এমবাপেকে ধরে রাখতে সব চেষ্টাই করবে পিএসজি

5

সময় যত গড়াচ্ছে, পিএসজির সঙ্গে কিলিয়ান এমবাপের চুক্তির মেয়াদ শেষের দিনটা তত ঘনিয়ে আসছে। ফরাসি ফরোয়ার্ডকে নিয়ে গুঞ্জনও প্রতিনিয়ত রং বদলাচ্ছে। নিজেদের অবস্থান অবশ্য আগের মতোই ধরে রেখেছে প্যারিসের দলটি। ক্লাবের ক্রীড়া পরিচালক লিওনার্দো আবারও বললেন, বিশ্বকাপ জয়ী তারকাকে ধরে রাখতে সব চেষ্টাই তারা করবেন। এমবাপেকে ধরে রাখার সম্ভাবনাও তারা দেখছেন বলে জানালেন লিওনার্দো। নতুন করে আশা জাগার নির্দিষ্ট কোনো কারণ অবশ্য স্পষ্ট করেননি তিনি। দীর্ঘ দিন ধরে ফুটবল বিশ্বের সবচেয়ে আলোচিত বিষয়গুলোর একটি এমবাপের দলবদলের গুঞ্জন।

তার সম্ভাব্য গন্তব্য নিয়ে সবচেয়ে বেশি শোনা গেছে রিয়াল মাদ্রিদের নাম। মাদ্রিদের দলটির প্রতি নিজের অনুরাগের কথাও নানা সময়ে প্রকাশ্য করেছেন তিনি। গত মৌসুমের শেষভাগে তো অনেকে ধরেই নিয়েছিল, এবারই সান্তিয়াগো বের্নাবেউয়ে নোঙর ফেলবেন এমবাপে। সেসময় রিয়ালও উঠেপড়ে লেগেছিল তাকে দলে টানতে। পিএসজির সঙ্গে তখন চুক্তির এক বছর বাকি থাকা এই তারকাকে পেতে স্পেনের ক্লাবটি রেকর্ড ট্রান্সফার ফি দিতেও প্রস্তুত ছিল। কিন্তু কোনোভাবে তাকে ছাড়তে রাজি হয়নি পিএসজি। দুই পক্ষের এমন টানাটানির মাঝেই গত মাসে মুখোমুখি হয় রিয়াল ও পিএসজি। চ্যাম্পিয়ন্স লিগের শেষ ষোলোর প্রথম লেগে এমবাপের গোলেই জয়োল্লাস করে লিগ ওয়ানের দলটি।

ম্যাচ শেষে এমবাপে বলেন, প্যারিসে তিনি ভালো আছেন, সুখে আছেন। ভবিষ্যৎ নিয়ে এখনও চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত নেননি। আগামী জুনে পিএসজির সঙ্গে এমবাপের চুক্তি শেষ হবে। তবে গত ১ জানুয়ারি থেকেই নতুন কোনো দলের সঙ্গে চুক্তি সেরে ফেলতে বাধা নেই তার। কদিন আগে খবর বের হয়, এমবাপেকে সপ্তাহে ১০ লাখ ইউরোর নতুন প্রস্তাব দিয়েছে পিএসজি। ফরাসি সংবাদমাধ্যম লেকিপেতে বৃহস্পতিবার প্রকাশিত সাক্ষাৎকারে লিওনার্দো জানান, এমন কোনো প্রস্তাব তারা দেননি। এমবাপের সঙ্গে চুক্তির ক্ষেত্রে অর্থের বিষয়টা মুখ্য নয় বলেও মনে করেন তিনি। “এটা সত্যি নয়। আমরা কোনো নির্দিষ্ট প্রস্তাব পাঠাইনি। একটি গুরুত্বপূর্ণ বিষয় হলো: আমি মনে করি, এই চুক্তিতে শেষ যে জিনিসটি আমরা রাখব, তা হলো অর্থ।

আমরা তাকে সেরা খেলোয়াড় হিসেবে গড়ে তুলতে সেরা অবস্থায় রাখতে চাই।” “অর্থের বিষয়ে আমরা খুব কমই কথা বলেছি। কারণ, এটা অর্থের বিষয় নয়। কিলিয়ানের মূল্য এত বড় যে, আমি মনে করি এটা (অর্থ) গৌণ। আমি মনে করি, অর্থের পরিমাণ দিতে দুই মিনিট সময় লাগবে।” সময়ের সেরা খেলোয়াড়দের একজন এমবাপেকে যথেষ্ট মূল্য দেওয়ার কারণও তুলে ধরলেন লিওনার্দো। একই সঙ্গে প্রতিশ্রুতি দিলেন তাকে ধরে রাখতে নিজেদের সর্বোচ্চটা দেওয়ার। “কিলিয়ান আজ বিশ্বের সেরা খেলোয়াড়।

(লিওনেল) মেসি সব সময় এই স্তরে ছিলেন এবং আমি মনে করি, এখনও তিনি এই স্তরে আছেন। তবে নতুন খেলোয়াড়দেরও সেই পর্যায়ে ওঠা স্বাভাবিক। কে সেরা, তা বিচার করার বিষয় নয় এটা। একজনের বয়স ২৩, অন্যজনের ৩৪।” “আমি বলতে পারি না সামনে কী হবে, তবে আমাদের (এমবাপেকে ধরে রাখার) সম্ভাবনা আছে। যতক্ষণ পর্যন্ত কোনো চুক্তি না হয়, আমরা সব কিছু চেষ্টা করব, আমরা তাকে ধরে রাখার জন্য যথাসাধ্য চেষ্টা করব। আমি মনে করি না রিয়াল মাদ্রিদের বিপক্ষে ম্যাচের ফলাফল দেখে সিদ্ধান্ত হবে।” চ্যাম্পিয়ন্স লিগের কোয়ার্টার-ফাইনালে ওঠার লড়াইয়ের ফিরতি লেগে আগামী ৯ মার্চ রিয়াল মাদ্রিদের মাঠে খেলবে পিএসজি।