কানসাট-চৌডালা সড়কে জুয়েল নিহতের ঘটনায় ঢাকার আশুলিয়া থেকে দুজন গ্রেপ্তার

48

চাঁপাইনবাবঞ্জের শিবগঞ্জ উপজেলার কানসাট-চৌডালা সড়কে দুষ্কৃতিকারীদের ছুরিকাঘাতে জুয়েল রানা (৩৫) নামে এক পেয়ারা ব্যবসায়ী নিহতের ঘটনায় ২ জনকে গ্রেপ্তার করেছে গোয়েন্দা পুলিশ (ডিবি)। গত রবিবার ঢাকার আশুলিয়া এলাকা থেকে তাদেরকে গ্রেপ্তার করা হয়।
গ্রেপ্তারকৃতরা হলেন, চাঁপাইনবাবগঞ্জের শিবগঞ্জ উপজেলার পলাশবাড়ি এলাকার মৃত গিয়াস উদ্দিনের ছেলে মো. লালচান (৩১) ও একই উপজেলার চাকলা ডুবলিপাড়ার আব্দুস সামাদের ছেলে মো. রুবেল (২৬)। তাদের কাছ থেকে মোবাইল ফোন ও ছুরি উদ্ধার করা হয়েছে।
এই তথ্য নিশ্চিত করে গোমস্তাপুর থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) আলমাস আলী সরকার ও অভিযানে থাকা ডিবি পুলিশের এসআই মো. আসগার আলী জানান, তথ্যপ্রযুক্তির সহায়তায় ডিবির একটি দল আশুলিয়ায় অভিযান চালায়। সেখানকার পুলিশের সহযোগিতায় মো. লালচান ও মো. রুবেলকে গ্রেপ্তার করে চাঁপাইনবাবগঞ্জে আনা হয়। পরে তাদের দেয়া স্বীকারোক্তি মোতাবেক এক আসামির বোনের বাড়ি জেলার নাচোল উপজেলার বহিপাড়া চন্দনা থেকে ভিকটিমের খোয়া যাওয়া মোবাইল ফোন, ছুরি উদ্ধার করা হয়। আজ  সোমবার তাদেরকে আদালতে সোপর্দ করা হয়।
উল্লেখ্য, গত ৫ অক্টোবর ভোরে জুয়েল রানা ও সাদ্দাম হোসেন নামে দুজন নাচোল উপজেলায় পেয়ারা বাগান দেখতে যাবার পথে কানসাট-চৌডালা সড়কে গোমস্তাপুর উপজেলার বেলালবাজার এলাকার কুইচ্চাগাড়া নামক স্থানে দুষ্কৃতিকারীরা তাদের ওপর হামলা চালায়। তাদের ছুরিকাঘাতে জুয়েল রানা নিহত হন এবং সাদ্দাম হোসেন আহত হন। এরপর থেকে পুলিশ অভিযান শুরু করে।