ে পরিপূর্ণ। এশিয়া মহাদেশীয় এবিইউ প্রাইজ-২০২১ এর জন্য সেরা পাঁচে মনোনীত হওয় আমাদের শ্রোতাদের জন্য অনেক বড় একটা পাওয়া। শ্রোতা হিসেবে আমার ভাবতেই ভালো লাগে যে, এখন রেডিও মহানন্দার শ্রোতা সংখ্যা ৯ লাখের বেশি এবং শিশু, শিক্ষা, শ্রোতা ক্লাবের সংখ্যা ৩১৯টির বেশি। আমরা চাই, রেডিও মহানন্দায় কর্তৃপক্ষের পরিচালনায় শ্রোতাদের জন্য একটা গ্রুপ দেয়া হোক। এতে শ্রোতারা তাদের যে কোনো মতামত প্রকাশ করতে পারবে। রেডিও নিয়ে শ্রোতাদের মধ্যে আলোচনার করার মতো একটা প্ল্যাটফর্ম পাবে। শ্রোতা ফোরামের দায়িত্ব যে কোনো একজন অভিজ্ঞ শ্রোতার হাতে দেয়া যেতে পারে।
আবার নতুন করে শ্রোতারা কিভাবে রেডিওতে ফিরে আসবে, এটা একটু ভাবা দরকার। আগে মাসিক সভা বা ৬ মাস পরপর ক্লাবের সভাপতির সাথে আলোচনা সভা করা হতো, কিন্তু এখন হয়তো কাজের চাপে হয় না। আমি চাইব ৪০ বা ৫০টা ক্লাব নিয়ে একটা টিম গঠন করা হোক। যে কোনো প্রয়োজনে সভাপতি বা সদস্যদের পাশে পাওয়া যাবে। নতুন নতুন শ্রোতাদের রেডিও মহানন্দা শোনার আগ্রহ বাড়াবে। এতে আমাদের অনেক শ্রোতা বাড়বে এবং বিভিন্ন আয়োজনে এই সদস্যগুলো অংশগ্রহণ করবে। শ্রোতাদের শ্রোতা নিবন্ধনের আওতায় আনা হয়েছে এবং ৩১৯টি ক্লাবের সভাপতির নিবন্ধন করা হয়েছে। আমিসহ বাকিদেরও তো ইচ্ছে করে একজন শ্রোতা হিসেবে নিবন্ধিত হতে। আমি শ্রোতা, এটার কোনো পরিচয় নেই। আচ্ছা শ্রোতাদেরকে কি শ্রোতা কার্ড দেয়া যায় না? অন্ততপক্ষে ৫০টি শ্রোতা ক্লাব নিয়ে যে টিম গঠন করা হবে সেই সভাপতিদের তো শ্রোতা কার্ড দেয়াই যায়। বিশ্ব বেতার দিবস বা রেডিও মহানন্দার প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উপলক্ষে শ্রোতাদের কোনো আমন্ত্রণ কার্ড বা শুভেচ্ছা কার্ড পাঠালে দেখা যাবে শ্রোতারা অনেক খুশি হবে।
আমরা রেডিও মহানন্দার শ্রোতাদের জনপ্রিয় আয়োজন ‘ইচ্ছে দুয়ার’ এর ৩৬২তম পর্ব ও ‘গামছা মাথল’ এর ২২৫তম পর্ব পার করলাম। আর ‘লগড়্যা পাঁচ ফোড়ং’ আয়োজনের প্রায় ৪৭০তম আয়োজন ছুঁইছুঁই। ‘লগড়্যা পাঁচ ফোড়ং’ আয়োজনটা শ্রোতাদের কত জনপ্রিয়, সেটা সোমবার এলেই বোঝা যায়। শ্রোতাদের জনপ্রিয়তার মধ্য দিয়ে আমরা এই সফলতার ২২৫, ৩৬২, ৪৭০ পর্ব পার করে চলেছি।
সমাজে কতজন সংস্কৃতি তুলে ধরতে ও সচেতনতা সৃষ্টি করতে কাজ করে? সামাজিক কর্মকা- ও সেবামূলক বিষয়গুলো জনগণের দোরগোড়ায় পৌঁছে দেয়ার জন্য ধন্যবাদ জানাই রেডিও মহানন্দার প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা মো. হাসিব হোসেন ভাইয়াকে।
চাওয়া-পাওয়া পূরণ করে, ভালোবাসার আধুনিকতা ছড়িয়ে শ্রোতাদের মুখে হাসি ফুটিয়ে তুলতে পারা যেমন আপনাদের সার্থকতা; ঠিক তেমনি শ্রোতারা তাদের ভালোবাসার চাদরে রঙিন পরশে জড়িয়ে ছায়ার মতো আপনাদের পাশে আছে সবসময়। আজকের এই আনন্দের দিনে আবার রেডিও মহানন্দাকে জানাই জন্মদিনের অনেক অনেক শুভেচ্ছা। শুভ জন্মদিন। লাখ লাখ শ্রোতার প্রাণে যুগ যুগ ধরে বেঁচে থাকুক এটাই প্রত্যাশা করি।

মো. আলি হাসান : বাগবাড়ী, সোনামসজিদ, শিবগঞ্জ, চাঁপাইনবাবগঞ্জ