চাঁপাইনবাবগঞ্জে বড়দিন পালিত

10

চাঁপাইনবাবগঞ্জের বিভিন্ন স্থানে বসবাসরত খ্রিষ্টধর্মাবলম্বীদের উদ্যোগে শনিবার বড়দিন উদযাপন করা হয়েছে। সকালে চাঁপাইনবাবগঞ্জ পৌরসভার স্বরুপনগরের সিসিডিবি মোড়ে সকাল ১০ টায় গীর্জায় খৃষ্টান ধর্মাবলম্বীরা প্রার্থনার মধ্যে দিয়ে উৎসব শুরু করেন।
সিসিডিবি ব্যাপটিস্ট মিশনের চার্চের পালক সুনিল হাঁসদা জেলাবাসীসহ বিশ্বের সকল যীশুর ভক্ত এবং সকল ধর্মের প্রতি শুভেচ্ছা জানান। এছাড়া জেলার গোবরাতলা, নাচোল, আমনুরা ও রহনপুরে খৃষ্টধর্মাবলম্বীরা আনন্দের মধ্যে দিয়ে দিনটি উদযাপন করেন।
অন্যদিকে জেলার গোমস্তাপুর উপজেলার খ্রিষ্টান সম্প্রদায় অধ্যুষিত এলাকাগুলোতে বর্ণিল আয়োজনে বড়দিন উদ্্যাপিত হয়েছে। তবে করোনা ভাইরাস পরিস্থিতির কারণে এবারো সীমিত আকারে উৎসব পালন করা হয়।
গতকাল শনিবার সকাল থেকে ভাবগাম্ভীর্য ও প্রার্থনার মধ্য দিয়ে উৎসব পালিত হয়। উপজেলার সদর রহনপুর পৌরসভা থেকে ১ কিলোমিটার অদূরে রাঙামাটিয়া মিশনে এ উপলক্ষে প্রার্থনা, গির্জায় বিশেষ মোনাজাতের আয়োজন করা হয়।
রহনপুর সেন্ট যোসেফ ক্যাথলিক চার্চের সাবেক প্যারিস কাউন্সিলর লুইস টুডু জানান, বড়দিন উপলক্ষে রহনপুর রাঙামাটি মিশন এলাকায় সাজসজ্জা করা হলেও করোনা পরিস্থিতির কারণে এলাকায় সর্বসাধারণের উপস্থিতি তেমন লক্ষ করা যায়নি। ফাদারের নির্দেশে উপজেলার বিভিন্ন স্থানে আগেই মাইকিং করে জানিয়ে দেয়া হয় গির্জা এলাকায় গণসমাগম না করতে। ছিল না রাঙামাটিয়া প্রাথমিক বিদ্যালয় মাঠে বিভিন্ন প্রকার খেলাধুলার আয়োজন। তিনি আরো বলেন, ২৪ ডিসেম্বর আত্মশুদ্ধির প্রার্থনা, শনিবার সকালে নিশি পবিত্র খিষ্ট্রযাগ প্রার্থনা করা হয়।
রহনপুর সেন্ট যোসেফ ক্যাথলিক চার্চের ফাদার বার্নাট রোজারিও বলেন, বড়দিন উপলক্ষে উপজেলার প্রতিটি গির্জায় সকাল থেকেই দেশ ও জাতির কল্যাণ এবং মহামারি করোনা থেকে মুক্তির জন্য বিশেষ প্রার্থনা করা হয়েছে।
গোমস্তাপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) দিলীপ কুমার দাস বলেন, গোমস্তাপুর উপজেলার ৫টি গির্জায় বড়দিন পালিত হচ্ছে। আইনশৃঙ্খলা রক্ষায় পুলিশ টহলে রয়েছে।