চাঁপাইনবাবগঞ্জে করোনা ভাইরাস প্রতিরোধ : টিকা স্বল্পতায় বন্ধ রয়েছে বুস্টার ডোজ

25
টিকা নিয়েছেন
প্রথম ডোজ ১৩৯০০৫৮ জন
দ্বিতীয় ডোজ ১৩৬৪১৮৫ জন
বুস্টার ডোজ ৪০১৫৩৮ জন

চাঁপাইনবাবগঞ্জ জেলায় গত ৪ সেপ্টেম্বর পর্যন্ত প্রথম ডোজ করোনা ভাইরাস প্রতিরোধক টিকা নিয়েছেন ১৩ লাখ ৯০ হাজার ৫৮ জন, দ্বিতীয় ডোজ নিয়েছেন ১৩ লাখ ৬৪ হাজার ১৮৫ জন এবং বুস্টার ডোজ নিয়েছেন ৪ লাখ ১ হাজার ৫৩৮ জন। উল্লেখ্য, ২০২১ সালের ৭ ফেব্রুয়ারি চাঁপাইনবাবগঞ্জ আধুনিক সদর হাসপাতালে তৎকালীন জেলা প্রশাসক ও করোনা ভাইরাস (কোভিড-১৯) প্রতিরোধ কমিটির সভাপতি মো. মঞ্জুরুল হাফিজ টিকা গ্রহণ করে এই কর্মসূচির উদ্বোধন করেন। বর্তমানে প্রথম ও দ্বিতীয় ডোজ টিকাদন কর্মসূচি চলমান রয়েছে। তবে হঠাৎ করে সারাদেশে ভ্যাকসিন স্বল্পতার কারণে বুস্টার ডোজ সাময়িক বন্ধ রয়েছে। চাঁপাইনবাবগঞ্জের সিভিল সাজর্ন ডা. এস এম মাহমুদুর রশিদ এই তথ্য নিশ্চিত করে বলেন-শিক্ষা প্রতিষ্ঠানগুলোয় শিশুদের রেজিস্ট্রেশন কার্যক্রম চলছে।
এদিকে চাঁপাইনবাবগঞ্জে নতুন করে করোনা ভাইরাসে আক্রান্তের কোনো খবর নেই। গত ৪ সেপ্টেম্বর সিভিল সার্জন অফিসের প্রতিদিনের করোনা ভাইরাস সম্পর্কিত প্রতিবেদনে জানানো হয়, ২০২০ সালের মার্চে করোনার সংক্রমণ শুরু হওয়ার পর থেকে গত ৪ সেপ্টেম্বর পর্যন্ত চাঁপাইনবাবগঞ্জ জেলায় মোট ৪৩ হাজার ২৫১ জনের নমুনা সংগ্রহ করা হয়। এদের নমুনা পরীক্ষায় করোনার সংক্রমণ ধরা পড়ে ৬ হাজার ৮৬৪ জনের। তাদের মধ্যে সুস্থ হয়েছেন ৬ হাজার ৬৯৩ জন, নেগেটিভ ফল এসেছে ৩৬ হাজার ১২৩ জনের এবং মারা গেছেন ১৬৪ জন। মারা যাওয়াদের মধ্যে সদর উপজেলার ১০৮ জন, শিবগঞ্জে ৩৩ জন, গোমস্তাপুরে ১২, নাচোলে ৬ জন এবং ভোলাহাট উপজেলার ৫ জন রয়েছে।
ওই প্রতিবেদনে বলা হয়, বর্তমানে জেলায় করোনা রোগীর সংখ্যা ২ জন। তারা বাড়িতে থেকে চিকিৎসা নিচ্ছেন বলে ওই প্রতিবেদনে বলা হয়।