ক্রীড়া নৈপুণ্যের জেলা হবে চাঁপাইনবাবগঞ্জ, চেক বিতরণ অনুষ্ঠানে জেলা প্রশাসক

11

বঙ্গবন্ধু ক্রীড়াসেবী কল্যাণ ফাউন্ডেশন হতে প্রাপ্ত ৪ লাখ ৮ হাজার টাকা চাঁপাইনবাবগঞ্জের ১৭ জন অসচ্ছল ক্রীড়াবিদ ও ক্রীড়া সংগঠকের মধ্যে বিতরণ করা হয়েছে। তাদের প্রত্যেককে ২৪ হাজার টাকা করে প্রদান করা হয়। এছাড়া করোনাকালীন ক্ষতিগ্রস্ত ৮০ জন খেলোয়াড় ও ক্রীড়া সংশ্লিষ্ট ব্যক্তিকে ৫ হাজার টাকা করে ৪ লাখ টাকা প্রদান করা হয়। চেকের মাধ্যমে টাকাগুলো প্রদান করা হয়।
মঙ্গলবার সকাল সাড়ে ৯টায় জেলা প্রশাসকের সম্মেলন কক্ষে এইসব চেক বিতরণের আয়োজন করে জেলা ক্রীড়া অফিস। অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (রাজস্ব) আহমেদ মাহবুব-উল-ইসলামের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত চেক বিতরণ অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্য দেন জেলা প্রশাসক এ কে এম গালিভ খাঁন।
এসময় তিনি বলেন- মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা সকল ক্লাস্টারের মানুষের জন্য চিন্তা করেন, করোনাকালীন ব্যবসায়ীসহ যারা ক্ষতিগ্রস্ত তাদের জন্য তার হাত প্রসারিত ছিল। আপনারা জানেন এ জেলায় ৫ হাজার ৪৮৯ জন ভূমিহীন গৃহহীন মানুষের প্রত্যেককে ২ শতক জমিসহ গৃহ নির্মাণ করে দিয়েছেন। তাদের স্বাস্থ্য, শিক্ষা, পরিবেশ, বিদ্যুৎসহ আর্থ-সামাজিকভাবে বেঁচে থাকার জন্য সুযোগ করে দিয়েছেন।
জেলা প্রশাসক বলেন- যারা ভুয়া ক্ষুদ্র ঋণ দেয় এবং সঞ্চয় সংগ্রহ করে তাদের ব্যাপারে আপনারা সাবধান থাকবেন। তাদের বিরুদ্ধে আমরা কার্যক্রম শুরু করেছি। তিনি বলেন- যেসব কৃষক ক্ষুদ্র ঋণ নিতে চান তারা ব্যাংকের মাধ্যমে নিতে পারবেন। আমরা ব্যবস্থা করে দেব।
জেলা প্রশাসক বলেন- খেলাধুলা মাদক থেকে যুবসমাজকে দূরে রাখে, তাই খেলাধুলার বিকল্প নেই, যে কোনো মূল্যে খেলাধুলা চালু রাখতে হবে। জেলা ক্রীড়া সংস্থার কমিটি নিয়ে যে বিষয়গুলো রয়েছে তা অচিরেই সমাধান হয়ে যাবে বলে আশা করি। ক্রীড়া নৈপুণ্যের জেলা হিসেবে এ জেলাকে আবার জাগিয়ে তোলার প্রত্যয় ব্যক্ত করেন জেলা প্রশাসক এ কে এম গালিভ খাঁন।
অনুষ্ঠানে নেজারত ডেপুটি কালেক্টর মো. তৌফিক আজিজ, সহকারী কমিশনার মিঠুন মৈত্র, সহকারী কমিশনার মো. জুবায়ের জাহাঙ্গীর, জেলা ক্রীড়া অফিসের প্রধান সহকারী জহরুল হক জনি উপস্থিত ছিলেন। অনুষ্ঠান সঞ্চালনা করেন সাবেক ফুটবলার মোস্তাফিজুর রহমান মুকুল।