ইসির বিশেষ ব্যবস্থায় নতুন ভোটার হওয়ার সুযোগ

74

mনির্বাচন কমিশন (ইসি) বিশেষ ব্যবস্থায় ১৮ বছর হওয়া যে ব্যক্তি এখনো ভোটার হননি তাদের ভোটার তালিকায় নাম অন্তর্ভুক্তির কার্যক্রম শুরু করেছে। তবে এক্ষেত্রে ইসির তথ্য সংগ্রহকারীরা বাড়ি বাড়ি গিয়ে তথ্য সংগ্রহ করবেন না। কেউ ভোটার হতে চাইলে তাকে সংশ্লিষ্ট থানা/উপজেলা নির্বাচন কমিশন অফিসে গিয়ে ভোটার হতে হবে। আর ভোটার তালিকা হালনাগাদে তথ্য সংগ্রহের কাজ ২৫ নভেম্বর থেকে থেকে শুরু হয়ে চলবে ১৫ ডিসেম্বর পর্যন্ত। ইসি সংশ্লিষ্ট সূত্রে এসব তথ্য জানা যায়।
সূত্র মতে, যাদের জন্ম ১ জানুয়ারি ১৯৯৯ বা তার পূর্বে অথচ ভোটার তালিকা হালনাগাদ ২০১৫-২০১৬ কার্যক্রমে নিবন্ধন করা হয়নি তাদেরকে নিবন্ধিত করে আগামী ২ জানুয়ারি খসড়া ভোটার তালিকায় অন্তর্ভুক্ত করা হবে। ওই বিষয়ে কার্যকর ব্যবস্থা নিতে গত ১৬ নভেম্বও ইসি থেকে মাঠপর্যায়ে সকল উপজেলা/থানা নির্বাচন কর্মকর্তা ও রেজিস্ট্রেশন অফিসার বরাবর নির্দেশনা পাঠানো হয়েছে। ইসির নির্দেশনায় বলা হয়েছে, ভোটাররা সংশ্লিষ্ট উপজেলা বা ইউনিয়ন বা পৌরসভা সচিবের দফতর থেকে ভোটার নিবন্ধন ফরম সংগ্রহ করবে। তার সাথে জন্ম নিবন্ধন সনদ, এসএসসি বা সমমান পরীক্ষার সনদসহ (প্রযোজ্য ক্ষেত্রে) অন্যান্য কাগজপত্র উপজেলা নির্বাচন কর্মকর্তার কাছে জমা দিয়ে ভোটার নিবন্ধন হতে হবে। আর ইসির পরিকল্পনা রয়েছে আগামী বছরের যে কোনো সময়ে নতুন করে আবারো ভোটার তালিকা হালনাগাদের কাজ করার। গতবছর মে থেকে নভেম্বর পর্যন্ত ভোটারযোগ্যদের পাশাপাশি কম বয়সীদেরও (১৫-১৭ বছর) তথ্য নেয় ইসি। ওই সময় বাড়ি বাড়ি গিয়ে তথ্য সংগ্রহকারীরা ফরম পূরণ করে। এ প্রসঙ্গে ইসি ইসি সচিব মোহাম্মদ আবদুল্লাহ জানান, বাদ পড়াদের ভোটার হওয়ার সুযোগ দিতেই ২৫ নভেম্বর থেকে ১৫ ডিসেম্বর পর্যন্ত নিবন্ধনের সুযোগ দেওয়া হয়েছে। ২০১৭ সালের ১ জানুয়ারি যারা ভোটারযোগ্য হবেন তাদের জন্যই এই সুযোগ।কারণ কমিশন মনে করছে গেল বছরে নিবন্ধনের জন্য তথ্য সংগ্রহের সময় উল্লেখযোগ্য সংখ্যক নাগরিক সাড়া দেয়নি। তাই এবার তাদের তালিকাভুক্ত করা হবে। ২ জানুয়ারি খসড়া প্রকাশের সময় তাদের নামও থাকবে ভোটার তালিকায়।