কমনওয়েলথ গেমসে বাংলাদেশের পতাকা বাহক মাবিয়া

6

আগামী ২৮ জুলাই থেকে ৮ আগস্ট পর্যন্ত ইংল্যান্ডের বার্মিংহামে হবে ২২তম কমনওয়েলথ গেমস। প্রতিযোগিতা শুরুর দিন অ্যালেক্সান্ডার স্টেডিয়ামে হবে এবারের আসরের উদ্বোধনী অনুষ্ঠান। গেমসের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে বাংলাদেশের পতাকা বহন করবেন ভারত্তোলক মাবিয়া আক্তার সীমান্ত। এবারের আসরে বাংলাদেশ অংশ নিবে সাতটি ইভেন্টে;অ্যাথলেটিকস, বক্সিং, জিমন্যাস্টিকস,সাঁতার, ভারোত্তোলন, কুস্তি ও টেবিল টেনিস। তবে শুটিং ও আর্চারি অংশ না নেওয়ায় বাংলাদেশের পদক জয়ের সম্ভাবনা কিছুটা কমে এসেছে। ৩০ জন খেলোয়াড়, ১৪ জন কোচিং স্টাফ ও ছয় জন কর্মকর্তাসহ সবমিলিয়ে ৫০ জনের একটি দল কমনওয়েলথ গেমসে বাংলাদেশের প্রতিনিধিত্ব করবে। আগামী ২০ জুলাই থেকে পর্যায়ক্রমে বার্মিংহামের উদ্দেশ্যে রওনা হবেন খেলোয়াড়রা। প্রতিযোগিতা শেষ করে ৫ আগস্ট থেকে দেশে ফেরা শুরু করবেন তাঁরা। কমনওয়েলথ গেমসের পরদিন ( ৯ আগস্ট) থেকেই তুরস্কের কনিয়া শহরে শুরু হবে ইসলামিক সলিডারিটি গেমসের পঞ্চম আসর। এ প্রতিযোগিতায় ১১টি ইভেন্টে অংশ নিবে বাংলাদেশ।

গেমসের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে বাংলাদেশের পতাকা বহন করবেন ফেন্সার ফাতেমা মুজিব। এই গেমসে সবমিলিয়ে ৮৪ জন বাংলাদেশের প্রতিনিধিত্ব করবে। বাংলাদেশ অলিম্পিক এসোসিয়েশনে গতকাল রোববার দুপুরে এই দু’টি গেমস উপলক্ষে এক সংবাদ সম্মেলন আয়োজন করে। অলিম্পিকের মহাসচিব সৈয়দ শাহেদ রেজা বলেন,’শুটিং ও আরচারি কমনওয়েলথে নেই। এই দুই ইভেন্ট না থাকায় আমাদের পদকের সম্ভাবনা কিছুটা কমে গেল। তবে জিমন্যাস্টিকস ও অ্যাথলেটিকসে আমরা ভালো করার প্রত্যাশা করছি। ‘অবশ্য ইসলামিক সলিডারিটি গেমসে পদকের আশা করছেন শাহেদ রেজা,’ইসলামিকে যেহেতু আরচারি ইভেন্ট আছে ফলে সেখান থেকে আমরা সোনা জয়ের আশা করি। এ ছাড়া বাকি সব ইভেন্টেও সফলতার প্রত্যাশা থাকবে। ‘