এবার সিপিএলে একসঙ্গে পোলার্ড-রাসেল-নারাইন

7

বিশ্বজুড়ে ফ্রাঞ্চাইঞ্জি লিগগুলোর কাক্সিক্ষত মুখ কাইরন পোলার্ড, আন্দ্রে রাসেল ও সুনিল নারাইন। তাদেরকে দলে পেতে টানাটানি লেগে যায় দলগুলির। ক্যারিবিয়ান ক্রিকেটের এই তিন মহাতারকাকে এবার ক্যারিবিয়ান ক্রিকেট লিগে (সিপিএল) একসঙ্গেই পাচ্ছে ত্রিনবাগো নাইট রাইডার্সে। পোলার্ড ও নারাইন আগে থেকেই ছিলেন ত্রিনবাগোতে। এই দুজনকে ধরে রাখার পাশাপাশি এবার তারা যোগ করেছে রাসেলকে। তারা ধরে রেখেছে আরেক তারকা নিকোলাস পুরানকেও। সঙ্গে বাঁহাতি স্পিনার আকিল হোসেন ও তরুণ প্রতিভাবান পেসার জেডেন সিলসকে নিয়ে ত্রিনবাগো হয়ে উঠেছে তারকায় ভরা দল। এবারের সিপিএল শুরু হবে ৩০ অগাস্ট, ফাইনাল ৩০ সেপ্টেম্বর। গতবারের দল থেকে ধরে রাখা ও ড্রাফটের আগেই চুক্তি করা ক্রিকেটারদের তালিকা প্রকাশ করেছে দলগুলি। রাসেল এর আগে ছিলেন জ্যামাইকা তালাওয়াহসে।

ফ্র্যাঞ্চাইজিটির সঙ্গে তার সম্পর্কের বেশ অবনতি হয় এক পর্যায়ে। ২০২০ সালে এপ্রিলে তিনি বলেন, তার খেলা সবচেয়ে উদ্ভট দল এটি এবং ওই মৌসুমই হবে দলটিতে তার শেষ। তবে পরে ২০২১ মৌসুমেও রাসেলকে ধরে রাখে তারা। ব্যাটে-বলে বেশ ¤্রয়িমান পারফরম্যান্স ছিল ওই আসরে রাসেলের। ১০ ইনিংসে রান করেছিলেন ¯্রফে ১৬০, উইকেট নিয়েছিলেন ১১টি। এবার শেষ পর্যন্ত তিনি বের হলেন ওই দল থেকে। নারাইন এর আগে সিপিএলে আলাদা করে পোলার্ড ও রাসেলের সঙ্গে খেললেও পোলার্ড ও রাসেল এক দলে খেলবেন প্রথমবার। তারা তিনজনই এখন ব্যস্ত আইপিএলে। তারকা সমৃদ্ধ ত্রিনবাগো এবার অবশ্য হারিয়েছে ড্যারেন ব্রাভোকে।

অভিজ্ঞ ব্যাটসম্যান যোগ দিয়েছেন সেন্ট কিটস অ্যান্ড নেভিস প্যাট্রিয়টসে। সেখানে আগে থেকেই আছেন তার ভাই তারকা অলরাউন্ডার ডোয়াইন ব্রাভো। দুই ভাই আগেও একসঙ্গে খেলেছেন ত্রিনবাগোতে। সেন্ট কিটস অ্যান্ড নেভিসে আছেন এভিন লুইস, আন্দ্রে ফ্লেচার, শেরফেন রাদারফোর্ড ও শেলডন কটরেলও। রাসেলকে হারিয়ে জ্যামাইকা দলে এনেছে অলরাউন্ডার ফ্যাবিয়ান অ্যালেন ও ব্র্যান্ডন কিংকে। ধরে রেখেছে তারা রভম্যান পাওয়েলকে। বারবাডোজ রয়্যালস ধরে রেখেছে জেসন হোল্ডার ও হেইডেন ওয়ালশ জুনিয়রকে, গায়ানা অ্যামাজন ওয়ারিয়র্স শিমরন হেটমায়ার ও ওডিন স্মিথকে।