চাঁপাইনবাবগঞ্জে পরিত্যক্ত বাড়ি থেকে ৪১টি তাজা ককটেল উদ্ধার করেছে র‌্যাব

21

চাঁপাইনবাবগঞ্জে ৪১টি তাজা ককটেল উদ্ধার করেছে র‌্যাব। গত শুক্রবার রাত ৮টার দিকে জেলার শিবগঞ্জ উপজেলার নয়ালাভাঙ্গা ইউনিয়নের লাভাঙ্গা সুন্দরপুর এলাকায় একটি পরিত্যক্ত বাড়ি থেকে ককটেলগুলো উদ্ধার করা হয়। পরে র‌্যাবের বোম্ব ডিস্পোজাল ইউনিট ঘটনাস্থল সংলগ্ন একটি আমবাগানের মধ্যে ককটেলগুলো ধ্বংস করে।
এ ব্যাপারে র‌্যাব-৫, চাঁপাইনবাবগঞ্জ ক্যাম্প শনিবার সকাল ১০টায় ঘটনাস্থলেই এক প্রেস ব্রিফিংয়ের আয়োজন করে। এতে সাংবাদিকদের ব্রিফ করেন র‌্যাব-৫, রাজশাহী ব্যাটালিয়নের অধিনায়ক লে. কর্নেল মো. মুনীম ফেরদৌস।
তিনি বলেন, সাম্প্রতিক রাজনৈতিক পরিবেশের সুযোগ নিয়ে মানুষের সাধারণ জীবনযাপন বাধাগ্রস্ত করতে একটি কুচক্রী মহল বিভিন্ন ধরনের নাশকতামূলক কর্মকাণ্ড পরিচালনা করছে। সম্প্রতি চাঁপাইনবাবগঞ্জ নির্বাচন অফিস, জেলা প্রশাসকের টেনিস গ্রাউন্ড, চিফ জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেটের টেনিস গ্রাউন্ডসহ জেলার বিভিন্ন স্থানে দুষ্কৃতিকারীরা ককটেল বিস্ফোরণ ঘটিয়ে জনমনে আতঙ্ক তৈরি করে।
মুনীম ফেরদৌস বলেন, সাম্প্রতিক রাজনৈতিক পরিবেশ ও আসন্ন জাতীয় সংসদ নির্বাচনকে সামনে রেখে র‌্যাব নাশকতামূলক কর্মকাণ্ড রোধে সর্বাত্মক কার্যক্রম পরিচালনা করছে। গোয়েন্দা নজরদারি বৃদ্ধির পাশাপাশি টহল কার্যক্রম জোরদার করার মাধ্যমে জনগণের জানমালের নিরাপত্তায় সদা সর্বদা প্রস্তুত রয়েছে। তারই ধারাবাহিকতায় র‌্যাবের গোয়েন্দা দল এই ককটেলগুলোর সন্ধান পায় এবং ৮টি বালতির মধ্যে থেকে ৪১টি তাজা ককটেল উদ্ধার করা হয়। এ ব্যাপারে পরিত্যক্ত বাড়ির মালিককে জিজ্ঞাসাবাদ করা হয়েছে। তবে তিনি জড়িত নন বলে প্রাথমিকভাবে মনে হয়েছে। ককটেলগুলো যে বা যারাই রাখুক না কেন তাকে বা তাদেরকে আইনের আওতায় আনতে র‌্যাবের নজরদারি বৃদ্ধি করা হয়েছে।
রাজশাহী র‌্যাবের শীর্ষ এই কর্মকর্তা আরো বলেনÑ আসন্ন জাতীয় সংসদ নির্বাচনে যাতে কেউ কোনো ধরনের নাশকতামূলক কার্যক্রম পরিচালনা করে জনমনে আতঙ্ক তৈরি করতে না পারে এবং জনগণ যেন নির্বিঘ্নে ভোট দিতে যেতে পারে সে জন্য র‌্যাবের সকল সদস্য সদা প্রস্তুত রয়েছে। আশা করি মানুষ নির্বিঘ্নে ভোট গিয়ে তাদের ভোটাধিকার প্রয়োগ করতে পারবেন।
এসময় কোম্পানি অধিনায়ক মেজর মারুফুল ইসলাম এবং কোম্পানি উপ-অধিনায়ক সহকারী পুলিশ সুপার মো. আমিনুল ইসলামসহ অন্যরা উপস্থিত ছিলেন।
পরে র‌্যাবের এইসব কর্মকর্তার উপস্থিতিতে ঘটনাস্থল সংলগ্ন একটি আমবাগানের মধ্যে ককটেলগুলো ধ্বংস করা হয়।