দৈনিক গৌড় বাংলা

মঙ্গলবার, ২৫শে জুন, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ, ১১ই আষাঢ়, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ, ১৯শে জিলহজ, ১৪৪৫ হিজরি

এমবাপের ‘স্বপ্ন পূরণ’

শৈশব থেকে রেয়াল মাদ্রিদের হয়ে খেলার স্বপ্ন হৃদয়ে লালন করার কথা বহুবারই বলেছেন কিলিয়ান এমবাপে। দীর্ঘ অপেক্ষা শেষে, সব জল্পনা-কল্পনার ইতি টেনে এখন তিনি ইউরোপের সফলতম ক্লাবটির খেলোয়াড়। স্বপ্ন পূরণ হওয়ায় যেন আনন্দের অন্ত নেই ফ্রান্সের বিশ্বকাপ জয়ী তারকা এই ফরোয়ার্ডের। এমবাপের সঙ্গে পাঁচ বছরের চুক্তি করার ঘোষণা সোমবার আনুষ্ঠানিকভাবে দিয়েছে রেয়াল। স্বদেশের ক্লাব পিএসজির সঙ্গে চুক্তির মেয়াদ শেষে ফ্রি ট্রান্সফারে সান্তিয়াগো বের্নাবেউয়ে পাড়ি জমিয়েছেন তিনি। এখনই অবশ্য বের্নাবেউয়ে যাচ্ছেন না এমবাপে। ইউরোপিয়ান চ্যাম্পিয়নশিপ সামনে রেখে বর্তমানে জাতীয় দলের সঙ্গে আছেন তিনি। এই অভিযান শেষে নতুন ক্লাবে, নতুন সতীর্থদের সঙ্গে যোগ দেবেন ২৫ বছর বয়সী এই ফুটবলার। গণমাধ্যমের খবর, প্রতি মৌসুমের জন্য ১ কোটি ৫০ লাখ ইউরো পাবেন এমবাপে। সঙ্গে সাইনিং-বোনাস হিসেবে পাঁচ বছর ধরে ১৫ কোটি দেওয়া হবে তাকে। শুধু তাই নয়, একটি অংশ পাবেন তিনি ইমেজ রাইটস থেকে। রেয়ালের সঙ্গে চুক্তি করার পর নিজের আবেগ ধরে রাখতে পারেননি এমবাপে। রেয়ালের লোগো লাগানো জ্যাকেট পরা ছোটবেলার কয়েকটি ছবি সামাজিক মাধ্যম ইনস্টাগ্রামে পোস্ট করেছেন তিনি। সঙ্গে সেখানে তুলে ধরেছেন নিজের অনুভূতি। “স্বপ্ন সত্যি হয়েছে। আমার স্বপ্নের ক্লাবে যোগ দিতে পেরে খুবই খুশি ও গর্বিত। কেউ বুঝতে পারছে না, এখন আমি কতটা রোমাঞ্চিত। মাদ্রিদিস্তাসদের (রেয়ালের সমর্থকগোষ্ঠী) দেখার জন্য তর সইছে না। অবিশ্বাস্য সমর্থনের জন্য ধন্যবাদ। আলা মাদ্রিদ!” এমবাপের ওই পোস্টে আছে রেয়াল গ্রেট ক্রিস্তিয়ানো রোনালদোর সঙ্গে তোলা একটি ছবিও। পর্তুগিজ এই ফরোয়ার্ডকে নিজের আদর্শ মানেন ফরাসি তারকা। এমবাপের পোস্টে রোনালদো লেখেন, “আমার দেখার পালা। বের্নাবেউয়ে তোমার জ¦লে ওঠা দেখতে মুখিয়ে আছি।” দুই বছর আগেও রেয়ালে যোগ দেওয়ার খুব কাছাকাছি ছিলেন ফরাসি তারকা। শেষ মুহূর্তে যদিও মন বদলে পিএসজির সঙ্গে ২০২৪ সালের জুন পর্যন্ত চুক্তি করেন তিনি। এবারও তাকে ধরে রাখতে জোর চেষ্টা চালায় প্যারিসের ক্লাবটি; কিন্তু এবার আর তার মত বদলাতে পারেনি ফরাসি চ্যাম্পিয়নরা। ক্লাব ফুটবলে ঘরোয়া প্রতিযোগিতার সব ট্রফি অসংখ্যবার জিতেছেন এমবাপে। মোনাকায় একবার লিগ আঁ জিতে পাড়ি জমান পিএসজিতে। দলটির হয়ে সাত বছরের ক্যারিয়ারে ছয়বার লিগসহ পেয়েছেন স্বাদ পান আরও অনেক শিরোপার। ব্যক্তিগত পারফরম্যান্সেও তিনি আলো ছড়াচ্ছে প্রতিনিয়ত, ধারাবাহিকভাবে। এবার দিয়ে টানা পাঁচবার পেয়েছেন ফ্রান্সের শীর্ষ লিগের মৌসুম সেরা খেলোয়াড়ের পুরস্কার। ক্লাবটির ইতিহাসে এখন রেকর্ড গোলদাতাও তিনি। এবার রেয়ালের হয়ে আলো ছড়ানোর পালা তার।

About The Author