করোনায় জাবি অধ্যাপক নজিবুর রহমানের মৃত্যু : গোমস্তাপুরে দাফন সম্পন্ন

21

করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ের (জাবি) প্রাণরসায়ন ও অনুপ্রাণ বিজ্ঞান বিভাগের অধ্যাপক চাঁপাইনবাবগঞ্জের গোমস্তাপুর উপজেলার কৃতী সন্তান ড. নজিবুর রহমান মারা গেছেন। সোমবার ভোরে রাজধানীর বারডেম হাসপাতালে তিনি শেষ নিঃশ্বাস ত্যাগ করেন (ইন্না লিল্লাহি ওয়া ইন্না ইলাহি রাজিউন)।
মৃত্যুকালে তার বয়স হয়েছিল ৫২ বছর। অধ্যাপক নজিবুর রহমান স্ত্রী, এক মেয়ে, এক ছেলে রেখে গেছেন।
বিশ্ববিদ্যালয়ের জনসংযোগ দপ্তর থেকে পাঠানো এক বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, অধ্যাপক নজিবুর রহমান করোনা পজিটিভ হয়ে ঢাকার বারডেম হাসপাতালে চিকিৎসা নিচ্ছিলেন। চিকিৎসাধীন অবস্থায় গতকাল সোমবার ভোরে তিনি মৃত্যুবরণ করেন।
সোমবার সকালে বিশ্ববিদ্যালয়ের কেন্দ্রীয় মসজিদে জানাজা শেষে মরদেহ তার গ্রামের বাড়ি চাঁপাইনবাবগঞ্জের গোমস্তাপুর উপজেলায় নেয়া হয়। বিকেল সাড়ে ৫টায় নিজ এলাকা চাঁপাইনবাবগঞ্জের গোমস্তাপুর উপজেলার রহনপুর এবি সরকারি উচ্চ বিদ্যালয় মাঠে ২য় নামাজে জানাজা অনুষ্ঠিত হয়।
জানাজায় উপস্থিত ছিলেন- সাবেক সংসদ সদস্য মু. জিয়াাউর রহমান ও গোলাম মোস্তফা বিশ্বাস, রহনপুর পৌর মেয়র মতিউর রহমান খান, সাবেক পৌর মেয়র তারিক আহমদ, হাজী সমিতির সাধারণ সম্পাদক আব্দুল জাব্বার, রহনপুর পি.এম. আইডিয়াল কলেজের অধ্যক্ষ ইমতিয়াজ মাসরুর, রহনপুর মুক্ত মহাদলের সভাপতি সারফুদ্দিন আহমেদসহ এলাকার গণমান্য ব্যক্তিবর্গ।
পরে তাকে গোমস্তাপুর ইউনিয়নের ফুলবাড়িয়া গ্রামের পারিবারিক গোরস্থানে দাফন করা হয়।
এদিকে, তার মৃত্যুতে বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক ড. ফারজানা ইসলাম গভীর শোক ও দুঃখ প্রকাশ করেছেন। এক শোক বার্তায় উপাচার্য বলেন, অধ্যাপক ড. মু. নজিবুর রহমানের অকাল প্রয়াণে দেশ এবং বিশ্ববিদ্যালয়ের অপূরণীয় ক্ষতি হলো। খাদ্য ও পুষ্টিবিষয়ক গবেষণায় তার অবদান স্মরণীয় হয়ে থাকবে।