দৈনিক গৌড় বাংলা

মঙ্গলবার, ২৮শে মে, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ, ১৪ই জ্যৈষ্ঠ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ, ২০শে জিলকদ, ১৪৪৫ হিজরি

উপজেলা পরিষদ নির্বাচন
কাদেরের হ্যাটট্রিক, ফিরলেন আনোয়ার, নতুন মুখ হলেন আশরাফ

ষষ্ঠ উপজেলা পরিষদ নির্বাচনের প্রথম ধাপে বুধবার চাঁপাইনবাবগঞ্জের নাচোল, গোমস্তাপুর ও ভোলাহাট উপজেলায় শান্তিপূর্ণ পরিবেশে ভোটগ্রহণ অনুষ্ঠিত হয়েছে। এতে নাচোলে চেয়ারম্যান পদে হ্যাটট্রিক করেছেন মো. আব্দুল কাদের। বিশাল ভোটের ব্যবধানে বেসরকারিভাবে তিনি নির্বাচিত হয়েছেন। অন্যদিকে গোমস্তাপুর উপজেলায় নতুন মুখ হিসেবে আশরাফ হোসেন আলিম এসেছেন। অপরদিকে ভোলাহাট উপজেলায় হারানো চেয়ার ফিরে পেয়েছেন সাবেক চেয়ারম্যান আনোয়ারুল ইসলাম।
বুধবার সকাল ৮টা থেকে বিকেল ৪টা পর্যন্ত ভোটগ্রহণ শেষে নাচোল উপজেলা নির্বাহী অফিসারের কার্যালয়ে ভোট গণনা করা হয়। গণনা শেষে বেসরকারি ফলাফল ঘোষণা করেন নাচোল উপজেলা নির্বাচন অফিসার ও এই নির্বাচনের সহকারী রিটার্নিং অফিসার মো. দুলাল হোসেন।
ঘোষিত ফলাফলে জানা যায়, চেয়ারম্যান পদে মোহা. আব্দুল কাদের ঘোড়া প্রতীকে ৩৩ হাজার ৯৯২ ভোট পেয়ে বেসরকারিভাবে নির্বাচিত হয়েছেন। তার একমাত্র প্রতিদ্বন্দ্বী প্রার্থী আবু রেজা মোস্তফা কামাল শামীম আনারস প্রতীকে পেয়েছেন ১০ হাজার ৮৭০ ভোট।
অন্যদিকে ভাইস চেয়ারম্যান পদে কামাল উদ্দিন চশমা প্রতীকে ১৯ হাজার ৫৫৫ ভোট পেয়ে বেসরকারিভাবে নির্বাচিত হয়েছেন। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী মশিউর রহমান পেয়েছেন ১৬ হাজার ৯২৫ ভোট। এছাড়া আশরাফুল হক টিউবওয়েল প্রতীকে ৭ হাজার ৫৪৮ ভোট পেয়েছেন। মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান পদে শামীমা ইয়াসমিন বৈদ্যুতিক পাখা প্রতীকে ২৯ হাজার ৩৪০ ভোট পেয়ে বেসরকারিভাবে নির্বাচিত হয়েছেন। তার একমাত্র প্রতিদ্বন্দ্বী জান্নাতুন নাঈম মুন্নী হাঁস প্রতীকে পেয়েছেন ১৫ হাজার ৮২ ভোট। প্রদত্ত ভোটের শতকরা হার ৩৭.০৩ শতাংশ।
অপর দিকে ভোলাহাট উপজেলায় চেয়ারম্যান পদে চিংড়ি মাছ প্রতীকে সাবেক চেয়ারম্যান মো. আনোয়ারুল ইসলাম ১৩ হাজার ৮৪ পেয়ে বেসরকারিভাবে নির্বাচিত হয়েছেন। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী মোহা. আব্দুল খালেক কাপ-পিরিচ প্রতীকে পেয়ছেন ১০ হাজার ৭৬৬ ভোট। এছাড়া বাবর আলী আনারস প্রতীকে ৫ হাজার ৫২৪ ভোট, মহা. শরিফুল ইসলাম মোটরসাইকেল প্রতীকে ৪ হাজার ৮৪৯ ভোট, ঘোড়া প্রতীকে মোহা. আব্দুল গাফ্ফার মুকুল ১ হাজার ৬৩১ ভোট পেয়েছেন।
ভাইস চেয়ারম্যান পদে মোহা. কামাল উদ্দিন চশমা প্রতীকে ১৫ হাজার ৭৮৫ ভোট পেয়ে বেসরকারিভাবে নির্বাচিত হয়েছেন। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী কায়সার আহমেদ তালা প্রতীকে পেয়েছেন ১১ হাজার ৫৮৯। এছাড়া মো. হোসেন আলী টিউবওয়েল প্রতীকে পেয়েছেন ৮ হাজার ৪৭ ভোট। অন্যদিকে মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান পদে মোসা. শাহজাদী খাতুন হাঁস প্রতীকে ২১ হাজার ৫৮৩ ভোট পেয়ে বেসরকারিভাবে নির্বাচিত হয়েছেন। তার একমাত্র প্রতিদ্বন্দ্বী ফুটবল প্রতীকে ১৩ হাজার ৬৪৪ ভোট পেয়েছেন মোসা. রেশমাতুল আরস।
ভোলাহাট উপজেলা নির্বাচন অফিসার ও সহকারী রিটার্নিং অফিসার শাহজাহান মানিক এই ফলাফল ঘোষণা করেন।
অন্যদিকে গোমস্তাপুর উপজেলায় চেয়ারম্যান পদে আশরাফ হোসেন আলিম আনারস প্রতীকে ৪০ হাজার ৬২০ ভোট পেয়ে বেসরকারিভাবে নির্বাচিত হয়েছেন। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী বর্তমান উপজেলা চেয়ারম্যান হুমায়ূন রেজা ঘোড়া প্রতীকে পেয়েছেন ৪০ হাজার ৬১ ভোট। এছাড়া হালিমা খাতুন কাপ-পিরিচ প্রতীকে পেয়েছেন ২ হাজার ৬৫৪ ভোট, মোটরসাইকেল প্রতীকে মাহফুজা খাতুন পেয়েছেন ১ হাজার ৩৬৫ ভোট।
ভাইস চেয়ারম্যান পদে টিউবওয়েল প্রতীকে ২৬ হাজার ৫৬৬ ভোট পেয়ে বেসরকারিভাবে নির্বাচিত হয়েছেন বর্তমান ভাইস চেয়ারম্যান হাসানুজ্জামান নূহ। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী টিয়াপাখি প্রতীকে মোকসেদুর রহমান পেয়েছেন ১৯ হাজার ৯১২ ভোট। এছাড়া তালা প্রতীকে দেলওয়ার হোসেন বুলবুল ১৬ হাজার ৬২৮ ভোট, নজরুল ইসলাম চশমা প্রতীকে ১২ হাজার ৯৫২ ভোট ও মাইক প্রতীকে মাসুদ পারভেজ পেয়েছেন ৫ হাজার ৬৩২ ভোট।
মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান পদে সেলাইমেশিন প্রতীকে ২০ হাজার ৫০৯ ভোট পেয়ে বেসরকারিভাবে নির্বাচিত হয়েছেন মনিরা। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী সুলতানা খাতুন হাঁস প্রতীকে পেয়েছেন ১৭ হাজার ৩১ ভোট। এছাড়া শিরিন আকতার পদ্মফুল প্রতীকে পেয়েছেন ১৪ হাজার ৭০৩ ভোট, শামীমা জাহান সারা বৈদ্যুতিক পাখা প্রতীকে পেয়েছেন ১৪ হাজার ৫১৬ ভোট, শামীমা বেগম কলস প্রতীকে ৯ হাজার ৯৫৯ ও জোহনা খাতুন ফুটবল প্রতীকে ৪ হাজার ৯৭৪ ভোট পেয়েছেন।
গোমস্তাপুর উপজেলা নির্বাচন অফিসার ও সহকারী রিটার্নিং অফিসার তোফায়েল আহমেদ এই ফলাফল ঘোষণা করেন।

About The Author

This will close in 0 seconds