ঈদের আগে রেমিটেন্স এসেছে ১৩ হাজার ৬০০ কোটি টাকা

8

চলতি এপ্রিল মাসের প্রথম ২১ দিনে প্রবাসীরা ১২৭ কোটি ১৭ লাখ ১০ হাজার মার্কিন ডলারের রেমিটেন্স পাঠিয়েছেন দেশে। ঈদের আগে পাঠানো রেমিটেন্সের পরিমাণ (প্রতি ডলার ১০৭ টাকা ধরে) দেশীয় মুদ্রায় ১৩ হাজার ৬০০ কোটি টাকার বেশি।
বাংলাদেশ ব্যাংকের প্রকাশিত হালনাগাদ প্রতিবেদন সূত্রে জানা যায়, ঈদের আগে চলতি মাসের প্রথম ২১ দিনে মোট ১২৭ কোটি ১৭ লাখ ডলারের রেমিটেন্স পাঠিয়েছেন বিভিন্ন দেশে বসবাসকারী বাংলাদেশীরা। এর মধ্যে রাষ্ট্র মালিকানাধীন ব্যাংকগুলোর মাধ্যমে এসেছে ১৭ কোটি ৩৭ লাখ ডলার, বিশেষায়িত ব্যাংকের মাধ্যমে এসেছে ৩ কোটি ৬৩ লাখ ৪০ হাজার ডলার। এছাড়া বেসরকারি ব্যাংকগুলোর মাধ্যমে এসেছে ১০৫ কোটি ৭৩ লাখ ডলার এবং বিদেশী ব্যাংকগুলোর মাধ্যমে এসেছে ৪২ লাখ ৯০ হাজার ডলারের রেমিটেন্স।
তবে আলোচিত সময়ে ৭ ব্যাংকের মাধ্যমে কোনো প্রবাসী আয় দেশে আসেনি। এর মধ্যে রয়েছেÑ রাষ্ট্রায়ত্ত বাংলাদেশ ডেভেলপমেন্ট ব্যাংক বা বিডিবিএল, বিশেষায়িত রাজশাহী কৃষি উন্নয়ন ব্যাংক বা রাকাব, বেসরকারি কমিউনিটি ব্যাংক, সিটিজেনস ব্যাংক, বিদেশী হাবিব ব্যাংক, ন্যাশনাল ব্যাংক অব পাকিস্তান এবং স্টেট ব্যাংক অব ইন্ডিয়া।
এর আগে চলতি ২০২২-২৩ অর্থবছরের প্রথম দুই মাসে (জুলাই ও আগস্ট) টানা দুই বিলিয়ন ডলার করে রেমিটেন্স এসেছিল। কিন্তু সেপ্টেম্বর থেকে টানা ছয় মাস দেড় বিলিয়ন ডলারের ঘরেই থেমে যায়। তবে সে ধারা থেকে বেরিয়ে জানুয়ারি মাসে আসে ১৯৫ কোটি ৮৮ লাখ মার্কিন ডলার। ফেব্রুয়ারি মাসে আবারো কমে আসে ১৫৬ কোটি ১২ লাখ ডলারের রেমিটেন্স। আর সদ্য বিদায়ী মার্চ মাসে এসেছে ২০১ কোটি ৭৬ লাখ ডলারের বেশি।
গত ২০২১-২২ অর্থবছরে ব্যাংকিং চ্যানেলের মাধ্যমে দেশে মোট ২ হাজার ১০৩ কোটি ১৭ লাখ (২১.০৩ বিলিয়ন) মার্কিন ডলার রেমিটেন্স এসেছিল। এটি তার আগের অর্থবছরের চেয়ে ১৫ দশমিক ১১ শতাংশ কম। ২০২০-২১ অর্থবছরে ২ হাজার ৪৭৭ কোটি ৭৭ লাখ (২৪ দশমিক ৭৭ বিলিয়ন) ডলারের রেমিটেন্স এসেছিল।