ইথিওপিয়ায় বিমান হামলায় নিহত ২৬

7

ইথিওপিয়ায় বিমান হামলায় কমপক্ষে ২৬ জন নিহত হওয়ার খবর পাওয়া গেছে। আহত হয়েছেন আরো অর্ধশতাধিক মানুষ। গত রোববার দেশটির আমহারা অঞ্চলের ফিনোট সেলাম শহরে এই হামলার ঘটনা ঘটে। ইথিওপিয়ার উত্তর-পশ্চিমাঞ্চলে ফিনোট সেলাম শহরে সরকারি বাহিনী এবং একটি স্থানীয় মিলিশিয়াগোষ্ঠীর মধ্যে ব্যাপক লড়াইয়ের মধ্যেই এই হামলায় কমপক্ষে ২৬ জন নিহত হয় এবং ৫০ জন আহত হয়। আহতরা স্থানীয় হাসপাতালগুলোতে চিকিৎসা নিচ্ছে।

স্থানীয় সময় সোমবার এক হাসপাতালের কর্মকর্তা বলেছেন, মিলিশিয়াগোষ্ঠী এই মাসে যুদ্ধ শুরু হওয়ার পর থেকে বেসামরিক লোকদের ওপর ব্যাপক হত্যাযজ্ঞ চালাচ্ছে। হামলার পর হতাহত যেসব মানুষ হাসপাতালে এসেছিলেন তারা সাধারণ বেসামরিক পোশাক বা দিবসের ঐতিহ্যবাহী পোশাক পরিহিত ছিলেন। ফিনোট সেলাম শহরের এক হাসপাতালের কর্মকর্তা জানান, এই হামলাকে এই অঞ্চলের সবচেয়ে মারাত্মক হামলা বলে মনে করা হচ্ছে। দেশটির সরকারি ফেডারেল বাহিনী গত সপ্তাহের শেষের দিকে আমহারার বেশির ভাগ প্রধান শহর থেকে ফ্যানো মিলিশিয়াদের বিতাড়িত করতে সক্ষম হয়েছিল।

কিন্তু এই অঞ্চলের অন্যান্য অংশে সংঘর্ষ অব্যাহত রয়েছে। ইথিওপিয়ান মানবাধিকার কমিশন (ইএইচআরসি) এক বিবৃতিতে এই তথ্য জানিয়েছে। পূর্ব আফ্রিকার এই দেশটির ওই অঞ্চলে আধাসামরিক বাহিনী ফ্যানোর বিরুদ্ধে লড়াই করে আসছে সেনাবাহিনী। ইএইচআরসি আরো বলেছে, বিক্ষোভকারীদের হত্যা, পুলিশ স্টেশন এবং কারাগার থেকে অস্ত্র ও গোলাবারুদ লুট করা এবং আমহারা আঞ্চলিক প্রশাসনের কর্মকর্তাদের হামলার লক্ষ্যবস্তু করার মতো বিষয়গুলো নথিভুক্ত করেছে তারা। মানবাধিকার আইনের সব ধরনের লঙ্ঘন অবিলম্বে বন্ধ করার জন্য ‘বিরোধপূর্ণ পক্ষগুলোর প্রতি’ আহ্বান জানায় ইএইচআরসি। ইথিওপিয়ার প্রধানমন্ত্রী আবি আহমেদের সরকার গত ৪ আগস্ট আমহারা অঞ্চলজুড়ে ছয় মাসের জরুরি অবস্থা জারি করে। সূত্র : বিবিসি, রয়টার্স