দৈনিক গৌড় বাংলা

মঙ্গলবার, ২৮শে মে, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ, ১৪ই জ্যৈষ্ঠ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ, ২০শে জিলকদ, ১৪৪৫ হিজরি

ওজন বাড়িয়ে আলোচনায় নাঈম

চরিত্রের প্রয়োজনে শরীরকে ভাঙা-গড়ার প্রচলন ঢাকাই শোবিজে খুব একটা দেখা যায় না। সে দিক দিয়ে নতুন নজির তৈরি করলেন অভিনেতা এফএস নাঈম। পুরোদস্তুর ফিট শরীরকে তিনি নিয়ে গেছেন মেদযুক্ত স্থূলতায়! কেবল একটি চরিত্রের জন্য। মিরাজ নামের সেই পুলিশ কর্মকর্তার চরিত্র থাকছে মুক্তি প্রতীক্ষিত ওয়েব সিরিজ ‘কালপুরুষ’-এ। যেটার টিজার প্রকাশ হয়েছে ১১ মে, সন্ধ্যায়। সেখানেই দেখা যায়, নাঈমের শরীরে বিস্তর পরিসরে জায়গা করে নিয়েছে মেদ। অথচ তিনিই কিনা ক’বছর আগে হাড়ভাঙা পরিশ্রম করে নিজেকে স্লিমফিট করেছিলেন। সেই শ্রম-স্মৃতি ভুলে কেবল চরিত্রের প্রয়োজনে পুনরায় স্থূলতায় ফিরলেন নাঈম। বিষয়টি নিয়ে নাঈম বললেন, ‘আসলে চরিত্রটা ধারন করার জন্যই এমনটা করা।

অর্থাৎ মিরাজ চরিত্রটা যেভাবে হাঁটে, কথা বলে, ঘুমায়, এসবের কাছাকাছি পৌঁছানোর জন্যই প্রায় ৩৫ কেজি ওজন বাড়িয়েছিলাম। আর এটাকে শুধু বডি ট্রান্সফরমেশন বললে হবে না; এটা অনেক বড় একটা মনস্তাত্ত্বিক জার্নি ছিল। সেই সাথে প্রায় ৮-৯ মাস এই এক্সট্রা বডি ওয়েট রাখার একটা ডিপ্রেশন ছিল। তারপর শুটিং করা। সবমিলিয়ে জার্নিটা আমার জন্য একটা সাধনা ছিল।’ নাঈমের সাধনা বিফলে যায়নি মোটেও। দর্শক-সমালোচকরা এরইমধ্যে তার প্রশংসায় মেতে উঠেছে। কেউ কেউ তো তাকে বাংলার ‘আমির খান’ বলেও অভিহিত করছেন। ‘কালপুরুষ’ নির্মাণ করেছেন সালজার রহমান। এর আগে তিনি বেশ কিছু মিউজিক ভিডিও, বিজ্ঞাপনচিত্র বানিয়েছেন। তবে ওটিটিতে কাজ এই প্রথম। সিরিজটি তার ভাষ্য, ‘সিরিজটি মার্ডার মিস্ট্রি হলেও একদম ভিন্ন রকমের উপস্থাপনা দেখা যাবে। একটা হত্যা রহস্য সমাধান করতে গিয়ে নানা কিছু ঘটতে থাকে মিরাজের (নাঈম) সঙ্গে। সেই ঘটনাগুলো ধরে এগোতে থাকে সিরিজের গল্প।’ প্রকাশিত টিজারে বিশেষ চমক হিসেবে হাজির হয়েছেন চঞ্চল চৌধুরী। এ ছাড়া এতে আছেন তানজিকা আমিন, জয়ন্ত চট্টোপাধ্যায়, ইমতিয়াজ বর্ষণ, রেজওয়ান পারভেজসহ অনেকে। উল্লেখ্য, প্রযোজনা প্রতিষ্ঠান ফিল্ম সিন্ডিকেট কিছু দিন আগে ঘোষণা দিয়েছে, তারা আগামী তিন বছরে ১০টি সিরিজ বানাবে ওটিটি প্ল্যাটফর্ম চরকি’র জন্য। সেই প্রকল্পের প্রথম সিরিজ হিসেবে ‘কালপুরুষ’ মুক্তি পাচ্ছে শিগগিরই।

About The Author

This will close in 0 seconds