এসএসসি ও সমমানের পরীক্ষা শুরু : জেলায় মোট পরীক্ষার্থী ২০৫০৩ প্রথম দিনে অনুপস্থিত ১৪১

6

সারাদেশের মতো চাঁপাইনবাবগঞ্জ জেলায় রবিবার অনুষ্ঠিত হয়েছে এসএসসি ও সমমান পরীক্ষা। প্রথম দিনের পরীক্ষায় ১৪১ জন শিক্ষার্থী অনুপস্থিত ছিলেন। এর মধ্যে এসএসসিতে ৩০ জন ও দাখিলে ৭৯ জন এবং দাখিল (ভোকেশনাল) ও এসএসসি ভোকেশনালে ৩২ জন শিক্ষার্থী অনুপস্থিত ছিলেন।
এবার জেলার ৫ উপজেলা থেকে এসএসসি ও সমমানের পরীক্ষায় পরীক্ষার্থী ছিলেন ২০ হাজার ৫০৩ জন। এর মধ্যে এসএসসিতে ১৫ হাজার ৩৮২ জন ও দাখিলে ৩ হাজার ৬০০ জন। এছাড়া দাখিল (ভোকেশনাল) ও এসএসসি ভোকেশনালে ১ হাজার ৫২১ জন।
আমাদের নাচোল প্রতিনিধি জানিয়েছেন, নাচোল উপজেলায় এসএসসি ও সমমানের পরীক্ষার প্রথম দিনে ২৯ জন পরীক্ষার্থী অনুপস্থিত ছিলেন।
উপজেলায় এসএসসি পরীক্ষার্থী ১৫৮৮ জন, দাখিল ২৯৩ জন এবং এসএসসি ভোকেশনাল ১৩০ জন। ৬টি কেন্দ্রে পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হচ্ছে।
পরীক্ষার প্রথম দিনে মুন্সী হযরত আলী উচ্চ বিদ্যালয় কেন্দ্রে ১৭৭ জন পরীক্ষার্থীর মধ্যে ৩ জন অনুপস্থিত, পাইলট উচ্চ বিদ্যালয় কেন্দ্রে ২৭৪ জনের মধ্যে ৫ জন অনুপস্থিত, খুরশেদ মোল্লা সরকারি উচ্চ বালিকা বিদ্যালয় কেন্দ্রে ১১৫ জনের মধ্যে ১ জন, নেজামপুর উচ্চবিদ্যালয় কেন্দ্রে ১৬৮ জন উপস্থিত, বেগম মহসিন ফাজিল মাদরাসা কেন্দ্রে দাখিল পরীক্ষার্থী ২৭৮ জনের মধ্যে ১৮ জন অনুপস্থিত এবং মাক্তাপুর উচ্চ বিদ্যালয় কেন্দ্রে ভোকেশনাল এসএসসিতে ১১৭ জনের মধ্যে ২ জন অনুপস্থিত ছিলেন।
উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষা অফিসার আ.ফ.ম. হাসান বলেন, প্রথম দিনের পরীক্ষা সুষ্ঠু পরিবেশে সম্পন্ন হয়েছে। তবে ২৯ জন পরীক্ষার্থী অনুপস্থিতির বিষয়ে সংশ্লিষ্ট শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান প্রধানকে যথাযথ কারণ দর্শানোর জন্য অবহিত করা হবে।
গোমস্তাপুর প্রতিনিধি জানান, চাঁপাইনবাবগঞ্জের গোমস্তাপুরে এসএসসি ও সমমান পরীক্ষার প্রথম দিনে ৩৭ জন অনুপস্থিত রয়েছে। এসএসসিতে ৬ জন, দাখিল ২০ জন ও ভেকেশনাল পরীক্ষায় ১১ জন অনুপস্থিত ছিল। এর মধ্যে ছাত্র ৩ ও ছাত্রী ৩৪ জন রয়েছেন।
উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষা অফিসের বরাত দিয়ে আমাদের প্রতিনিধি জানান, চলতি বছর উপজেলার বিভিন্ন প্রতিষ্ঠান থেকে মোট ১ হাজার ৮৭৬ জন পরীক্ষার্থীর মধ্যে এসএসসিতে ১ হাজার ২৯ জন, দাখিলে ৬০০ জন ও এসএসসি ভোকেশনালে ২৪৭ জন পরীক্ষার্থী অংশগ্রহণে ইচ্ছুক ছিল।
গতকাল রবিবার পরীক্ষার প্রথম দিনে এসএসসিতে ৬০৭ জন ছাত্র ও ৪১৬ জন ছাত্রী অংশগ্রহণ করে। এর মধ্যে অনুপস্থিত ৬ জনের মধ্যে একজন ছাত্র ও ৫ জন ছাত্রী রয়েছে। দাখিল পরীক্ষায় ২৮৫ জন ছাত্র ও ২৯৫ জন ছাত্রী পরীক্ষায় অংশগ্রহণ করে। অনুপস্থিত ২০ জনের মধ্যে ২ জন ছাত্র ও ১৮ জন ছাত্রী রয়েছেন। এছাড়া এসএসসি ভোকেশনাল শাখায় ১৩০ জন ছাত্র ও ১০৬ জন ছাত্রী পরীক্ষায় অংশগ্রহণ করে। এর মধ্যে অনুপস্থিত ১১ জনই ছাত্রী রয়েছে।
গোমস্তাপুর উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষা কর্মকর্তা ফেরদৌসী বেগম জানান, সুষ্ঠু ও শান্তিপূর্ণভাবে পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হয়। ৬টি কেন্দ্রে ১ হাজার ৮৩৯ জন পরীক্ষার্থী প্রথম দিনের পরীক্ষায় অংশ নেয়। কেন্দ্রেগুলোতে কোনো পরীক্ষার্থী বহিষ্কার হননি। তবে ৩৭ জন পরীক্ষার্থী অনুপস্থিত ছিলেন বলে তিনি জানান ।
আমাদের ভোলাহাট প্রতিনিধি জানান, উপজেলার তিনটি পরীক্ষা কেন্দ্রে এসএসসি ও সমমান পরীক্ষায় মোট ৭৬৩ জন পরীক্ষার্থী অংশগ্রহণ করেছেন। অনুপস্থিত রয়েছেন ৭ জন।
উপজেলার রামেশ^র পাইলট উচ্চ বিদ্যালয় কেন্দ্রে পদার্থ বিজ্ঞানে সাধারণ ও ভোকেশনালে পরীক্ষায় অংশগ্রহণ করেন মোট ৪০৯ জন পরীক্ষার্থী। এর মধ্যে ছাত্র ২৬০জন ও ছাত্রী ১৪৮ জন। ১ জন অনুপস্থিত।
নেকজান বালিকা উচ্চ বিদ্যালয় কেন্দ্রে মোট পরীক্ষার্থী ১৩৫ জন। এর মধ্যে ছাত্র ৭১ জন ও ছাত্রী ৬৪ জন। গোহালবাড়ী ফাজিল মাদরাসায় পদার্থ বিজ্ঞান, কুরআন মজিদ ও তাজভিদ পরীক্ষায় মোট ২২০ জন অংশগ্রহণ করেন। এর মধ্যে ছাত্র ১২১ জন ও ছাত্রী ৯৯ জন। অনুপস্থিত ৬ জন।
পরীক্ষা কেন্দ্র ঘুরে পরীক্ষার্থীদের উৎসবমুখর পরিবেশে পরীক্ষা দিয়ে বের হতে দেখা গেছে।
উল্লেখ্য, প্রতি বছর ফেব্রুয়ারি মাসের প্রথম সপ্তাহে এসএসসি ও সমমানের পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হয়। কিন্তু বৈশ্বিক মহামারি করোনার কারণে গতবছর এসএসসি ও সমমানের পরীক্ষা নেয়া হয়নি। দীর্ঘ দেড় বছর শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান বন্ধ থাকায় চলতি বছরেরও যথাসময়ে এসএসসি ও সমমানের পরীক্ষা নেয়া সম্ভব হয়নি। বর্তমানে দেশে করোনার আক্রান্তের হার সহনীয় মাত্রায় এলে পুনর্বিন্যাস করা সংক্ষিপ্ত সিলেবাসে এসএসসি ও সমমানের পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হচ্ছে। বিশেষ তিনটি বিষয়ের ওপর পরীক্ষা নেয়া এবং পরীক্ষা দেড় ঘণ্টায় অনুষ্ঠিত হচ্ছে।