উডের পেনাল্টিতে রেলিগেশন থেকে রক্ষার দ্বারপ্রান্তে নিউক্যাসল

3

ক্রিস উডের পেনাল্টিতে উল্ফসকে গত শুক্রবার ১-০ গোলে পরাজিত করে প্রিমিয়ার লিগে বেঁচে থাকার পথে বড় বাঁধা পার করেছে নিউক্যাসল। নিউজিল্যান্ডের স্ট্রাইকার ৭২ মিনিটে স্পট কিক থেকে জয়সূচক গোলটি করেন। জানুয়ারি ট্রান্সফার উইন্ডোতে বার্নলি থেকে ২৫ মিলিয়ণ পাউন্ডে ম্যাগপাই শিবিরে যোগ দেবার পর এটি উডের দ্বিতীয় গোল। এই জয়ে রেলিগেশন জোন থেকে ১০ পয়েন্ট এগিয়ে গেছে নিউক্যাসল, হাতে রয়েছে আর মাত্র সাত ম্যাচ। আন্তর্জাতিক বিরতির পর টটেনহ্যাম হটস্পারের কাছে ৫-১ গোলে বিধ্বস্ত হয়ে গত শুক্রবার সেন্ট জেমস পার্কে খেলতে নেমেছিল নিউক্যাসল। লিগে এটি ছিল তাদের টানা তৃতীয় পরাজয়। মানসিক ভাবে চাঙ্গা হয়ে গত শুক্রবার খেলতে নামা এক অন্যরকম নিউক্যাসলকে দেখেছে স্বাগতিক সমর্থকরা।

আগামী মৌসুমে লিগে তাদেরকে দেখতে পাওয়া এখন সময়ের ব্যপার। অক্টোবরে উত্তর পূর্বাঞ্চলীয় এই ক্লাবটির মালিকানা যায় সৌদি ভিত্তিক এক প্রতিষ্ঠানের হাতে। নতুন মালিকের কাছে দলের এই সাফল্য সত্যিই বিশেষ কিছু। গত শুক্রবার ম্যাগপাইসদের সমর্থন করতে সেন্ট জেমস পার্কে ৫২ হাজার দর্শকের উপস্থিতি ছিল। ম্যাচ শেষে বিবিসিকে উড বলেছেন, ‘সর্মথকরাই আজ ম্যাচের প্রাণ ছিল। এখানকার সমর্থকদের একটি ইতিবাচক দিক হলো তারা প্রতিনিয়ত আমাদের মাঝে প্রাণের সঞ্চার করে। যা সত্যিই বিরল, একটি ম্যাচে এই বিষয়টির গুরুত্ব অনেক বেশী।’ নিউক্যাসল ম্যানেজার এডি হোয়ে বলেছেন, ‘আমি মনে করি খেলোয়াড়দের মধ্যে আজ প্রতিটি বল দখলের যে ক্ষুধা ছিল তা সমর্থকরা বেশ উপভোগ করেছে।

টানা তিন পরাজয়ের পর এই জয়টা সত্যিই জরুরী ছিল।’ এদিকে এই পরাজয়ের ফলে উল্ফসের ইউরোপিয়ান ফুটবলে টিকে থাকা আশা অনেকটাই ফিকে হয়ে গেল। ষষ্ঠ স্থানে থাকা ওয়েস্ট হ্যামের থেকে তারা এখনো দুই পয়েন্ট পিছনে রয়েছে। লন্ডনের ক্লাবটির থেকে তারা দুই ম্যাচ বেশীও খেলে ফেলেছে। উল্ফস ম্যানেজার ব্রুনো লেগ স্বীকার করেছেন দলের শুরুটা ভাল হয়নি। তবে তিনি বলেছেন দ্বিতীয় অর্ধে তার দল বেশী ভাল খেলেছে। গত শুক্রবার প্রথমবারের মত হোয়ে মূল একাদশে নামিয়েছিলেন ব্রাজিলিয়ান মিডফিল্ডার ব্রুনো গুইমারেসকে। ইনজুরি আক্রান্ত জো উইলকক ও জেভিয়ার ম্যানকুইলোর স্থানে জায়গা করে নিয়েছিলেন গুইমারেস ও এমিল ক্রাফথ। লেগের দলেও দুটি পরিবর্তণ ছিল। লিন্ডার ডেনডোনকার ও ড্যানিয়ল পোডেন্সের স্থানে গত শুক্রবার একাদশে জায়গা পেয়েছিলেন হুয়াং হি-চান ও লুক কান্ডেল।

২৪ মিনিটে গুইমারেসের ক্রসে উডের শট জালের ঠিকানা খুঁজে পেলেও ভিএআর অফসাইডের কারণে তা বাতিল করে দেয়। এরপর থেকে নিউক্যাসল একের পর এক আক্রমণ চালিয়েছে। তবে দ্বিতীয়ার্ধের শুরু থেকে উল্ফস বেশী আগ্রাসী ছিল। হুয়াংয়ের একটি শট ব্লক করে দেন নিউক্যাসল গোলরক্ষক মার্টিন ডুব্রাভকা। ম্যাচ শেষে ১৮ মিনিট আগে উডকে ডি বক্সের ভিতর ফাউল করে বসেন উল্ফস গোলরক্ষক হোসে সা। রেফারি পিটান বানকেস পেনাল্টির নির্দেশ দিলে পরবর্তীয় ভিএআর সেই সিদ্ধান্ত বহাল রাখে। স্পট কিক থেকে ঠান্ডা মাথায় সা’কে উল্টো দিকে পাঠিয়ে নিউক্যাসল শিবিরকে আনন্দে ভাসান উড।