গোমস্তাপুরে শিশু ধর্ষণের অভিযোগে আটক এক

12

চাঁপাইনবাবগঞ্জের গোমস্তাপুরে সপ্তম শ্রেণির এক ছাত্রীকে ধর্ষণের অভিযোগ পাওয়া গেছে। এ ঘটনায় সোমবার রাতে অভিযুক্ত শাকিবকে আটক করেছে পুলিশ। তিনি উপজেলার বোয়ালিয়া ইউনিয়নের গৌরিপুর গ্রামের খায়রুল মিয়ার ছেলে।
এ ব্যাপারে ওই ছাত্রীর বাবা গোমস্তাপুর থানায় এজাহার দাখিল করেছেন। ধর্ষণের শিকার শিশুটি বর্তমানে রাজশাহী মেডিকেল কলেজ (রামেক) হাসপাতালের ওসিসিতে চিকিৎসা নিচ্ছেন।
থানার এজাহার সূত্রে জানা যায়, গত ররিবার বিকেল ৩টার পর ওই ছাত্রী প্রাইভেট পড়ার উদ্দেশ্যে বাড়ি থেকে বের হয়। ওই সময় শাকিব তাকে ডেকে বলেন, মা তোমাকে ডাকছেন। তার কথা শুনে ওই ছাত্রী তাদের বাড়িতে যায়। সেখানে এসে দেখে তার মা নেই। এমনকি বাড়িতে কেউ ছিলেন না। ওই সুযোগে মেয়েটিকে জোরপূর্বক ধর্ষণ করে সে। পরে সেখান থেকে পালিয়ে এসে স্কুলছাত্রী ঘটনাটি পরিবারের লোকজনকে জানায়। এ ঘটনার পর সোমবার সকালে ওই ছাত্রী অসুস্থ হয়ে পড়লে পরিবারের লোকজন উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে যান। সেখানে কর্তব্যরত চিকিৎসক উন্নত চিকিৎসার জন্য রাজশাহী মেডিকেল কলেজ (রামেক) হাসপাতালের ওসিসিতে পাঠিয়ে দেন।
এদিকে শাকিব বিভিন্ন সময় ওই স্কুলছাত্রীকে প্রেমের প্রস্তাব দিয়ে আসছিলেন। তার প্রস্তাবে রাজি না হওয়ায় ক্ষিপ্ত হয়ে এ ঘটনা ঘটিয়েছে বলে এজাহারে উল্লেখ করা হয়েছে।
এ বিষয়ে গোমস্তাপুর থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) আলমাস আলী সরকার জানান, ওই স্কুল ছাত্রীর বাবা সোমবার রাতে গোমস্তাপুর থানায় একটি এজাহার দাখিল করেছেন। পরে অভিযুক্ত শাকিবকে আটক করা হয়েছে।