দৈনিক গৌড় বাংলা

সোমবার, ২৭শে মে, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ, ১৩ই জ্যৈষ্ঠ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ, ১৯শে জিলকদ, ১৪৪৫ হিজরি

কারিনাকে হাইকোর্টের নোটিশ

বলিউড নায়িকা কারিনা কাপুর তিন বছর আগে মাতৃত্বকালীন অভিজ্ঞতা নিয়ে বই লিখেছিলেন। তার ভক্তরাও এ বই নিয়ে যথেষ্ট উৎসাহ প্রকাশ করেছেন। এবার সেই বইয়ের জন্যই আইনি নোটিশ পেলেন এ নায়িকা। এনডিটিভির প্রতিবেদন অনুযায়ী,কারিনার লেখা বইটির নাম ‘কারিনা কাপুর খান’স প্রেগন্যান্সি বাইবেল: দ্য আলটিমেট ম্যানুয়াল ফর মমস টু বি’। বইয়ের শিরোনামে ‘বাইবেল’ শব্দটির ব্যবহারে আপত্তি জানিয়েছেন বাদী। তার অভিযোগের ভিত্তিতেই ভারতের মধ্যপ্রদেশ হাইকোর্ট সম্প্রতি কারিনাকে আইনি নোটিশ পাঠিয়েছেন। বিচারপতি গুরপাল সিং অহলুওয়ালিয়ার সিঙ্গেল বেঞ্চ কারিনা এবং তার বইটির প্রকাশকের বিরুদ্ধে এ নোটিশ পাঠিয়েছে। কেন বইটির শিরোনামে ‘বাইবেল’ শব্দটি ব্যবহার করা হয়েছে, আদালত দুপক্ষের কাছে তার নেপথ্য কারণ জানতে চেয়েছেন। জানা গেছে, আইনজীবী ক্রিস্টোফার অ্যান্থনির দাখিল করা পিটিশনের ভিত্তিতেই কারিনার বিরুদ্ধে মামলা হয়েছে। তার জেরেই বিচারক গুরপাল সিং আলুওয়ালিয়ার বেঞ্চ এ নোটিশ জারি করেছেন। আরও জানা গেছে, কারিনা কাপুরের পাশাপাশি বুক সেলারের বিরুদ্ধেও নোটিশ পাঠানো হয়েছে। আদালতের পক্ষে জারি করা নোটিশে অভিনেত্রীকে জিজ্ঞেস করা হয়েছে, কেন বইয়ের নামে বাইবেল শব্দটি ব্যবহার করা হয়েছে? মামলা দায়েরকারী ক্রিস্টোফার অ্যান্থনি কারিনার বইটি নিষিদ্ধ করার দাবিও তুলেছেন। জব্বলপুরের সমাজকর্মী অ্যান্থনির অভিযোগ, বাইবেল শব্দটি ব্যবহার করার জেরে খ্রিস্টান ধর্মাবলম্বী মানুষদের ভাবাবেগে আঘাত লেগেছে। ওই পবিত্র শব্দ ব্যবহার করে সস্তা প্রচার পেতে চেয়েছেন কারিনা কাপুর খান। ২০২১ সালে, কারিনা কাপুর করণ জোহরের সঙ্গে তার বই ‘প্রেগন্যান্সি বাইবেল’ লঞ্চ করেছিলেন। সেই ‘প্রেগন্যান্সি বাইবেল’ বইটি নিয়ে এখন বিতর্কের জন্ম দিয়েছে।

 

About The Author

This will close in 0 seconds