চাঁপাইনবাবগঞ্জের ঝিলিমে প্রশাসনের হস্তক্ষেপে বন্ধ হলো দুই বাল্যবিয়ে

36

চাঁপাইনবাবগঞ্জ সদর উপজেলার ঝিলিম ইউনিয়নের কোল ক্ষুদ্র নৃগোষ্ঠীর মানুষদের গুচ্ছগ্রামে ২টি বাল্যবিয়ে বন্ধ করেছে প্রশাসন। গতকাল শুক্রবার দুপুরে অনুষ্ঠিত হওয়ার কথা ছিল বাল্যবিয়ে ২টি।
কনে দুটি ছিল জমজ দুই বোন। কিন্তু প্রশাসনের হস্তক্ষেপে ও বিদ্যালয়ের সহযোগিতায় বিয়ে দুটি বন্ধ হয়েছে। দুজনেরই বয়স ১৩ বছর। অন্যদিকে বর দুজনেরও বিয়ের বয়স হয়নি বলে জানা গেছে।
স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, ঝিলিম ইউনিয়নের কোল সম্প্রদায়ের মানুষদের গুচ্ছগ্রামে জমজ ২ বোনের মধ্যে এক বোন মহাডাঙ্গা উচ্চ বিদ্যালয়ে সপ্তম শ্রেণিতে পড়ে। অন্য বোন প্রাথমিক পাস করার পর আর পড়াশোনা করেনি। বাড়িতেই কাজকর্ম করত। তাদের মধ্যে পড়াশোনা করা বোনের বিয়ে ঠিক হয়েছিল চাঁপাইনবাবগঞ্জের গোমস্তাপুর উপজেলার রহনপুর নুনগোলা গ্রামের টিনু টুডুর ছেলে চিরনজিত টুডুর (১৯) সঙ্গে। অন্য বোনের বিয়ে ঠিক হয়েছিল রাজশাহীর গোদাগাড়ী উপজেলার মোহনপুর ইউনিয়নের চিকনা ডাঙ্গাপাড়া গ্রামের মধু হাসদার ছেলে ইমন হাসদার (১৮) সঙ্গে।
ঝিলিম ইউনিয়ন পরিষদ সদস্য মনিরুল ইসলাম ও মহাডাঙ্গা উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক মো. আজিজুল হকের সঙ্গে কথা বলে জানা যায়, বৃহস্পতিবার রাতেই বাল্যবিয়ের খবর পেয়ে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষা কর্মকর্তাকে বিষয়টি জানান। এরপর শিক্ষা কর্মকর্তা মহাডাঙ্গা উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষককে ঘটনাটি জানান। খবর পেয়ে প্রধান শিক্ষক একজন চৌকিদারকে সঙ্গে নিয়ে বিদ্যালয়ের নাইটগার্ডকে বিয়ে বাড়িতে পাঠিয়ে বিয়ে দুটি বন্ধ করার জন্য বলেন। এ প্রেক্ষিতে বিয়ে বন্ধ হয়। মেয়েদের প্রাপ্ত বয়স না হওয়া পর্যন্ত বিয়ে দিবেন না বলেও জানিয়েছেন অভিভাবকরা।