কে হচ্ছেন এবারের ব্যালন ডি’অর জয়ী?

3

আনুষ্ঠানিক ঘোষণা আসার আগ পর্যন্ত ¯্রফে এই প্রশ্নটুকুই আছে। এর বাইরে এবারের ব্যালন ডি’অরে সবচেয়ে ফেভারিট যে করিম বেনজেমা, তা নিয়ে বলতে গেলে কোনো প্রশ্ন নেই! গত মৌসুমটা দুর্দান্ত কাটানো এই ফরাসি ফরোয়ার্ডের হাতে বর্ষসেরা ফুটবলারের পুরস্কার দেখছেন অনেকে। উত্তর মিলে যাবে সোমবার। প্যারিসের অনুষ্ঠানে ঘোষণা করা হবে এবারের ব্যালন ডি’অর জয়ীর নাম।

বেনজেমা পেলে ফরাসিদের দীর্ঘদিনের অপেক্ষার পালা ফুরাবে। সেই ১৯৯৮ সালে জিনেদিন জিদান এই মুকুট জয়ের পর আর কোনো ফরাসি এর স্বাদ পাননি। পুরস্কারটির লড়াইয়ে মনোনয়ন পেয়েছেন ৩০ জন, তবে বেনজেমার হাতেই পুরস্কারটি ওঠার সম্ভাবনা সবচেয়ে বেশি। গত মৌসুমে তিনি ব্যক্তিগতভাবে আলো ছড়িয়েছেন রিয়াল মাদ্রিদের আক্রমণভাগে, দলকে এনে দিয়েছেন চ্যাম্পিয়ন্স লিগ ও লা লিগার শিরোপা। ২০২১-২২ মৌসুমে ৪৬ ম্যাচে ৪৪ বার গোলের আনন্দে ডানা মেলেন বেনজেমা; এর মধ্যে চ্যাম্পিয়ন্স লিগে ১৫ বার। চ্যাম্পিয়ন্স লিগে উপহার দেন দুটি হ্যাটট্রিক। শেষ ষোলোয় পিএসজির বিপক্ষে ১৭ মিনিটের মধ্যে তিন গোল করে ম্যাচের মোড় ঘুরিয়ে দেন তিনি। শুরুতে পিছিয়ে পড়া কার্লো আনচেলত্তির দলও ম্যাচ জিতে নেয় ৩-১ ব্যবধানে। কোয়ার্টার-ফাইনালেও পিএসজির জয়ের নায়ক তিনি।

স্ট্যামফোর্ড ব্রিজের প্রথম লেগে বেনজেমার হ্যাটট্রিকে সওয়ার হয়ে ৩-১ গোলে চেলসিকে হারায় রিয়াল। ফিরতি লেগেও চেলসির জালে করেছিলেন এক গোল। রিয়ালের সেমি-ফাইনালের বৈতরণী পার হতেও গোলের সৌরভ ছড়িয়েছিলেন বেনজেমা। দুই লেগ মিলিয়ে ম্যানচেস্টার সিটির জালে করেছিলেন তিন গোল। ইতিহাদ স্টেডিয়ামের প্রথম লেগে দুটি, সান্তিয়াগো বের্নাবেউয়ের ফিরতি লেগে একটি গোল করেন বেনজেমা। এমন আলো ঝলমলে পারফরম্যান্সের সুবাদে গত অগাস্টে উয়েফার সেরা খেলোয়াড়ের স্বীকৃতি পান বেনজেমা।

ক্যারিয়ারে সোনালি সময়ের মধ্যে থাকা এই ৩৪ বছর বয়সী ফরোয়ার্ডের সামনে এবার কাতার বিশ্বকাপের চ্যালেঞ্জ। সেক্সটেপ কা-ে সতীর্থকে ব্ল্যাকমেইল করার অভিযোগে ফ্রান্স দল থেকে সাড়ে পাঁচ বছর বাইরে ছিলেন তিনি। অনেক টানাপোড়েনের পর দুঃসম্পর্কের বরফ গলেছে, বেনজেমাও ফিরেছেন দিদিয়ে দেশমের বিশ্বকাপ দলে। গত বছর জাতীয় দলে ফেরার পর থেকে দেশের জার্সি গায়েও দারুণ পারফরম্যান্স উপহার দিয়েছেন তিনি। উয়েফা নেশন্স লিগ শিরোপা জয়ে রেখেছেন ভূমিকার। সেই ছন্দ বেনজেমা বিশ্বকাপে টেনে নিতে পারবেন কিনা, সে উত্তরও সময়ের হাতে তোলা থাকছে।