চাঁপাইনবাবগঞ্জ সদরে  ৮১০০ ক্ষুদ্র কৃষক পাচ্ছেন কৃষি প্রণোদনার বীজ ও সার

34

চাঁপাইনবাবগঞ্জ সদর উপজেলায় ২০২২-২০২৩ অর্থবছরে সরকারের কৃষি প্রণোদনা কর্মসূচির আওতায় রবি মৌসূমে গম, ভূট্টা, সরিষা, চিনাবাদাম, শীতকালীন পেঁয়াজ, মুগ, মসুর ও খেসারী আবাদ বৃদ্ধির লক্ষে ৮ হাজার ১শ জন ক্ষুদ্র ও প্রান্তিক কৃষকের মধ্যে বিনামূল্যে বীজ ও রাসায়নিক সার বিতরণ করা হচ্ছে। এর মধ্যে প্রতিবঘিা জমির জন্য ৭৫০ জন কৃষককে গম বীজ, ৮শজনকে ভুট্টা বীজ,৫ হাজার ৭৫০জনকে সরিষা বীজ, ১৩০জনকে চিনাবাদাম বীজ, ৫০জনকে শীতকালীন পেঁয়াজ বীজ, ১১০জনকে মুগ বীজ, ১১০জনকে মসুর বীজ, ৪শজনকে খেসারী বীজ দেয়া হচ্ছে। প্রতি বিঘা গম আবাদের জন্য প্রতিজন কৃষককে ২০ কেজি বীজ, ১০ কেজি করে ডিএপি ও এমওপি সার, প্রতিজন কৃষককে ভূট্টা আবাদের জন্য ২ কেজি বীজ, ২০ কেজি ডিএপি ও ১০ কেজি করে এমওপি সার, সরিষা বীজ ১ কেজি, ডিএপি ও এমওপি সার ১০ কেজি করে, চিনাবাদাম বীজ ১০ কেজি, ডিএপি ১০ কেজি ও এমওপি ৫ কেজি করে, শীতকালীন পেঁয়াজ বীজ ১ কেজি, ১০ কেজি করে ডিএপি ও এমওপি সার,  কেজি করে মুগ বীজ, ১০ কেজি করে ডিএপি ও ৫ কেজি করে এমওপি, ৫ কেজি করে মসুর বীজ, ১০ কেজি করে ডিএপি ও ৫ কেজি কের এমওপি, ৮ কেজি করে খেসারী বীজ এবং ১০ কেজি করে ডিএপি ও ৫ কেজি করে এমওপি সার প্রদান করা হচ্ছে। বৃহস্পতিবার সকালে সদর উপজেলা পরিষদের সম্মেলন কক্ষে বিতরণ কার্যক্রমের উদ্বোধন করা হয়। সদর উপজেলা নির্বাহী অফিসার মো. রওশন আলীর সভাপতিত্বে স্বাগত বক্তব্য দেন, উপজেলা কৃষি অফিসার কানিজ তাসনোভা। বিশেষ অতিথির বক্তব্য দেন উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান তসিকুল ইসলাম তসি। অন্যদের মধ্যে বক্তব্য দেন উপজেলা পরিষদের ভাইস চেয়ারম্যান তোসিকুল আলম বাবুল ও মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান নাসরিন আখতার, কৃষক মো. মনিরুল ইসলাম। অনুষ্ঠান সঞ্চালনা করেন সদর উপজেলা অতিরিক্ত কৃষি অফিসার সলেহ আকরাম।

বক্তারা প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার আহ্বান সম্রণ করিয়ে দিয়ে কৃষকদের বলেন-এক ইঞ্চি জায়গাও যেন অনাবাদি না থাকে।