চাঁপাইনবাবগঞ্জ জেলায় বেগম রোকেয়া দিবসে সংবর্ধনা পেলেন জয়িতারা

44

চাঁপাইনবাবগঞ্জ জেলায় আন্তর্জাতিক নারী নির্যাতন প্রতিরোধ পক্ষ ও বেগম রোকেয়া দিবস পালন করা হয়েছে। একই অনুষ্ঠানে ‘জয়িতা অন্বেষণে বাংলাদেশ’ কার্যক্রমের আওতায় চাঁপাইনবাবগঞ্জ জেলা ও উপজেলায় জয়িতাদের সংবর্ধনা দেয়া হয়। প্রতিনিধিদের পাঠানো সংবাদ :
নিজস্ব প্রতিবেদক :  শুক্রবার বেলা ১১টায় জেলা প্রশাসকের সম্মেলন কক্ষে এক অনুষ্ঠানে জেলাপর্যায়ে ৫ জন জয়িতাকে সংবর্ধনা দেয়া হয়। জয়িতারা হলেন, অর্থনৈতিকভাবে সাফল্য অর্জনকারী নাচোল উপজেলার সালমা খাতুন, শিক্ষা ও চাকরি ক্ষেত্রে সাফল্য অর্জনকারী গোমস্তাপুর উপজেলার শোভা রানী মজুমদার, সফল জননী নাচোল উপজেলার জামিলা বেগম, নির্যাতনের বিভীষিকা মুছে ফেলে নতুন উদ্যমে জীবন শুরু করা শিবগঞ্জ উপজেলার আলেয়া খাতুন ও সমাজ উন্নয়নে অসামান্য অবদান রাখা সদর উপজেলার বিউটি বেগম। এছাড়াও উপজেলা পর্যায়ের সদর উপজেলার আরো ৫ জয়িতাকে সংবর্ধনা দেয়া হয়। তবে তাদের মধ্যে কেউ কেউ জেলাপর্যায়েও জয়িতা নির্বাচিত হন।
সংবর্ধনা অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি ছিলেন, স্থানীয় সরকার, চাঁপাইনবাবগঞ্জের উপপরিচালক ও সরকারের উপসচিব দেবেন্দ্র নাথ উরাঁও। জেলা মহিলা বিষয়ক অধিদপ্তরের উপপরিচালক সাহিদা আখতারের সভাপতিত্বে আয়োজিত অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি ছিলেনÑ সিভিল সার্জন ডা. এসএম মাহমুদুর রশিদ, বীর মুক্তিযোদ্ধা অ্যাডভোকেট আব্দুস সামাদ, জেলা এলজিইডির নির্বাহী প্রকৌশলী মোজাহার আলী প্রামানিক, নবাবগঞ্জ সরকারি কলেজের অবসরপ্রাপ্ত অধ্যক্ষ সুলতানা রাজিয়া, সদর উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান তোসিকুল আলম বাবুল ও মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান নাসরিন আখতার, কবি ফারুকা বেগমসহ অন্যরা।
জাগো নারী বহ্নিশিখা : চাঁপাইনবাবগঞ্জে নারীদের সংগঠন ‘জাগো নারী বহ্নিশিখা’ শুক্রবার বিকেলে বেগম রোকেয়া দিবস উপলক্ষে এক আলোচনা সভার আয়োজন করে। শহরের ঝিলিম রোডে নিজস্ব কার্যালয়ে এ সভা অনুষ্ঠিত হয়।
শিরিন বেগমের সভাপতিত্বে সভায় বক্তব্য দেন, সংগঠনের উপদেষ্টা শফিকুল আলম, অবসরপ্রাপ্ত প্রকৌশলী আজিমুল হক, সংগঠনটির সভাপতি ফারুকা বেগম, সদস্য লিপি রায়, শেফালী খাতুন, শাহনাজ রুমি। সঞ্চালনা করেন সংগঠনের সাধারণ সম্পাদক মনোয়ারা খাতুন।
বক্তারা বলেন, নারী শিক্ষার অগ্রদূত বেগম রোকেয়া শিক্ষার মাধমে নারীদের মুক্তির যে আন্দোলন শুরু করেছিলেন তার যৌক্তিক পরিণতি এখনো আসেনি। নারীদের ওপর সহিংসতার যে পরিসংখ্যান তা ভয়ংকর। এ অবস্থা থেকে বেরিয়ে আসার জন্য নারীদের আন্দোলন-সংগ্রাম চালিয়ে যেতে হবে।
নাচোল প্রতিনিধি : চাঁপাইনবাবগঞ্জের নাচোল উপজেলায় বেগম রোকেয়া দিবস পালন হয়েছে। সে সাথে বিভিন্ন ক্যাটাগরিতে ৫ জয়িতাকে সংবর্ধনা দেওয়া হয়েছে।
শুক্রবার সকাল সাড়ে ৯টায় উপজেলা পরিষদ সম্মেলন কক্ষে তাদেরকে সংবর্ধনা দেয়া হয়। উপজেলা নির্বাহী অফিসার মোহাইমেনা শারমীনের সভাপতিত্বে বক্তব্য দেনÑ উপজেলা চেয়ারম্যান আব্দুল কাদের, নাচোল পৌর মেয়র আব্দুর রশিদ খাঁন ঝালু, নুরুল আউয়াল, ভাইস চেয়ারম্যান মশিউর রহমান।
সভায় বক্তারা বলেন, নারী জাগরণের অগ্রদূত বেগম রোকেয়ার সময়ই নারীদের ঘরে থাকার দিন শেষ হয়েছে। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা নারী সমাজের উন্নয়নে নিরলসভাবে কাজ করছেন। নারী-পুরুষের অংশগ্রহণে দেশ আজ উন্নয়নের অগ্রযাত্রায় এগিয়ে চলেছে।
পরে বিভিন্ন প্রতিযোগিতায় অংশ নেয়া বিজয়ীদের মধ্যে পুরস্কার ও উপজেলা পর্যায়ে শ্রেষ্ঠ ৫ জয়িতাকে পদক তুলে দেওয়া হয়।
বিভিন্ন ক্যাটাগরিতে শ্রেষ্ঠ ৫ জয়িতা হলেন, অর্থনৈতিকভাবে সাফল্য অর্জনকারী ফতেপুর ইউনিয়নের দিয়াড় খোলসি গ্রামের সালমা খাতুন, নির্যাতনের বিভীষিকা মুছে ফেলে নতুন উদ্যমে জীবন শুরু করা ফুরশেদপুর গ্রামের আনজিয়া বেগম, সমাজ উন্নয়নে অসামান্য অবদান রাখায় মাধবপুর গ্রামের কারিমা বেগম, শিক্ষা ও চাকরি ক্ষেত্রে সাফল্য অর্জন করায় নাচোল সদর ইউনিয়নের খেসবা গ্রামের শুকতারা খাতুন ও সফল জননী হিসেবে নাচোল পৌরসভার ইসলামপুর মহল্লার জামিলা বেগম।
এদের মধ্যে সালমা খাতুন ও জামিলা বেগম জেলা পর্যায়েও শ্রেষ্ঠ জয়িতা নির্বাচিত হয়েছেন।
গোমস্তাপুর প্রতিনিধি : চাঁপাইনবাগঞ্জের গোমস্তাপুরে আন্তর্জাতিক নারী নির্যাতন প্রতিরোধ পক্ষ ও বেগম রোকেয়া দিবস পালন করা হয়েছে। এছাড়া জয়িতা অন্বেষণ বাংলাদেশ কার্যক্রমের আওতায় উপজেলার চারজন জয়িতাকে সম্মাননা দেওয়া হয়।
এ উপলক্ষে উপজেলা প্রশাসন ও মহিলা বিষয়ক অধিদপ্তরের আয়োজনে শোভাযাত্রা ও আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়। শুক্রবার সকালে শোভাযাত্রাটি উপজেলা চত্বর থেকে বের হয়ে রহনপুর শহর প্রদক্ষিণ করে একই স্থানে এসে শেষ হয়।
পরে উপজেলা সভাকক্ষে আলোচনা সভায় সভাপতিত্ব করেন উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) আসমা খাতুন। অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্য দেনÑ উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান হুমায়ুন রেজা। অন্যদের মধ্যে বক্তব্য দেনÑ উপজেলা মহিলা বিষয়ক কর্মকর্তা পঙ্কজ কুমার দাস, রহনপুর পৌরসভার প্যানেল মেয়র জাহানারা পারভীন, উপজেলা প্রেস ক্লাবের সভাপতি আতিকুল ইসলাম আজম, রহনপুর রাবেয়া বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক কাউসার আলী।
আলোচনা শেষে উপজেলা পর্যায়ে বিভিন্ন ক্ষেত্রে অবদান রাখায় পদ্ম রানী, শোভা রানী মজুমদার, সুধিন জেরি ও রোজিনা বেগমের হাতে শ্রেষ্ঠ জয়িতা হিসেবে পুরস্কার তুলে দেন অতিথিরা।