চাঁপাইনবাবগঞ্জে ১৫-২১ জুন জনশুমারি ও গৃহগণনা সংশ্লিষ্টদের চারদিনের প্রশিক্ষণ শুরু

28

আগামী ১৫ জুন প্রথমবারের মতো ডিজিটাল পদ্ধতিতে জনশুমারি ও গৃহগণনা শুরু হচ্ছে। চলবে ২১ জুন পর্যন্ত। এ উপলক্ষে সোমবার থেকে চাঁপাইনবাবগঞ্জে জেলা ও উপজেলা পর্যায়ের শুমারি সমন্বয়কারী, জোনাল অফিসার ও আইটি সুপারভাইজারদের নিয়ে চার দিনের প্রশিক্ষণ শুরু হয়েছে।
সদর উপজেলা নির্বাহী অফিসারের সম্মেলন কক্ষে প্রধান অতিথি হিসেবে এ প্রশিক্ষণের উদ্বোধন করেন জেলা প্রশাসক এ কে এম গালিভ খান। এ সময় তিনি প্রতিটি মানুষ এবং প্রতিটি গৃহের সঠিক তথ্য সংগ্রহ করার জন্য সংশিষ্টদের প্রতি আহ্বান জানান। তিনি বলেনÑ আপনারা সবচেয়ে ভালো কাজটি সম্পাদন করবেন। আমরা আপনাদের সনদপত্র দিব।
জেলা পরিসংখ্যান ব্যুরোর উপপরিচালক উম্মে কুলসুমের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত উদ্বোধন অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথির বক্তব্য দেনÑ অতিরিক্ত জেলা ম্যাজিস্ট্রেট দেবেন্দ্র নাথ উরাঁও ও সদর উপজেলা নির্বাহী অফিসার ইফফাত জাহান।
উপপরিচালক উম্মে কুলসুম জানান, এই চারদিন যারা প্রশিক্ষণ নেবেন তারা গণনাকারীদের প্রশিক্ষণ দেবেন। তিনি জানান, আইসিআর প্রশ্নপত্র বা মোবাইল অ্যাপ-ড্রপ অ্যান্ড পিক-টেলিফোনিক সাক্ষাৎকারের মাধ্যমে ১৫-২১ জুন অনুষ্ঠিত হবে জনশুমারি ও গৃহগণনা-২০২২।
উল্লেখ্য, ১৯৭৪ সালে স্বাধীন বাংলাদেশে প্রথম আদমশুমারি অনুষ্ঠিত হয়। তাতে মোট জনসংখ্যা ছিল ৭.১৫ কোটি। এরপর ১৯৮১ সালে দ্বিতীয় আদমশুমারি হয়। ওই শুমারিতে মোট জনসংখ্যা নিরূপণ করা হয় ৮.৯৯ কোটি। এরপর ১৯৯১ সালে তৃতীয় আদমশুমারিতে মোট জনসংখ্যা দাঁড়ায় ১১.১৫ কোটি। ২০০১ সালে চতুর্থ আদমশুমারিতে মোট জনসংখ্যা হয় ১৩.০৫ কোটি। ২০১১ সালে পঞ্চম আদমশুমারিতে বৃদ্ধি হয়ে জনসংখ্যা দাঁড়ায় ১৪.৯৮ কোটি। এবার ৬ষ্ঠ শুমারি অনুষ্ঠিত হতে যাচ্ছে।