এডিপি থেকে কাটছাঁট করা হচ্ছে বৈদেশিক সহায়তা

69

gourbangla logoঅর্থবছরের চার মাসের মধ্যেই বার্ষিক উন্নয়ন কর্মসূচি (এডিপি) থেকে বৈদেশিক সহায়তা কাটছাঁট প্রক্রিয়া শুরু করেছে অথনৈতিক সম্পর্ক বিভাগ (ইআরডি)। আর চলতি অর্থবছরে (২০১৬-১৭) প্রায় সাড়ে ৩ হাজার কোটি টাকা ছেঁটে ফেলার সম্ভাবনা রয়েছে। ওই লক্ষ্যে মন্ত্রণালয়, বিভাগ ও সংস্থাগুলোর কাছে বৈদেশিক সহায়তাপুষ্ট প্রকল্পের অগ্রগতি অনুযায়ী সংশোধিত এডিপিতে বরাদ্দ নির্ধারণ করতে সম্প্রতি ইআরডি চিঠি দিয়েছে। চিঠিতে বলা হয় জুলাই থেকে অক্টোবর পর্যন্ত বৈদেশিক সহায়তা ব্যয় ও বাস্তবায়নের ওপর ভিত্তি করেই প্রাক্কলন নির্ধারণ করতে হবে। আর আগামী ১০ নভেম্বরের মধ্যেই ওই তথ্য পাঠাতে হবে। ইআরডি সংশ্লিষ্ট সূত্রে এসব তথ্য জানা যায়।
সংশ্লিষ্ট সূত্র মতে, ইআরডির পাঠানো চিঠিতে সংশোধিত এডিপির জন্য অনুষ্ঠিত হতে যাওয়া বৈঠকের কার্যপত্র তৈরিতে সংযুক্ত ছক অনুযায়ী সব বৈদেশিক সাহায্যপুষ্ট প্রকল্পের (চলতি ও অনুমোদিত নতুন প্রকল্প) তথ্য একটি হার্ড কপি ইআরডিতে পাঠনের জন্য বলা হয়েছে। পরবর্তীতে সভার সময়সূচি জানিয়ে দেয়া হবে। ধারণা করা হচ্ছে এ বছর মূল এডিপি থেকে আড়াই-সাড়ে তিন হাজার কোটি টাকা বাদ যেতে পারে। জাতীয় অর্থনৈতিক পরিষদ (এনইসি) চলতি অর্থবছরে মোট ১ লাখ ২৩ হাজার ৩৪৬ কোটি টাকার এডিপি অনুমোদন দেয়। তার মধ্যে সরকারি তহবিলের ৭০ হাজার ৭০০ কোটি টাকা, বৈদেশিক সহায়তা ৪০ হাজার কোটি এবং স্বায়ত্তশাসিত সংস্থাগুলোর নিজস্ব অর্থায়ন ১২ হাজার ৬৪৬ কোটি টাকা ব্যয়ের লক্ষ্য ধরা হয়েছে। ওই লক্ষ্যমাত্রা অনুযায়ী বৈদেশিক সহায়তা অংশ পুরোটা ব্যয় করা সম্ভব হবে না ভেবে নিয়ে আগেভাগেই সংশোধিত এডিপি তৈরির কাজ শুরু করেছে ইআরডি। সূত্র জানায়, পরিকল্পনা মন্ত্রণালয়ের বাস্তবায়ন পরিবীক্ষণ ও মূল্যায়ন বিভাগ (আইএমইডি) মতে চলতি অর্থবছরের তিন মাসে এডিপি বাস্তবায়ন অগ্রগতি হয়েছে ৮ দশমিক ৭৫ শতাংশ। অর্থাৎ জুলাই থেকে সেপ্টেম্বও পর্যন্ত ব্যয় হয়েছে মোট ১০ হাজার ৭৮৮ কোটি টাকা। তার মধ্যে সরকারি তহবিলের ৬ হাজার ৪৯৪ কোটি টাকা, বৈদেশিক সহায়তা থেকে ৩ হাজার ২৭৪ কোটি এবং সংস্থার নিজস্ব তহবিল থেকে ১ হাজার ২০ কোটি টাকা ব্যয় করা হয়েছে। তাছাড়া গত অর্থবছরের (২০১৫-১৬) বার্ষিক উন্নয়ন কর্মসূচিতে বৈদেশিক সহায়তার পরিমাণ ধরা হয়েছিল ৩৪ হাজার ৫০০ কোটি টাকা। পরবর্তীতে সংশোধিত এডিপিতে প্রায় ৫ হাজার ৩০০ কোটি টাকা ছেঁটে ফেলতে হয়। ফলে শেষ পর্যন্ত বৈদেশিক সহায়তার পরিমাণ দাঁড়ায় ২৯ হাজার ১৬০ কোটি টাকা। এ প্রসঙ্গে পরিকল্পনা সচিব তারিক-উল-ইসলাম জানান, ইআরডি বৈদেশিক সহায়তা অংশের কাজ শুরু করেছে। আর তা প্রতিবছরই আগে আগেই করে ফেলা হয়। কিন্তু সরকারি তহবিলের যে বরাদ্দ রয়েছে তা এখনই কাটছাঁটের প্রক্রিয়া শুরু করা হবে না। কেননা কেবল তো অর্থবছরের চার মাস চলছে। তারা (ইআরডি) তাদের অংশে সংশোধিত এডিপি তৈরির কাজ শুরু করতেই পারে।