চাঁপাইনবাবগঞ্জে পদ্মা ও মহানন্দায় বাড়ছে পানি : নয় সহস্রাধিক কৃষকের ৩৪৪০ হেক্টর জমির ফসল নিমজ্জিত

76

চাঁপাইনবাবগঞ্জে পদ্মা ও মহানন্দা নদীতে পানি বাড়ছে। যদিও জেলা পানি উন্নয়ন বোর্ডের তথ্য মতে, এই দুই নদীর পানি বিপৎসীমার নিচ দিয়ে প্রবাহিত হচ্ছে। তবে পানি বিপৎসীমার নিচ দিয়ে প্রবাহিত হলেও নদীগুলোয় পানি বৃদ্ধি পাওয়ায় নিচু এলাকা প্লাবিত হয়েছে। এতে জেলার সদর, শিবগঞ্জ ও গোমস্তাপুর উপজেলায় ৩ হাজার ৪৪০ হেক্টর জমির ফসল নিমজ্জিত হয়েছে। জেলায় মাসকলাই ২ হাজার ৫৩৩ হেক্টর, রোপা আমন ৮২৭ হেক্টর এবং ৮০ হেক্টর শাক-সবজি নিমজ্জিত হয়েছে।
জেলা কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তরের উপপরিচালক মুহাম্মদ নজরুল ইসলাম এই তথ্য নিশ্চিত করে জানিয়েছেন, সদর উপজেলায় নিমজ্জিত ফসলি জমির মধ্যে মাসকলাই ও শাক-সবজি ৬৮৫ হেক্টর, শিবগঞ্জ উপজেলায় মাসমকলাই ও শাক-সবজিসহ ১ হাজার ৬৪৮ হেক্টর, গোমস্তাপুর উপজেলায় মাসকলাই, রোপা আমন ও শাক-সবজি ১ হাজার ১০৭ হেক্টর রয়েছে। সম্ভাব্য ক্ষতি হয়েছে ৯ হাজার ১৭০ জন কৃষকের। দুই-একদিনের মধ্যে পানি কমতে শুরু করলে নিমজ্জিত ফসলের কিছু অংশ বেঁচে যেতে পারে বলে তিনি আশা প্রকাশ করেন।
তিনি আরো জানান, নিমজ্জিত এলাকাগুলো হচ্ছে- সদর উপজেলার শাজাহানপুর, দেবীনগর, সুন্দরপুর, ইসলামপুর, নারায়ণপুর, আলাতুলি ইউনিয়ন ও চাঁপাইনবাবগঞ্জ পৌরসভার নিম্নাঞ্চল, শিবগঞ্জ উপজেলা দাইপুকুরিয়া, শাহবাজপুর, মোবারকপুর, শ্যামপুর, মনাকষা, দুর্লভপুর, বিনোদপুর, ছত্রাজিতপুর, চককীর্তি, ধাইনগর, কানসাট, পাঁকা, ঘোড়াপাখিয়া, উজিরপুর, নায়ালাভাঙ্গা ইউনিয়ন ও শিবগঞ্জ পৌর এলাকার নিচু এলাকা। এছাড়া গোমস্তাপুর উপজেলার রহনপুর, রাধানগর, পার্বতীপুর, চৌডালা, আলীনগর, বাঙ্গাবাড়ী, বোয়ালিয়া ইউনিয়নের নিচু এলাকা।
এদিকে জেলা পানি উন্নয়ন বোর্ডের নির্বাহী প্রকৌশলী মেহেদী হাসান জানান, জেলার সদর উপজেলার দেবীর এলাকায় মহানন্দায় সামান্য ভাঙন দেখা দিয়েছে। অধিক বর্ষণের কারণে মহানন্দা নদীর পানি বেশি বৃদ্ধি পেয়েছে। তবে বিপৎসীমার নিচ দিয়ে প্রবাহিত হচ্ছে। দুয়েকদেিনর মধ্যে পানি কমতে শুরু করবে বলে তিনি আশা প্রকাশ করে জানান, আজ (গতকাল) বৃহস্পতিবার ২৪ ঘণ্টায় পদ্মায় ৩ সে.মিটার. মহানন্দায় ১৩ সে.মিটার ও পুনর্ভবায় ২২ সে.মিটার পানি বৃদ্ধি পেয়েছে।