দৈনিক গৌড় বাংলা

সোমবার, ২২শে জুলাই, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ, ৭ই শ্রাবণ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ, ১৬ই মহর্‌রম, ১৪৪৬ হিজরি

নাচোলের সাবেক ইউএনও সাবিহা সুলতানা আর নেই

বাংলাদেশ অ্যাডমিনিস্ট্রেটিভ সার্ভিস অ্যাসোসিয়েশনের সদস্য বি.সি.এস. (প্রশাসন) ক্যাডারের ৩০তম ব্যাচের কর্মকর্তা ও আঞ্চলিক লোক-প্রশাসন প্রশিক্ষণ কেন্দ্র, রাজশাহীর সহকারী পরিচালক সরকারের সিনিয়র সহকারী সচিব এবং নাচোল উপজেলা প্রশাসনের সাবেক নির্বাহী অফিসার সাবিহা সুলতানা ইন্তেকাল করেছেন (ইন্না লিল্লাহি ওয়া ইন্না ইলাহি রাজিউন)।
সাবিহা সুলতানা  শনিবার সকাল সাড়ে ৮টায় ভারতের মুমবাইয়ে নানাভাতি ম্যাক্স সুপার স্পেশালিটি হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় ইন্তেকাল করেন। তিনি ক্যান্সারে আক্রান্ত হয়ে সেখানে চিকিৎসাধীন ছিলেন।
এদিকে চাঁপাইনবাবগঞ্জ জেলা প্রশাসনের পক্ষ থেকে সাবিহা সুলতানার মৃত্যুতে গভীর শোক প্রকাশ করে জেলা প্রশাসক এ কে এম গালিভ খাঁন বলেছেন, আঞ্চলিক লোক-প্রশাসন প্রশিক্ষণ কেন্দ্র, রাজশাহীর সহকারী পরিচালক (সিনিয়র সহকারী সচিব) এবং নাচোলের সাবেক উপজেলা নির্বাহী অফিসার সাবিহা সুলতানার মৃত্যুতে চাঁপাইনবাবগঞ্জ জেলা প্রশাসন গভীরভাবে মর্মাহত ও শোকাহত। সাবিহা সুলতানা ২০১৮ সালের ২৮ অক্টোবর থেকে ২০২১ সালের ১৫ সেপ্টেম্বর পর্যন্ত উপজেলা নির্বাহী অফিসার হিসেবে নাচোল উপজেলায় নিষ্ঠা ও কর্তব্যপরায়ণতার সাথে দায়িত্ব পালন করেন।
অন্যদিকে সাবিহা সুলতানার মৃত্যুতে বাংলাদেশ অ্যাডমিনিস্ট্রেটিভ সার্ভিস অ্যাসোসিয়েশনের পক্ষ থেকে গভীর শোক ও শোকাহত পরিবারের প্রতি সমবেদনা জানানো হয়েছে।
নৌপরিবহন মন্ত্রণালয়ের সিনিয়র সচিব ও বাংলাদেশ অ্যাডমিনিস্ট্রেটিভ সার্ভিস অ্যাসোসিয়েশনের সভাপতি মো. মোস্তফা কামাল এবং শিল্প মন্ত্রণালয়ের অতিরিক্ত সচিব ও সংগঠনটির মহাসচিব এস. এম. আলম স্বাক্ষরিত এক শোক বার্তায় বলা হয়েছে, “চাকরিজীবনে তিনি একজন কর্তব্যপরায়ণ, সৎ, দক্ষ, অমায়িক ও আকর্ষণীয় গুণাবলিসম্পন্ন কর্মকর্তা হিসেবে সকলের নিকট সমাদৃত ছিলেন। তার এ মৃত্যুতে দেশ ও জাতি একজন মহান ব্যক্তিকে হারাল। বাংলাদেশ সিভিল সার্ভিসে তার অবদান আমরা গভীর কৃতজ্ঞতার সাথে স্মরণ করছি। বাংলাদেশ অ্যাডমিনিস্ট্রেটিভ সার্ভিস অ্যাসোসিয়েশন শোকে মুহ্যমান এই পরিবারটির পাশে থাকবে। আমরা তার শোকসন্তপ্ত পরিবারের প্রতি গভীর সমবেদনা ও সহমর্মিতা জ্ঞাপন করছি এবং পরম করুণাময়ের কাছে তার বিদেহী আত্মার চিরশান্তি ও মাগফিরাত কামনা করছি। মহান আল্লাহ রাব্বুল আলামীন তাকে জান্নাতবাসী করুন।”
উল্লেখ্য, সাবিহা সুলতানার গ্রামের বাড়ি নওগাঁর সদর উপজেলায়। তিনি স্বামী, এক মেয়ে ও এক ছেলেসহ অসংখ্য গুণগ্রাহী রেখে গেছেন।

About The Author