গোমস্তাপুরে গালিগালাজের প্রতিবাদ করায় প্রতিপক্ষের হামলায় স্বামী-স্ত্রী আহত

25

চাঁপাইনবাবগঞ্জের গোমস্তাপুরে এক বিএনপি কর্মী একটি চায়ের দোকানে টেলিভিশনে খবর দেখার সময় প্রথমে পুলিশকে এবং পরে বঙ্গবন্ধু ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে কটূক্তি করার সময় প্রতিবাদ করার জেরে ৮নং ওয়ার্ড আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক ও তার স্ত্রী গুরুতর জখম হয়েছেন। গত বৃহস্পতিবার রাতে উপজেলার গোমস্তাপুর ইউনিয়নের নিমতলা মাদ্রাসা এলাকায় এ ঘটনা ঘটে। আহত ব্যক্তি ওই এলাকার বাসিন্দা আব্দুল সাত্তার (৫২) ও তার স্ত্রী সুলেখা বেগম। তারা দুজনেই রাজশাহী মেডিকেল কলেজ (রামেক) হাসপাতালে চিকিৎসা নিচ্ছেন। এ ঘটনায় পুলিশ ৪ জনকে আটক করেছে।
পরিবার ও স্থানীয়রা জানায়, বৃহস্পতিবার বিকেলে ওই এলাকার একটি চায়ের দোকানে টিভির খবর দেখছিলেন স্থানীয় লোকজন। খবর দেখার সময় জেলা ছাত্রদলের যুগ্ম আহ্বায়ক আল আমিন বিশ্বাসের বাবা বিএনপি কর্মী মজিবুর রহমান প্রথমে পুলিশকে গালি দেন। পরে বঙ্গবন্ধু ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে নিয়ে কটূক্তি করেন। ওই সময় আওয়ামী লীগের ৮নং ওয়ার্ড সাধারণ সম্পাদক আব্দুল সাত্তার প্রতিবাদ করেন এবং বাকবিতণ্ডায় জড়িয়ে পড়েন। রাতে আবারো কথাকাটারি একপর্যায়ে মজিবুর ও তার ছেলে ছাত্রদল নেতা আল আমিন বিশ্বাসসহ কয়েকজন হাঁসুয়া দিয়ে সাত্তারকে আঘাত করেন। ওই সময় তার স্ত্রী সুলেখা স্বামীকে রক্ষা করতে এসে হাঁসুয়ার আঘাতে জখম হন। পরে এলাকার বাসিন্দারা আহত স্বামী-স্ত্রীকে উদ্ধার করে গোমস্তাপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে যান। সেখানে কর্তব্যরত চিকিৎসক উন্নত চিকিৎসার জন্য রাজশাহী মেডিকেল কলেজ (রামেক) হাসপাতালে পাঠিয়ে দেন।
এদিকে মজিবুর, তার ছেলে আল আমিনসহ পরিবারের সদস্যরা ঘটনার পর পলাতক থাকায় তাদের বক্তব্য পাওয়া যায়নি।
এ বিষয়ে গোমস্তাপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আলমাস আলী সরকার বলেন, এ ঘটনায় আহত সাত্তারের মেয়ে গোমস্তাপুর থানায় মামলা করেছে। আটক রয়েছে ৪ জন। মজিবুর রহমান ও তার ছেলে আল আমিন বিশ্বাসকে গ্রেপ্তারের চেষ্টা চলছে বলে ওসি জানান।
এদিকে খবর পেয়ে রাতেই জেলা আওয়ামী লীগের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি ও সাবেক সংসদ সদস্য জিয়াউর রহমান, উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও গোমস্তাপুর ইউনিয়ন পরিষদের (ইউপি) চেয়ারম্যান জামালউদ্দিন, চৌডালা ইউপি চেয়ারম্যান গোলাম কিবরিয়া হাবিব, বোয়ালিয়া ইউপি চেয়ারম্যান শামিউল আলম শ্যামল, রহনপুর পৌরসভার সাবেক কাউন্সিলর জাহিদ হাসান মুক্তা, উপজেলা যুবলীগের সাধারণ সম্পাদক সেরাজুল ইসলাম টাইগার তার খোঁজ নিতে ছুটে যান হাসপাতালে।