‘গাড়িবোমা বিস্ফোরণে’ মারা গেছেন দারিয়া দুগিন

4

রাশিয়ার প্রেসিডেন্ট ভøাদিমির পুতিনের ঘনিষ্ঠ বন্ধুর মেয়ে মস্কোর কাছের একটি জায়গায় নিহত হয়েছেন। দেশটির গণমাধ্যমের প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, বাড়ি যাওয়ার পথে ‘গাড়িবোমা বিস্ফোরণে’ মারা গেছেন দারিয়া দুগিন। দারিয়া দুগিনের বাবা রুশ দার্শনিক আলেকজান্ডার দুগিন। যিনি কি না ‘পুতিনের মস্তিষ্ক’ হিসেবে পরিচিত। তবে এই আক্রমণে তিনি লক্ষ্যবস্তু ছিলেন কি না, তা স্পষ্ট নয়। দেশটির গণমাধ্যমের প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, স্থানীয় সময় শনিবার সন্ধ্যায় একই গাড়িতে একটি অনুষ্ঠান থেকে বাড়িতে ফেরার কথা ছিল দুগিন ও তার মেয়ের। কিন্তু গাড়িতে ওঠার ঠিক আগমুহূর্তে তারা আলাদাভাবে যাওয়ার সিদ্ধান্ত নেন।আইন শৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর একজন কর্মকর্তা তাস নিউজ এজেন্সিকে বলেছেন, মহাসড়কে একটি গাড়িতে আগুন ধরে একজন নারী নিহত হয়েছেন। তবে এ ব্যাপারে বিস্তারিত কিছু জানাননি তিনি। ক্রেমলিনের তরফ থেকেও এ ব্যাপারে কোনো মন্তব্য করা হয়নি। বিবিসি জানিয়েছে, দুগিন কট্টরভাবে জাতীয়তাবাদী মতাদর্শে বিশ্বাসী। রাশিয়ার প্রেসিডেন্ট ভøাদিমির পুতিনের অত্যন্ত ঘনিষ্ঠ হিসেবেও তাকে বিবেচনা করা হয়। দুগিনের মেয়ে দারিয়াও একজন সাংবাদিক। যিনি ইউক্রেনে রাশিয়ার হামলাকে সমর্থন করতেন। এ বছরের শুরুর দিকে দারিয়া দুগিনের বিরুদ্ধে নিষেধাজ্ঞা দেয় যুক্তরাজ্য। ইউক্রেনে রুশ হামলার বিষয়ে অনলাইনে ‘বিভ্রান্তি’ ছড়ানোর অভিযোগ তোলা হয়েছিল তার বিরুদ্ধে। গত মে মাসে, তিনি একটি সাক্ষাৎকারে যুদ্ধকে ‘সভ্যতার সংঘর্ষ’ হিসেবে বর্ণনা করেছিলেন।