ইস্তাম্বুলে বিস্ফোরণের ঘটনায় নিহত ৬

4

গত সপ্তাহান্তে মধ্য ইস্তাম্বুলে বিস্ফোরণের ঘটনায় অন্তত ছয়জন নিহত হন। আহত হয়েছেন ৮০ জনেরও বেশি আহত। এর জেরে তুর্কি সামরিক বিমান উত্তর সিরিয়া ও ইরাকে লক্ষ্যবস্তুতে আঘাত করেছে। তুরস্কের প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয়ের বরাত দিয়ে এ তথ্য জানিয়েছে আল-জাজিরা। তুরস্কের প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয় গত রোববার টুইটারে এক বিবৃতিতে অভিযান শুরুর ঘোষণা দিয়েছে। তুরস্কের প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয় গত রোববার ভোরে একটি সামরিক বিমান উড্ডয়নের ছবিসহ টুইটারে পোস্ট করে লিখে, ‘হিসেব করার সময় এসেছে, যারা বিশ্বাসঘাতক হামলা করেছে তাদের জবাবদিহি করা হবে।

ভিডিওসহ আরেক পোস্টে তুরস্কের প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয় জানায়, সন্ত্রাসীদের শেষ করতে নির্ভুল হামলা চালানো হয়েছে। ‘পেন্স কিলিক’ বিমান অভিযানটি ইরাক ও সিরিয়ার উত্তরের অঞ্চলগুলোতে পরিচালিত হয়েছিল। এই স্থানগুলো সন্ত্রাসীরা তুরস্কে আক্রমণের জন্য ঘাঁটি হিসেবে ব্যবহার করে থাকে। আঙ্কারা গত ১৩ নভেম্বর ইস্তাম্বুলে বোমা হামলার জন্য নিষিদ্ধ কুর্দিস্তান ওয়ার্কার্স পার্টি (পিকেকে) ও সহযোগী সিরিয়ান কুর্দি গোষ্ঠীগুলোকে দায়ী করে। যদিও কুর্দি যোদ্ধারা জড়িত থাকার কথা অস্বীকার করেছে। তুরস্ক ও যুক্তরাষ্ট্র উভয়ই পিকেকে একটি সন্ত্রাসী গোষ্ঠী হিসেবে বিবেচনা করে। তবে সিরিয়ায় আইএসআইএল (আইএসআইএস) গোষ্ঠীর বিরুদ্ধে লড়াইয়ে ওয়াশিংটনের সঙ্গে জোটবদ্ধ সিরিয়ার কুর্দি গোষ্ঠীগুলোর অবস্থান নিয়ে দ্বিমত পোষণ করে।