কাতার বিশ্বকাপ ‘শেষ’ পগবার

9

বিশ্বকাপের বছর বলেই শুরুতে চোট সারাতে অস্ত্রোপচারের বিপক্ষে ছিলেন পগ পগবা। তবে শেষ পর্যন্ত অস্ত্রোপচার করাতেই হচ্ছে। এতে বছরের শেষের দিকে হতে যাওয়া কাতার বিশ্বকাপে তার খেলার সম্ভাবনা নেই বলেই মনে করছেন ইউভেন্তুস কোচ মাস্সিমিলিয়ানো আলেগ্রি। তার মতে, পুরোপুরি সুস্থ হয়ে আগামী জানুয়ারির আগে এই ফরাসি মিডফিল্ডার মাঠে ফিরতে পারবেন না। ম্যানচেস্টার ইউনাইটেডের সঙ্গে চুক্তি শেষের পর গ্রীষ্মের দলবদলে ইউভেন্তুসে যোগ দেন পগবা। বিপত্তির শুরু দলটির হয়ে তার যুক্তরাষ্ট্রের প্রাক-মৌসুম সফরে। অনুশীলনের সময় হাঁটুতে চোট পান তিনি। এরপর থেকেই আছেন মাঠের বাইরে।

দীর্ঘ মেয়াদে ঝুঁকি এড়াতে শুরু থেকেই পগবার অস্ত্রোপচার করানোর পক্ষে ছিল ইউভেন্তুস। তবে বিশ্বকাপকে সামনে রেখে ভিন্ন উপায়ে সেরে ওঠার পরিকল্পনা ছিল পগবার। শেষ পর্যন্ত নিয়তির কাছেই হার মানতে হল পগবাকে। ফলে প্রায় শেষ হয়ে গেল ফ্রান্সের হয়ে তার বিশ্বকাপে খেলার সম্ভাবনা। চ্যাম্পিয়ন্স লিগের গ্রুপ পর্বে মঙ্গলবার পিএসজির বিপক্ষে লড়বে ইউভেন্তুস। আগের দিন সংবাদ সম্মেলনে আল্লেগ্রি কোনো রাখঢাক না রেখেই জানিয়ে দিলেন, এই বছর আর মাঠে দেখা যাবে না পগবাকে। “গত সোমবার সকালে সে দ্বিতীয়বার অনুশীলন করল, কিন্তু এরপর থেমে গেল। তারপরই সিদ্ধান্ত নেওয়া হল যে তার অস্ত্রোপচার করা হবে।

বাস্তবিক চিন্তা করলে, আমরা তাকে জানুয়ারিতে পাওয়ার আশা করছি।” “বিশ্বকাপ আমার চিন্তার বিষয় নয়, ইউভেন্তুসের সমস্যা হলো যে সে জানুয়ারিতে ফিরবে।” ফ্রান্সের ২০১৮ বিশ্বকাপজয়ী দলের গুরুত্বপূর্ণ সদস্য ছিলেন পগবা। ক্রোয়েশিয়ার বিপক্ষে ৪-২ গোলে জেতা ফাইনালে জালের দেখা পেয়েছিলেন তিনি। ফ্রান্সের হয়ে এখন পর্যন্ত ৯১ ম্যাচ খেলেছেন পগবা, গোল করেছেন ১১টি। বিশ্বকাপে ‘ডি’ গ্রুপে ফ্রান্সের তিন প্রতিপক্ষ অস্ট্রেলিয়া, ডেনমার্ক ও তিউনিসিয়া। আগামী ২৩ নভেম্বর অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে ম্যাচ দিয়ে বিশ্বকাপ ধরে রাখার অভিযান শুরু করবে দিদিয়ের দেশমের দল।