চাঁপাইনবাবগঞ্জে ক’দিনের ব্যবধানে আবারো বেড়েছে চালের দাম

9

চাঁপাইনবাবগঞ্জে মাত্র কয়েকদিনের ব্যবধানে সব ধরনের চালের দাম আবারো বেড়েছে। ব্যবসায়ীরা জানিয়েছেন, ৮৪ কেজির বস্তায় ১০০ থেকে ১৫০ টাকা দাম বেড়েছে।
চাঁপাইনবাবগঞ্জ ফায়ার সার্ভিস এলাকার পাইকারি বাজারে চাল ব্যবসায়ী মো. নাসির উদ্দিন বলেন, আজ  শুক্রবার লাল স্বর্ণ ৮৪ কেজির এক বস্তা চাল বিক্রি হয়েছে ৪ হাজার ১০০ টাকা থেকে ৪ হাজার ২৫০ টাকা। অর্থাৎ প্রতি কেজি ৪৯ টাকা থেকে প্রায় ৫২ টাকা। সব চেয়ে বিক্রি হওয়া ৮৪ কেজির এক বস্তা আটাশ চাল বিক্রি হয়েছে ৪ হাজার ২০০ টাকা থেকে ৪ হাজার ৬০০ টাকা। ভালো মানের চাল প্রতি কেজি প্রায় ৫৫ টাকা। নিউমার্কেট খুচরা বাজারে প্রতি কেজি ৫৮ টাকা থেকে ৬০ টাকা। কয়দিন আগে দাম কমে ৫৫ টাকা নেমেছিল।
নিউমার্কেট মুদিবাজারের বাবু নামের এক ব্যবসায়ী জানান, স্বর্ণা চাল বিক্রি হচ্ছে ৫৫ টাকা কেজি, আটাশ প্রতি কেজি ৫৮ থেকে ৬০ টাকা, জিরাশাইল ৬৮ থেকে ৭০ টাকা। এই চালগুলো ছোট রাইস মিলের ভাঙা। অপরদিকে অটোরাইস মিলে ভাঙা চালের দাম আরো বেশি। আনোয়ার অটোরাইস মিলের ২৫ কেজি এক বস্তা চালের দাম গত সপ্তাহেই ছিল ১ হাজার ৫৮০ টাকা, যার প্রতি কেজি দাম ৬৩ টাকার উপরে।
এদিকে গত সপ্তাহের তুলনায় এই সপ্তাহে বেড়েছে কাঁচামরিচ, পটোল, ঢেঁড়শ ও বেগুনের দাম। বেড়েছে ডিমের দামও। এক হালি ডিম ৪৬ টাকা। কেজি প্রতি ৩ টাকা বেড়েছে চিনির দাম।
অন্যদিকে সোনালি মুরগির সরবরাহ কম থাকায় কেজিপ্রতি ২০-৩০ টাকা বৃদ্ধি পেয়ে বিক্রি হচ্ছে ২৮০-২৯০ টাকা, দেশী মুরগির দাম বেড়েছে ৩০ থেকে ৫০টাকা। বিক্রি হচ্ছে প্রতি কেজি ৪০০ টাকা। ব্রয়লার ১৬৫-১৭০ টাকা এবং প্যারেন্টস ২৪০-২৫০ টাকা। এ দুই প্রজাতির মুরগির দাম স্থিতিশীল রয়েছে।