দৈনিক গৌড় বাংলা

সোমবার, ২২শে জুলাই, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ, ৭ই শ্রাবণ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ, ১৬ই মহর্‌রম, ১৪৪৬ হিজরি

উড়োজাহাজের সচল ইঞ্জিনের মধ্যে পড়ে প্রাণ গেল একজনের

নেদারল্যান্ডসের রাজধানী আমস্টারডামের শিফোল বিমানবন্দরে একটি যাত্রীবাহী বিমানের স্পিনিং টারবাইনের (বিমানের ইঞ্জিন) ব্লেডের মধ্যে পড়ে এক ব্যক্তির মৃত্যু হয়েছে। দেশটির কর্মকর্তারা এ ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করেছেন। গতকাল বৃহস্পতিবার আলজাজিরার একটি প্রতিবেদনে এই খবর জানানো হয়েছে। প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, কেএলএম-এর ফ্লাইট কেএল১৩৪১ ডেনমার্কের বিলুন্ডে যাওয়ার উদ্দেশ্যে বিমানবন্দরের এপ্রোনের (বিমান পার্ক করার স্থান) ওপর ছিল। এ সময় এ দুর্ঘটনা ঘটে। তখন উড়োজাহাজটির ইঞ্জিন সচল ছিল। কেএলএম বা রয়েল ডাচ বিমানসংস্থা নেদারল্যান্ডসের পতাকাবাহী একটি বিমানসংস্থা। এয়ারলাইনসটির বিমানগুলো প্রধান কেন্দ্র আমস্টারডামের শিফল বিমানবন্দর হতে ৯০টি বিভিন্ন স্থানে চলাচল করে থাকে। কেএলএম রয়্যাল ডাচ এয়ারলাইনস বুধবার এক বিবৃতিতে বলেছে, ‘ঘটনাটি বুধবার শিফোলে ঘটেছে। এক ব্যক্তি চলমান বিমানের ইঞ্জিনে ভেতর পড়ে গেলে এ দুর্ঘটনা ঘটে।’ বিবৃতিতে আরো বলা হয়, ‘দুঃখজনকভাবে ব্যক্তিটি মারা গেছেন।’ নিহত ব্যক্তির পরিচয় প্রকাশ না করে কেএলএম বলেছে, ‘পরিস্থিতি বর্তমানে তদন্তাধীন রয়েছে।’এ বিষয়ে নেদারল্যান্ডসের বৃহত্তম বিমানবন্দরের নিরাপত্তার দায়িত্বে থাকা ডাচ সীমান্ত পুলিশ জানিয়েছে, ‘বিমানটি থেকে যাত্রীদের সরিয়ে তদন্ত শুরু হয়েছে।’ দেশটির অবকাঠামো মন্ত্রী মার্ক হারবার্স এক্স-এ বলেছেন, ‘শিফোলে আজ একটি মারাত্মক দুর্ঘটনা ঘটেছে, যা ভয়ংকর। নিহতদের আত্মীয়স্বজন এবং দুর্ঘটনার প্রত্যক্ষদর্শী ব্যক্তিদের প্রতি আমার সমবেদনা জানাই।’ ডাচ পাবলিক ব্রডকাস্টার এনওএস-এর পোস্ট করা একটি ছবিতে দেখা গেছে, বিমানটি উড়ে যাওয়ার টার্মিনালের পাশে পার্ক করা অবস্থায় আছে এবং ফায়ার সার্ভিসের ট্রাক ও অ্যাম্বুলেন্স এটিকে ঘিরে রয়েছে। তবে শিফোলে নিরাপত্তা ব্যবস্থা অত্যন্ত কঠোরভাবে মেনে চলা হয় এবং ব্যস্ত বিমানবন্দরে এ ধরনের দুর্ঘটনা বিরল। বিমানবন্দরটির পরিসংখ্যান অনুসারে এমন তথ্যই জানা গেছে।

About The Author