চাঁপাইনবাবগঞ্জে কমিউনিটি পুলিশিং ডে উদযাপন, পুলিশ আছে বলেই আমরা নিরাপদে ঘুমাই

8

‘কমিউনিটি পুলিশিংয়ের মূলমন্ত্র-শান্তি শৃঙ্খলা সর্বত্র’- এই স্লোগানকে সামনে রেখে চাঁপাইনবাবগঞ্জ জেলায় কমিউনিটি পুলিশিং ডে উদযাপন করা হয়েছে। দিবসটি উপলক্ষে র‌্যালি, আলোচনা ও পুরস্কার বিতরণের আয়োজন করা হয়। প্রতিনিধিদের পাঠানো সংবাদ :
নিজস্ব প্রতিনিধি : শনিবার দিবসটি উপলক্ষে জেলা পুলিশ র‌্যালি ও আলোচনা সভার আয়োজন করে। সকাল সাড়ে ৯টায় পুলিশ সুপারের কার্যালয়ের সামনে থেকে বর্ণাঢ্য র‌্যালিটি শুরু হয়ে বিভিন্ন সড়ক প্রদক্ষিণ করে। পরে নবাবগঞ্জ ক্লাব মিলনায়তনে আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়।
ভারপ্রাপ্ত পুলিশ সুপার মো. আতোয়ার রহমানের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্য দেন জেলা প্রশাসক এ কে এম গালিভ খাঁন। তিনি সংবিধানের আলোকে বক্তব্য প্রদানকালে বলেন- পুলিশসহ সকল আইন-শৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনী, ম্যাজিস্ট্রেট, জুডিসিয়াল অফিসারসহ আমরা সবাই আইনের শাসন প্রতিষ্ঠায় নিযুক্ত। সাদা বাংলায় যদি বলি- দুষ্টের দমন ও সৃষ্টের পালন। কমিউনিটি পুলিশিং নাগরিক ও সরকারের সঙ্গে সম্পর্কিত। তিনি বলেন- রাষ্ট্র এবং সমাজ চায় শান্তি প্রতিষ্ঠা থাকুক। এ জন্যই কমিউনিটি পুলিশিংয়ের অবতারণা। তিনি ডিফেন্স পার্টির রাত জেগে পাহারার কথা তুলে ধরেন।
অন্যদের মধ্যে বক্তব্য দেন- নবাবগঞ্জ সরকারি কলেজের অধ্যক্ষ প্রফেসর ড. শংকর কুমার কুন্ডু, চাঁপাইনবাবগঞ্জ পৌরসভার মেয়র ও জেলা কমিউনিটি পুলিশিংয়ের সদস্য সচিব মোখলেসুর রহমান, অতিরিক্ত পুলিশ সুপার এসএএম ফজল-ই-খুদা, বীর মুক্তিযোদ্ধা মনিম উদ দৌলা চৌধুরী, জেলা আওয়ামী লীগের সহসভাপতি ডা. গোলাম রাব্বানী, চাঁপাইনবাবগঞ্জ পৌরসভার প্যানেল মেয়র-৩ নাজনীন ফাতেমা জিনিয়া, জেলা ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক ডা. সাইফ জামান আনন্দ।
অধ্যক্ষ প্রফেসর ড. শংকর কুমার কুন্ডু বলেনÑ পুলিশ রাত জেগে টহল দেয় বলেই আমরা নিরাপদে ঘুমাতে পারি। পুলিশের অনেক পরিবর্তন হয়েছে উল্লেখ করে তিনি বলেনÑ যখনই দরকার হয়েছে তখনই পুলিশের উপস্থিতি পেয়েছি।
পৌরসভার মেয়র ও জেলা কমিউনিটি পুলিশিংয়ের সদস্য সচিব মোখলেসুর রহমান বলেন- গ্রামে ঘটে যাওয়া ছোটখাটো ঘটনার জন্য থানায় কিংবা বিজ্ঞ আদালতে না গিয়ে বিট পুলিশ বা কমিউনিটি পুলিশিংয়ের মাধ্যমে মিটিয়ে নিতে হবে।
অন্য বক্তারা বলেনÑ দেশের উন্নয়ন কর্মকা- পরিচালনার জন্য পূর্বশর্ত হচ্ছে সমাজে শান্তি-শৃঙ্খলা বজায় রাখা। পুলিশের পাশাপাশি সেই কাজটি করছে কমিউনিটি পুলিশ। মাদক ও বাল্যবিয়ে প্রতিরোধসহ শান্তি প্রতিষ্ঠায় কমিউনিটি পুলিশিং ব্যবস্থা গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখছে।
গোমস্তাপুর প্রতিনিধি : চাঁপাইনবাবগঞ্জের গোমস্তাপুরে কমিউনিটি পুলিশিং ডে উদ্যাপন করা হয়েছে। দিবসটি উপলক্ষে শোভাযাত্রা ও আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়।
শনিবার সকালে শোভাযাত্রাটি থানা চত্বর থেকে বের হয়ে ওই এলাকার প্রধান সড়ক প্রদক্ষিণ করে একই স্থানে এসে শেষ হয়। পরে থানা চত্বরে অনুষ্ঠিত আলোচনা সভায় সভাপতিত্ব করেন গোমস্তাপুর থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মাহবুবুর রহমান। গোমস্তাপুর থানার পুলিশ পরিদর্শক (তদন্ত) সেলিম রেজার সঞ্চালনায় বক্তব্য দেন- উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান হুমায়ুন রেজা, উপজেলা নির্বাহী অফিসার আসমা খাতুন, গোমস্তাপুর সার্কেলের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার শামছুল আজম, রহনপুর পৌরসভার মেয়র মতিউর রহমান খান, চৌডালা ইউনিয়ন পরিষদের (ইউপি) চেয়ারম্যান গোলাম কিবরিয়া হাবিব, বোয়ালিয়া ইউপি চেয়ারম্যান শামিউল আলম শ্যামল, রাধানগর ইউপি চেয়ারম্যান মতিউর রহমান, উপজেলা প্রেস ক্লাবের সভাপতি আতিকুল ইসলাম আজমসহ অন্যরা।
নাচোল প্রতিনিধি : চাঁপাইনবাবগঞ্জের নাচোল থানা পুলিশের উদ্যোগে কমিউনিটি পুলিশিং ডে উদ্যাপন করা হয়েছে। এ উপলক্ষে র‌্যালি, আলোচনা সভার আয়োজন করা হয়।
শনিবার সকালে নাচোল থানার অফিসার ইনচার্জ মিন্টু রহমানের নেতৃত্বে বর্ণাঢ্য র‌্যালিতে অংশ নেনÑ সাবেক এমপি ও চাঁপাইনবাবগঞ্জ জেলা আওয়ামী লীগের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি মু. জিয়াউর রহমান, উপজেলা নির্বাহী অফিসার মোহাইমেনা শারমীন, উপজেলা আওয়ামী লীগের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি আবুল হোসেন, উপজেলা পরিষদের ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান জান্নাতুন নাঈম, নাচোল সদর ইউপি চেয়ারম্যান সফিকুল ইসলাম, কসবা ইউপি চেয়ারম্যান গোলাম মেহরাব, বীর মুক্তিযোদ্ধা মোশাররফ হোসেনসহ বিশিষ্ট ব্যক্তি, সাধারণ জনগণ ও বিভিন্ন শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের শিক্ষার্থী।
বক্তারা বলেন, ‘পুলিশই জনতা, জনতাই পুলিশ’ এই প্রতিপাদ্যকে সামনে রেখে কমিউনিটি পুলিশিং এগিয়ে যাচ্ছে। সমাজে শান্তি-শৃঙ্খলা বজায় রাখতে পুলিশ বিভিন্নভাবে চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছে। সে সাথে বাংলাদেশ পুলিশকে বিভিন্নভাবে সহায়তা করছে কমিউনিটি পুলিশ।
ভোলাহাট প্রতিনিধি : চাঁপাইনবাবগঞ্জের ভোলাহাট থানা আয়োজিত কমিউনিটি পুলিশিং ডে থানা চত্বরে অনুষ্ঠিত হয়। শনিবার সকাল ১০টার দিকে অনুষ্ঠিত পুলিশিং ডে অনুষ্ঠানে অতিথি হিসেবে উপস্থিত থেকে বক্তব্য দেনÑ ভোলাহাট উপজেলা চেয়ারম্যান রাব্বুল হোসেন, উপজেলা নির্বাহী অফিসার উম্মে তাবাসসুম, উপজেলা মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান শাহানাজ খাতুন, জেলা আওয়ামী লীগের সহসভাপতি মো. আব্দুল খালেক, উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ইয়াসিন আলী শাহ, বীর মুক্তিযোদ্ধা মো. তৈমুর রহমান, ভোলাহাট সদর ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান মো. পিয়ার জাহান, উপজেলা আওয়ামী লীগের সহসভাপতি আফরাজুল হক বাবু।
স্বাগত বক্তব্য দেনÑ ভোলাহাট থানার অফিসার ইনচার্জ সেলিম রেজা চৌধুরী। সভা সঞ্চালনা করেন, পুলিশ পরিদর্শক (তদন্ত) রেজওয়ান ইসলাম মন্ডল।