উত্তর কোরিয়ার ওপর জাপানের নতুন নিষেধাজ্ঞা

93

05

উত্তর কোরিয়ার সাম্প্রতিক রকেট উৎক্ষেপণকে কেন্দ্র করে দেশটির ওপর নতুন এক প্রস্থ নিষেধাজ্ঞা আরোপের উদ্যোগ নিয়েছে জাপান। গতকাল বুধবার নতুন এ নিষেধাজ্ঞার ঘোষণা দেয় টোকিও। তবে এ প্রস্থের নিষেধাজ্ঞায় কোন বিষয়গুলো অন্তর্ভুক্ত করা হয়েছে, তা এখনও জানানো হয়নি আন্তর্জাতিক সংবাদমাধ্যমের খবরে। এক সংবাদ সম্মেলনে জাপানের চিফ কেবিনেট সেক্রেটারি ইওশিহিদে সুগা বলেছেন, নিষেধাজ্ঞার প্রস্তাবটি মন্ত্রণালয়ে পাঠানো হয়েছে। সেখানে এটি পাস হলে তা অনুমোদনের জন্য পার্লামেন্টে পাঠানো হবে। এর আগে, একই দিন উত্তর কোরিয়ার সঙ্গে একমাত্র যৌথ শিল্পপার্ক কায়েসংয়ের কার্যক্রম স্থগিতের ঘোষণা দিয়েছে প্রতিবেশী দক্ষিণ কোরিয়াও। এক সংবাদ সম্মেলনে দেশটির ইউনিফিকেশন মিনিস্টার হং ইয়ং-পিও বলেছেন, শিল্পপার্কটির কার্যক্রম স্থগিতের ফলে পারমাণবিক ও মিসাইল প্রযুক্তিতে উত্তর কোরিয়ার অর্থ সরবরাহে ভাটা পড়বে। ২০০৩ সালে প্রতিষ্ঠার পর এ পর্যন্ত এ পার্ক থেকে ৫১৫ মিলিয়ন ডলার (৭৮.২৪ টাকায় ডলার হিসাবে ৪ হাজার ২৯ কোটি ৪৩ লাখ ৪৬ হাজার ৭৫০ টাকা) আয় করেছে উত্তর কোরিয়া। গত ৭ ফেব্রুয়ারি দূরপাল্লার রকেট ছোড়ে উত্তর কোরিয়া। সমালোচকরা বলছেন, নিষিদ্ধ মিসাইল প্রযুক্তির অংশ হিসেবেই এ রকেট ছোড়া হয়েছে। এক বিবৃতিতে উত্তর কোরিয়ার জাতীয় উড্ডয়ন উন্নয়ন প্রশাসন জানায়, কিম জং উনের নির্দেশে উত্তর ফিওঙ্গান প্রদেশে সোহাই স্পেস সেন্টার থেকে উৎক্ষেপনের দশ মিনিট পর পর্যবেক্ষণ স্যাটেলাইট কোয়াংমিয়ংসং-৪ কক্ষপথে প্রবেশ করেছে। এ মিশন সফল হওয়ায় আরও স্যাটেলাইট উৎক্ষেপনের পরিকল্পনা করছে সরকার। আন্তর্জাতিক নিষেধাজ্ঞাকে বুড়ো আঙ্গুল দেখিয়ে পিয়ংইয়ংয়ের একের পর এক পারমাণবিক ও মিসাইল কর্মসূচি আন্তর্জাতিক অঙ্গনে যথেষ্ট উদ্বেগের সৃষ্টি করেছে। বিশেষ করে প্রতিবেশী দক্ষিণ কোরিয়া, জাপান ও নিকটবর্তী চীনের কপালে ভাঁজ পড়েছে। সেই সঙ্গে যুক্তরাষ্ট্র, যুক্তরাজ্য ও রাশিয়াও উদ্বেগ প্রকাশ করেছে। জাতিসংঘের নিরাপত্তা পরিষদে এসব ইস্যুতে কয়েক দফা জরুরি বৈঠকও অনুষ্ঠিত হয়েছে।