চাঁপাইনবাবগঞ্জ অঞ্চলে কমছে তাপমাত্রা, সকাল-সন্ধ্যায় অনুভুত হচ্ছে শীত

118

14656395_1133965740026683_6862277080432765646_nকদিন থেকেই কমছে তাপমাত্রা, ফলে শীত অনুভুত হতে শুরু করেছে, সকাল আর সন্ধ্যায় সির সির করে উঠছে শরীর। গভীর রাতে গায়ে তুলতে হচ্ছে কাঁথা বা কম্বল। এমনকি সকালে কিংবা সন্ধ্যায় বাইরে বের হওয়ার সময় অনেকেই সুয়েটার, জ্যাকেট ও চাদর পড়ছেন।
এদিকে শীতের আগমনী বার্তায় মৌসুমী ব্যবসায়ী তাদের ব্যবসা শুরু করেছেন। চাঁপাইনবাবগঞ্জের বিভিন্ন পাড়া মহল্লার মোড়ে মোড়ে চোখে পড়বে ভাপাপিঠা বিক্রি হচ্ছে। শহরের অকট্রয় মোড়, বিশ্বরোড মোড়ে দেখা যায় একাধিক ভাপা পিঠা বিক্রেতা। অকট্রয় মোড় এলাকায় ভাপাপিঠা বিক্রি করছেন সাদেক আলী। কথা হয় তার সাথে, জানালেন শীত শুরু হওয়ায় তার বিক্রি ভালোই হচ্ছে, ভাপা পিঠার পাশাপাশি তিনি আগের মতই সিদ্ধ ডিমও বিক্রি করছেন। ডিমের বিক্রিও বেড়েছে বলে জানান এই বিক্রেতা।
এদিকে বিক্রি বেড়েছে শীতের পোষাকের, শহরের নিউ মার্কেট, ক্লাব সুপার মার্কেট ঘুরে দেখা যায়, পছন্দের সাথে মিল রেখে উষœ কাপড় কিনছেন সবাই। ক্লাব সুপার মার্কেটের শীতের পোষাক কিনতে আসা, নবাবগঞ্জ সরকারি কলেজের শিক্ষার্থী আব্দুল হামিদ জানান, গত কয়েক বছরের মতই এবছরও শীতের পোষাকে হুডি ট্রেন্ড টায় চলছে। এতে করে অনেক সময় আলাদা করে কানটুপীর প্রয়োজন হয়না।
ক্লাব সুপার মার্কেটের নকশী কর্নারের বিক্রয় প্রতিনিধি আবু হাসনাত সুমন বলেন, গত তিন চার দিন থেকে কিছুটা শীতের পোষাক বিক্রি শুরু হয়েছে। তিনি জানান, এবার বড়রা বেশি কিনছেন লেদার জ্যাকেট, বিদেশী ভালো মানের লেদার জ্যাকেটের দাম পড়বে ৫-৭ হাজার টাকা, তবে ২৭০০ টাকা থেকে ৩ হাজারের মধ্যেও কিছু জ্যাকেট পাওয়া যাচ্ছে। তিনি জানান, ইয়াং ছেলেদের সবচেয়ে বেশি পছন্দ হুডি গেঞ্জী, ভালো মানের এসব গেঞ্জি মিলছে ৭০০ থেকে ১ হাজার টাকার মধ্যেই, আবার ৫০০-৬০০ টাকার মধ্যেই কিছু হুডি গেঞ্জী পাওয়া যাচ্ছে। এছাড়াও চয়না সুয়েটার বিক্রি হচ্ছে ১০০০থেকে ১২০০ টাকার মধ্যে।
নকশী কর্নারের মালিক সেলিম রেজা জানান, এখনো শীতের বেঁচাকেনা পুরোদমে শুরু হয়নি, তবে শীত যত বাড়বে আমাদের পোষাকের বিক্রিও বাড়বে। অন্যদিকে মেয়েদের শীতের পোষাকের মধ্যে বেশি চলছে, লং সুয়েটার। সৌদিয়া গার্মেসের মালিক আব্রাহাম লিংকন জানান, মেয়েদের বেশি পছন্দ লং সুয়েটার, ৩৫০০টাকা থেকে ৪ হাজার টাকার মধ্যেই বিক্রি হচ্ছে লং সুয়েটার। এছাড়াও বড়রা উলের বিভিন্ন সুয়েটার কিনছেন, ভালো মানের সুয়েটার ১৫০০ থেকে ২০০০ হাজার, এছাড়াও ৫০০ থেকে ১ হাজার টাকার মধ্যেই মেয়েদের সুয়েটার বিক্রি হচ্ছে। এছাড়াও শীত নিবারনে মেয়ে কিংবা ছেলে অনেকেই শাল বা চারদ কিনছেন।
আবহাওয়া দফতর সূত্রের খবর, নভেম্বরের তৃতীয় সপ্তাহের পর সর্বনিম্ন তাপমাত্রা ক্রমশ নামতেই থাকে। নভেম্বর থেকে তাপমাত্রার পতনের অর্থ শীতের ভিত মজবুত হচ্ছে। আবহাওয়া যেমন খামখেয়ালি হয়ে উঠছে, তাতে এই ভিত মজবুত হওয়ার তত্ত¦ কতটা খাটবে, তা নিয়েও সন্দেহ থেকে যাচ্ছে।