দৈনিক গৌড় বাংলা

শনিবার, ২০শে জুলাই, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ, ৫ই শ্রাবণ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ, ১৪ই মহর্‌রম, ১৪৪৬ হিজরি

গুগলের কাছে যে ৪ প্রশ্ন জানতে চাইলেই বিপদ

গুগল এখন পৃথিবীর কোটি কোটি মানুষের জীবনের অংশ হয়ে গেছে। কোনো কিছুর জানতে হলেই মানুষ গুগলে খোঁজেন। এর ফলে গুগল হচ্ছে পৃথিবীর সবচেয়ে জনপ্রিয় সার্চ ইঞ্জিন। এই ওয়েবসাইটে সেকেন্ডে ৪০ হাজার বিষয়ে সার্চ করা হয়। ইন্টারনেট ব্যবহারকারীদের প্রত্যেকেই ইচ্ছা বা অনিচ্ছায় হোক জীবনে অন্তত একবার হলেও গুগলে প্রবেশ করেছেন। কেননা এ মুহূর্তে পৃথিবীর সবচেয়ে বড় সার্চ ইঞ্জিন গুগল। প্রযুক্তি-দুনিয়ার অন্যতম জনপ্রিয় সার্চ ইঞ্জিনটিতে এহেন কোনো বিষয় নেই, যেটি জানতে ঢু দেন না ব্যবহারকারীরা। যদিও গুগলে এমন কিছু বিষয় আছে যা সার্চ করলেই পড়তে পারেন বিপদে। গুনতে হতে পারে বড় জরিমানা। ম্যালওয়্যার: গুগল ম্যালওয়্যার জাতীয় কোনও কিছুতেই অনুমতি দেয় না, যেমন ভাইরাস এবং ট্রোজান হর্স। এই দুটি নাম গুগলে ভুলেও খুঁজবেন না। আপনি যদি ম্যালওয়্যার ডাউনলোড করেন বা অন্য কোথাও এর ফাইল শেয়ার করেন, তাহলে আপনাকে ব্যান করা হতে পারে। এমনকি জরিমানাও হতে পারে। কারণ এটি একপ্রকার অপরাধ। স্প্যাম জাতীয় বিষয়বস্তু: গুগল স্প্যাম জাতীয় বিষয়বস্তুর অনুমতি দেয় না, যেমন- আনসলিসিটেড ই-মেইল বা কমেন্ট৷ আপনি কাউকে স্প্যাম মেইল পাঠালে আপনাকে ব্যান করা হতে পারে।
প্রতারণার ষড়যন্ত্র: গুগলে কোনো প্রকার জালিয়াতির অনুমতি দেয় না, যেমন-ফিশিং এবং জাল রিভিউ। আপনি যদি এই ধরনের প্রতারণার সঙ্গে জড়িত থাকেন, তবে আজই সাবধান হোন।
নীতি লঙ্ঘন: যে বিষয়গুলো গুগলের নীতির আওতায় পড়ে, যেমন অশ্লীল ভাষা, বর্ণবাদী মন্তব্য, কারও ব্যক্তিগত তথ্য শেয়ার করা। এসব করলে জরিমানা হবে। এমনকি গুগল থেকে আপনাকে ব্যানও করে দেওয়া হতে পারে। তাই গুগল ব্যবহারের সময় সতর্ক থাকুন।

About The Author