চাঁপাইনবাবগঞ্জে ২০২২ সালে ডিএনসি’র অভিযানে গ্রেপ্তার ১০৯৯ জন, ১০৪৩ মামলা

16

মাদক নিয়ন্ত্রণে নিয়মিত অভিযানের পাশাপাশি জনসচেতনতামূলক কার্যক্রম পরিচালনা করছে মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ অধিদপ্তর (ডিএনসি), চাঁপাইনবাবগঞ্জ জেলা কার্যালয়। সদ্য বিদায়ী বছরে জেলার বিভিন্ন এলাকায় অভিযান চালিয়ে ১ হাজার ৯৯ জনকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। গ্রেপ্তারকৃতদের বিরুদ্ধে মামলা হয়েছে ১ হাজার ৪৩ টি। অভিযানগুলোয় বিভিন্ন প্রকার মাদক উদ্ধার করা হয়েছে।
মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ অধিদপ্তর, চাঁপাইনবাবগঞ্জ জেলা কার্যালয় সূত্রে জানা গেছে, ২০২২ সালের জানুয়ারি হতে ডিসেম্বর পর্যন্ত ১২ মাসে জেলার বিভিন্ন এলাকায় ২ হাজার ৫টি অভিযান চালিয়ে ২ কেজি ২২২ গ্রাম হেরোইন, ১ হাজার ২৮ বোতল ফেনসিডিল, ৪ হাজার ৬১৩ পিস ইয়াবা, ১৫৯ কেজি গাঁজা, ৮ বোতল বিলেতি মদ, ৫০৩ অ্যাম্পুল ব্রুপেনরফিন ইঞ্জেকশন, ৫ অ্যাম্পুল ডায়াজিপাম ইঞ্জেকশন, ৫৭৭লিটার চোলাই মদ, ২শ লিটার ওয়াশ উদ্ধার করা হয়েছে। জব্দ করা হয়েছে বিভিন্ন কোম্পানীর ৯টি মোটর সাইকেল ও নগদ ৩ লাখ ১২ হাজার ৬৪০ টাকা। এসব ঘটনায় ১ হাজার ৯৯ জনকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। গ্রেপ্তারকৃতদের বিরুদ্ধে মামলা হয়েছে ১ হাজার ৪৩ টি।
অপর দিকে ২০২১ সালে ১২ মাসে জেলার বিভিন্ন এলাকায় ১৪১৮ টি অভিযানে ১ কেজি ২ গ্রাম হেরোইন, ১ হাজার ৩৪১ বোতল ফেনসিডিল, ৫ হাজার ৩৬৩ পিস ইয়াবা, ১০৮ কেজি গাঁজা, ৭১৯ অ্যাম্পুল ব্রুপেনরফিন ইঞ্জেকশন, ৪৫০ অ্যাম্পুল ডায়াজিপাম ইঞ্জেকশন, ৪৭২লিটার চোলাই মদ, ৫শ লিটার ওয়াশ উদ্ধার করা হয়েছে। জব্দ করা হয় ১৬ টি বিভিন্ন কোম্পানীর মোটর সাইকেল ও নগদ ১ লাখ ৫০ হাজার ২৭০ টাকা। এসব ঘটনায় ৭১১ জনকে গ্রেপ্তার করা হয় এবং গ্রেপ্তারকৃতদের বিরুদ্ধে মামলা হয় ৬৬৯ টি।
সংস্থাটি মাদক বিরোধী নিয়মিত অভিযানের পাশাপাশি সচেতনতামূলক কাজও বাস্তবায়ন করছে। ২০২২ সালে ১০ হাজার ৯শটি লিফলেট বিতরণ করা হয়েছে। শিক্ষার্থীদের মাঝে ৩ হাজার ৪৫০টি থ্রিডি স্কেল, ৬ হাজার ৬৫০টি জ্যামিতি বক্স বিতরণ করা হয়েছে। এছাড়া প্রায় হাজার খানেক হ্যান্ড স্যানিটাইজার, সহস্রাধিক মাস্ক বিতরণ করা হয়। এছাড়া সচেতনতামূক ৬টি ডিসপ্লে স্ট্যান্ড, ২৫০টি মাউস প্যাড, ৫৪টি ফেসটুন, ১শটি টি-শার্ট, ১শটি কলম, ৫০টি ছাতাসহ অন্যান্য উপকরণ বিতরণ করা হয়েছে। অন্যদিকে মাদকের বিরুদ্ধে সচেতনতা বাড়াতে ৭টি ওয়ার্কশপ, ৫৬টি আলোচন সভা, বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে ৩০টি আলোচনা সভাসহ বিভিন্ন কার্যক্রম পরিচলনা করা হয়েছে।
মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ অধিদপ্তর, চাঁপাইনবাবগঞ্জ জেলা কার্যালয়ের উপ-পরিচালক মোহাম্মদ আনিছুর রহমান খান বলেন- দেশের সীমান্তবর্তী জেলা হওয়ায় চাঁপাইনবাবগঞ্জে মাদকের পরিমাণ বেশি। তাই এই জেলাকে মাদকমুক্ত করতে আমাদের প্রতিটি সদস্য নিরলসভাবে কাজ করে যাচ্ছে। পাশাপাশি মাদকের ভয়াবহতা সম্পর্কে সচেনতামূল কার্যক্রম পরিচালিত হচ্ছে। মাদক নিয়ন্ত্রণে সামাজিক আন্দোলন গড়ে তোলার আহ্বান জানান তিনি।