করিম বেনজেমার জানা-অজানা

3

করিম বেনজেমা দুর্দান্ত ফর্মে রয়েছেন। ৩৪ বছর বয়সী ফুটবলার তার ক্লাব ক্যারিয়ারের অন্যতম সেরা মৌসুম কাটাচ্ছেন। চলতি মৌসুমে সব মিলিয়ে ৪৩ ম্যাচ খেলে ৪৩ গোল, তার মধ্যে ২৬টি লা লিগায় ও ১৫টি চ্যাম্পিয়নস লিগে। এমনকি ইউরোপ সেরার প্রতিযোগিতায় নকআউটে করেছেন দুটি হ্যাটট্রিক, পিএসজি ও চেলসির বিপক্ষে। দলকে ১৭তম ফাইনালে তোলায় রেখেছেন বড় অবদান। ক্যারিয়ারের নতুন উচ্চতায় যখন বেনজেমা, তখন তার ১০টি অজানা বিষয় নিয়ে কথা বলা যাক-

আলজেরিয়ার জার্সিতে খেলতে পারতেন
১৯৮৭ সালের ১৯ ডিসেম্বর বেনজেমা জন্মগ্রহণ করেন আলজেরিয়ান পিতামাতা হাফিদ বেনজেমা ও ওয়াহিদা দেব্বারার ঘরে। জন্ম নেন ফ্রান্সের লিওঁ শহরে। আলজেরিয়ান বংশোদ্ভুত হওয়ায় জিনেদিন জিদানের মতো আফ্রিকান দেশটির জাতীয় দলের হয়ে খেলার সুযোগ থাকলেও সিদ্ধান্ত নেন ফ্রান্স জাতীয় দলের হয়ে খেলার।

এল ক্লাসিকো ইতিহাসে দ্রুততম গোল
২০২১ সালের ১০ ডিসেম্বর করিম বেনজেমা এল ক্লাসিকোর ইতিহাসে দ্রুততম গোল করেন। কিক অফের ২১ সেকেন্ড যেতেই জাল কাঁপান তিনি। দুর্ভাগ্যবশত সান্তিয়াগো বার্নাব্যুতে অনুষ্ঠিত ম্যাচটি ৩-১ গোলে হেরে যায় রিয়াল মাদ্রিদ।

তার জীবন নিয়ে চলচ্চিত্র
ফ্লোরেন্ত বোদিন ও ড্যামিয়েন পিসকারেলের পরিচালনায় ২০১৭ সালে বেনজেমার জীবন নিয়ে মুক্তি পায় লু কে বেনজেমা নামের চলচ্চিত্র।

লিওঁর বল বয়
লিওঁর যুব দলে শুরু। বেনজেমা লিগ ওয়ান দলটির অ্যাকাডেমিতে যুক্ত হন ৮ বছর বয়সে এবং খেলেন তাদের অনূর্ধ্ব-১০ দলের হয়ে। লিওঁর যুব দলে থাকলেও এই ফরাসি ফরোয়ার্ড ক্লাবের বেশ কয়েকটি সিনিয়রদের ম্যাচে বল বয় হিসেবে কাজ করেছেন। পরে তার ক্যারিয়ারে লিওঁর সঙ্গে ফ্রান্সে সব ট্রফিই জিতেছেন, চারটি লিগ টাইটেলও আছে।

বেনজেমার দুই ভাইও ফুটবলে
লিওঁতে বড় হয়েছেন বেনজেমা। সাত ভাইবোন তার, পাঁচ বোন ও দুই ভাই (গ্রেসি ও সাবরি)।
এই পরিবারের তিন ভাইয়ের প্রত্যেকে ফুটবলারের পথ বেছে নিয়েছেন। কিন্তু কেবল করিম বেনজেমা পেশাদারভাবে এটি বড় করে নিয়েছেন। গ্রেসি তার ক্যারিয়ারের শুরুর দিকে খেলতেন ফ্রান্সের নিম্ন বিভাগগুলোতে। কিন্তু একাধিক ইনজুরিতে ২০১২ সালে অবসর নেন। সাবরি ফুটবল খেললেও পেশা হিসেবে নেননি, তবে তিনিও বুট তুলে রেখেছেন।

গিনেজ বিশ্ব রেকর্ডে তার নাম
২০২১ সালে চলতি চ্যাম্পিয়নস লিগে শেরিফ টিরাস্পোলের বিপক্ষে নিজের প্রথম গোল করে লিওনেল মেসির সঙ্গে গিনেজ বিশ্ব রেকর্ডে নাম লিখেন বেনজেমা। দুজনেই রেকর্ড টানা ১৭ মৌসুম ধরে গোল করেছেন, সেই ২০০৫-০৬ মৌসুম থেকে।

ফ্রান্সের অনূর্ধ্ব-১৭ চ্যাম্পিয়ন দলের সদস্য
২০০৪ সালে অনূর্ধ্ব-১৭ ইউরোপিয়ান চ্যাম্পিয়নশিপে ফ্রান্সের জয়ে গুরুত্বপূর্ণ অংশ ছিলেন বেনজেমা। ফাইনালে ২-১ গোলে স্পেনকে হারায় লু ব্লুস। সামির নাসরি ও হাতেম বেন আরফার মতো খেলোয়াড়রাও ছিলেন ওই দলে।

সব প্রতিযোগিতা মিলিয়ে সর্বোচ্চ গোল করা ফরাসি খেলোয়াড়
এই মৌসুমে বেশ কয়েকটি রেকর্ড ভেঙেছেন বেনজেমা। এর মধ্যে উল্লেখযোগ্য একটি হচ্ছে ফরাসি লিজেন্ড থিয়েরি অঁরির ক্যারিয়ার গোলকে পেছনে ফেলা। ক্লাব ও দেশের হয়ে বেনজেমার বর্তমান গোল ৪১৪টি। অঁরির চেয়ে তিনটি বেশি।

চ্যাম্পিয়নস লিগে হ্যাটট্রিক করা সবচেয়ে বয়স্ক খেলোয়াড়
৩৪ বছর ও ১০৮ দিন বয়সী বেনজেমা চ্যাম্পিয়নস লিগের সবচেয়ে বয়স্ক খেলোয়াড় হিসেবে হ্যাটট্রিক করেছেন। চলতি মৌসুমে চেলসির বিপক্ষে কোয়ার্টার ফাইনালের প্রথম লেগে ৩-১ গোলের জয়ে এই কীর্তি গড়েন তিনি। তারই জাতীয় দলের সতীর্থ অলিভিয়ের জিরুদের (৩৪ বছর ও ৮২ দিন) রেকর্ড ভেঙে দেন বেনজেমা।

রিয়ালের বিদেশি খেলোয়াড় হিসেবে সবচেয়ে বেশি ম্যাচ
এখন পর্যন্ত সব প্রতিযোগিতা মিলিয়ে রিয়ালের হয়ে ৬০২ ম্যাচ খেলেছেন বেনজেমা। স্প্যানিশ জায়ান্টদের হয়ে কোনো বিদেশি খেলোয়াড়ের সর্বোচ্চ উপস্থিতি। বেনজেমার পর আছেন ব্রাজিলিয়ান ডিফেন্ডার মার্সেলো, তার ম্যাচ সংখ্যা ৫৪৫টি।