এবার ড্রাগ ডিলার বাঁধন

7

কান-ফেরত আজমেরী হক বাঁধন অনেকটাই ছিলেন নীরব। নেটফ্লিক্সের ‘খুফিয়া’ সেই নীরবতায় চাঞ্চল্য এনেছিল। পুরোনো এসব খবরের বাঁধন এবার শিরোনাম হচ্ছেন নতুন খবরে। এবার ওয়েব সিরিজ। ‘গুটি’ শিরোনামের একটি ওয়েব সিরিজে কাজ করেছেন আজমেরী হক বাঁধন। পরিচালক শঙ্খ দাসগুপ্ত। শেষ মুহূর্তের প্রস্তুতি চলছে, শুট হবে চট্টগ্রাম, কুমিল্লাসহ ঢাকার বিভিন্ন লোকেশনে।

অভিনেত্রী বলছেন, ‘কাজটা আমার জন্য খুব চ্যালেঞ্জিং হতে যাচ্ছে। কতটা চ্যালেঞ্জিং সেটা আসলে দর্শক দেখলেই বুঝতে পারবেন। আমি আসলে খুব খুশি আর কৃতজ্ঞ যে চরকি নারী চরিত্র প্রধান কাজ প্রডিউস করেছে।’ আর গল্প? সেটা বাঁধনের ভাষ্যে, ‘একদম ভিন্ন প্লট, ভিন্ন চরিত্র, ভিন্ন ধরনের একটা গল্প তিনি ফুটিয়ে তুলতে চেয়েছেন। এখানে আমি সুলতানা নামে একজন ড্রাগ ডিলারের চরিত্রে কাজ করেছি। চরিত্রটা নিয়ে শঙ্খর সাথে আমার দীর্ঘদিন ধরে আলাপ চলেছে। আমি এই চরিত্রটা অনেক দিন ধরে নিজের মধ্যে ধারণ করছি।’ দর্শকদের উদ্দেশে বাঁধন বলেন, ‘বাংলাদেশে ফিমেল লিডের কাজ চলে না, এই কথাটা আসলে শুনতে চাই না। কারণ, এই কথাটা আমি যখন শুনেছি, তখন প্রচ- হার্ট হয়েছি।

তবে আমি বিশ্বাস করি আগামী ১-২ বছরের মধ্যে এই ধারণার পরিবর্তন হবে। আমরা আমাদের কাজ দিয়েই এই চিন্তার পরিবর্তন করতে পারব। দর্শককেও নতুন কিছু দিতে পারব।’ শঙ্খ দাসগুপ্ত বলছেন, ‘আমরা যে যে অঞ্চলগুলোতে শ্যুট করব সেখানকার লোকাল আর্টিস্টদের কাস্ট করা হয়েছে। রিজিওনাল জায়গা থেকেও যেন এর একটা আলাদা এক্সেপ্টেন্স তৈরি হয় সেটাও আমরা খেয়াল রাখছি। এখন টেকনিক্যালি কাজটাকে কতটা ডিভাইস করা যায় সেদিকেই আমাদের সবার খেয়াল।’ ‘গুটি’ ওয়েব সিরিজে আজমেরী হক বাঁধন ছাড়া আর কারা অভিনয় করেছেন তা রহস্যবৃত রেখেছেন পরিচালক। এটি প্রযোজনা করছে ওটিটি প্ল্যাটফর্ম চরকি।