চাঁপাইনবাবগঞ্জে উদ্যোক্তায় যুবসমাজ: সম্ভাবনা এবং চ্যালেঞ্জ শীর্ষক আঞ্চলিক সংলাপ অনুষ্ঠিত

29

চাঁপাইনবাবগঞ্জে উদ্যোক্তায় যুবসমাজ: সম্ভাবনা এবং চ্যালেঞ্জ শীর্ষক আঞ্চলিক সংলাপ অনুষ্ঠিত হয়েছে। সোমবার সকালে জেলা শহরের বেলেপুকুরে অবস্থিত প্রয়াস মানবিক উন্নয়ন সোসাইটির নকীব হোসেন মিলনায়তনে এই সংলাপ অনুষ্ঠিত হয়।
প্রয়াস মানবিক উন্নয়ন সোসাইটির নির্বাহী পরিচালক হাসিব হোসেনের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত সংলাপে অংশগ্রহণ করেন, চাঁপাইনবাবগঞ্জ কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তরের জেলা প্রশিক্ষণ কর্মকর্তা কৃষিবিদ ড. বিমল কুমার প্রামানিক, জেলা মহিলা বিষয়ক অধিদপ্তরের উপ-পরিচালক সাহিদা আখতার, সদর উপজেলা যুব উন্নয়ন অফিসার লুৎফর রহমান, সদর উপজেলা মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান নাসরিন আখতার, সদর উপজেলা কৃষি সম্প্রসারণ অফিসার কৃষিবিদ সালেহ্ আকরাম, প্রয়াসের সহকারী কর্মসূচি ব্যবস্থাপক (মনিটরিং) আফিফ উল মিনহাজ, প্রোগ্রাম ম্যানেজার (প্রশিক্ষণ) আব্দুস সালাম, ঢাকা সিপিআরডি সংস্থার সিনিয়র গবেষণা সহযোগী আকিব জাবেদ, ব্র্যাক বিশ্ববিদ্যালয়ের গবেষণা সহযোগী তাপস কুমার দাস, শাহ্নেয়ামতুল্লাহ কলেজের ইংরেজি বিভাগের প্রভাষক বিলকিস আরা মহুয়া, প্রয়াসের এসইপি প্রকল্পের প্রকল্প ব্যবস্থাপক কৃষিবিদ জহুরুল ইসলাম, ব্র্যাকের জেলা সমন্বয়কারী মোমেনা খাতুনসহ অন্যরা।
সংলাপে ভার্চুয়ালি অংশ নেন, ইংল্যান্ডের ল্যাংকাস্টার বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রভাষক ড. মনোজ কুমার ও গবেষণা সহযোগী ড. মোহাম্মদ এহসানুল কবির।
সংলাপের স্বাগত বক্তব্যে হাসিব হোসেন বলেন, এই গবেষণা কার্যক্রমের মধ্যদিয়ে দেশ ও আন্তর্জাতিক আঙ্গীনায় চাঁপাইনবাবগঞ্জের অবস্থান তুলে ধরতে চাই। আমি আশা করি আজকের সংলাপে অংশগ্রহণকারী সকলেই এখানকার সমস্যা, সম্ভাবনা ও চ্যালেঞ্জ সমূহ তুলে ধরবেন।
পাওয়ার পয়েন্ট প্রেজেন্টেশনের মাধ্যমে এই গবেষণা কর্যক্রমের বিস্তারিত তুলে ধরেন ঢাকা সিপিআরডি বিভাগের সিনিয়র গবেষণা সহযোগী আকিব জাবেদ।
সংলাপে জেলা মহিলা বিষয়ক অধিদপ্তরের উপ-পরিচালক সাহিদা আখতার বলেন, এই ধরনের একটা গবেষণা কর্যক্রমে অংশ নিতে পেরে সত্যি খুবই ভালো লাগছে। আশা করি এই গবেষণা কর্যক্রমের মাধ্যমে এই অঞ্চলের সমস্যা ও সম্ভাবনাগুলো উঠে আসবে।
সংলাপের সমাপনী বক্তব্যে জেলা প্রশিক্ষণ কর্মকর্তা ড. বিমল কুমার প্রামানিক বলেন, আমার বিশ্বাস আমরা শুধু চাঁপাইনবাবগঞ্জ নয়, বর্তমান বাংলাদেশের সার্বিক চিত্র তুলে ধরতে পেরেছি। যুব সমাজকে আমারা কীভাবে কাজে লাগাতে পারি সে বিষয়টি বেশ ভালোভাবেই উঠে এসেছে। তিনি আরো বলেন, যুব সমাজকে যুব শক্তিতে পরিণত করতে সরকারের নানা মূখী উদ্যোগ রয়েছে। হয়তো তথ্যের ঘাটতির কারণে হোক, কিংবা সিস্টেমের ঘাটতির কারণে হোক আমরা সেটি পুরোপুরি কাজে লাগাতে পারছি না। আজকের এই যে উদ্যোগটা নেওয়া হয়েছে। এই গবেষণার চিত্র আমরা যদি জায়গা মত পৌঁছাতে পারি তাহলে আজকে না হোক, কিছুদিন পরে হোক সরকারের কোন না কোন মহলে নিয়ে এসে অবশ্যই এটা কাজে লাগবে। অনেক সময় আমাদের এই তথ্যগুলো জায়গামত পৌঁছায় না। যার কারণে আমারা আমাদের সুফলটা পাই না। আমার বিশ্বাস আমরা এর সুফল পাব।
উল্লেখ্য, যুক্তরাজ্যের ল্যাংকাস্টার ইউনিভার্সিটির তত্ত্বাবধানে প্রয়াস মানবিক উন্নয়ন সোসাইটি চাঁপাইনবাবগঞ্জের নাচোল উপজেলার নেজামপুর ইউনিয়নে “লিভিং ডেল্টা হাব” শিরোনামে একটি গবেষণা কর্মসূচি বাস্তবায়ন করছে। এই গবেষণায় বাংলাদেশ, ভারত ও ভিয়েতনাম এই ৩টি দেশের নদীমাতৃক অঞ্চলের পরিবেশগত ও সামাজিক পরিবর্তন এবং সম্ভাব্য টেকসই উন্নয়ন বিষয়ে অনুসন্ধান করা হচ্ছে। গবেষণার বিষয়গুলোর মধ্যে রয়েছে স্থানীয় সংস্কৃতি ও ঐতিহ্যের সাথে মিল রেখে উন্নয়ন, ডেল্টা কমিউনিটির অংশিদারিত্ব বৈষম্য দূরীকরণ, পরিবেশগত ঝুঁকিপ্রবণ এলাকাগুলো শনাক্তকরণ, সাধারণ মানুষের জীবিকার পরিবর্তন বিশ্লেষণ এবং স্থানীয় যুবসমাজের উন্নয়ন। কিভাবে এই পরিবর্তনগুলো আরো টেকসই করা যায় সে বিষয়ে অন্বেষণ এই গবেষণার অন্যতম উদ্দেশ্য। বিশেষ করে স্থানীয় যুবসমাজকে উদ্যোক্তামূলক কার্যক্রমে সম্পৃক্তকরণের মাধ্যমে কিভাবে মানুষের জীবিকার উন্নয়ন করা যায়, সেবিষয়ে গভীর অনুসন্ধান করা হচ্ছে।
এই গবেষণা কার্যক্রম যৌথ ভাবে পরিচালনা করছে ব্র্যাক ইউনিভার্সিটি, সিপিআরডি, দ্বীপ উন্নয়ন সংস্থা, এমএমএস, পপি, প্রয়াস মানবিক উন্নয়ন সোসাইটি, সুশীলন, জিসিআরএফ, ইউকে রিসার্চ অ্যান্ড ইনোভেশন, লিভিং ডেলটাস এবং যুক্তরাজ্যের ল্যাংকাস্টার ইউনিভার্সিটি।