খারকিভে রাশিয়ার আক্রমণ, নিহত অন্তত ১৫

3

খারকিভে রাশিয়া আরো প্রবল আক্রমণ শুরু করেছে। খারকিভের গভর্নর জানিয়েছেন, সেখানে লাগাতার গোলাবর্ষণ করছে রাশিয়ার সেনা। গত মঙ্গলবার তারই জেরে অন্তত ১৫ জন নিহত হয়েছেন বলে গভর্নরের দাবি।ইউক্রেনের প্রেসিডেন্ট ভলোদিমির জেলেনস্কি খারকিভের ঘটনাকে নির্মম হত্যা বলে ব্যাখ্যা করেছেন।তিনি জানিয়েছেন, এই ঘটনা যুদ্ধাপরাধ। রাশিয়াকে এই কাজের জন্য শাস্তি দেয়া উচিত। জেলেনস্কির দাবি, রাশিয়ার বিরুদ্ধে আরো কড়া নিষেধাজ্ঞা জারি করুক পশ্চিমা দেশগুলো।উল্লেখ্য, এখনো পর্যন্ত ইউরোপীয় ইউনিয়ন রাশিয়ার বিরুদ্ধে ছয়টি নিষেধাজ্ঞার প্যাকেজ ঘোষণা করেছে। সপ্তম প্যাকেজটি নিয়েও আলোচনা শুরু হয়েছে।লুহানস্কের লড়াইখারকিভের পাশাপাশি লুহানস্কেও তীব্র লড়াই চলছে। সেখানকার গভর্নর জানিয়েছেন, সেভেরোদোনেস্কের একটি অংশ রাশিয়া দখল করে নিলেও এখনো অ্যাজট রাসায়নিক কারখানা ঘিরে রেখেছে ইউক্রেনের সেনা। সেখানে প্রবল লড়াই চলছে। কারখানার ভেতর আটকে আছেন অন্তত তিন শ’ বেসামরিক মানুষ।এদিকে, সেভেরোদোনেস্কের কাছে আরো একটি গ্রাম দখল করেছে রাশিয়ার সেনা। গ্রামটির নাম তোশকিভকা।
রাশিয়ায় বন্দি : ইউক্রেনের ডেপুটি প্রধানমন্ত্রী জানিয়েছেন, রাশিয়া ইউক্রেনের অন্তত এক হাজার পাঁচ শ’ বেসামরিক ব্যক্তিকে বন্দি করে রেখেছে। রাশিয়ার একাধিক কারাগারে তাদের আটকে রাখা হয়েছে। দ্রুত তাদের ছেড়ে দেয়ার আবেদন জানিয়েছেন তিনি।এদিকে, রাশিয়ার মদতপুষ্ট বিচ্ছিন্নতাবাদী নেতারা জানিয়েছেন, আগামী কয়েক মাসের মধ্যেই খারকিভের এলাকাগুলোতে গণভোট নেয়া হবে। গণভোটের মাধ্যমেই রাশিয়ার অন্তর্ভুক্ত হবে ওই এলাকাগুলো। যদিও ইউক্রেন এখনো পর্যন্ত এ বিষয়ে কোনো মন্তব্য করেনি।