ইউক্রেনে রাশিয়ার ভয়াবহ হামলা, নিহত বেড়ে ২৫

6

গত বুধবার ইউক্রেনে রুশ হামলার ছয় মাস পূর্ণ হয়েছে। এদিন ছিল ইউক্রেনের স্বাধীনতা দিবস। এ দিনেই ভয়াবহ হামলা চালালো রুশ বাহিনী। বিবিসির প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, ইউক্রেনের চ্যাপলাইন শহরের রেলওয়ে স্টেশনে গত বুধবার রাশিয়া রকেট হামলা চালায়। এই হামলায় অন্তত ২৫ জন নিহত হয়েছে। আহত হয়েছে আরও অনেকে। ইউক্রেনের কর্মকর্তারা জানিয়েছেন, পূর্বাঞ্চলীয় শহর চ্যাপলাইনে হামলার শিকার পাঁচজন একটি গাড়িতে পুড়ে মারা গেছেন। ছয় ও ১১ বছর বয়সী দুই ছেলেও নিহত হয়েছে হামলায়। ইউক্রেনের প্রেসিডেন্ট ভলোদিমির জেলেনস্কি জাতিসংঘের নিরাপত্তা পরিষদের বৈঠকের মাঝখানে এই হামলার খবর দেন। এই হামলায় আহত হয়েছেন আরও ৩১ জনের মতো। বিবিসির প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, রাশিয়া এখন পর্যন্ত এই হামলা নিয়ে কোনো মন্তব্য করেনি। মস্কো বারবার বেসামরিক অবকাঠামো লক্ষ্যবস্তু করার কথা অস্বীকার করেছে। গতকাল বৃহস্পতিবার জাতিসংঘের মানবাধিকার কমিশনার মিশেল ব্যাচেলেট ইউক্রেনে সশস্ত্র হামলা বন্ধ করার জন্য রাশিয়ার প্রেসিডেন্টকে আহ্বান জানিয়েছেন।

জেলেনস্কি বলেছেন, তিনি দিনিপ্রোপেত্রভস্ক অঞ্চলের চ্যাপলাইনে হামলার কথা জানতে পেরেছিলেন যখন তিনি নিরাপত্তা পরিষদে কথা বলার প্রস্তুতি নিচ্ছিলেন। তিনি বলেন ‘এভাবেই জাতিসংঘ নিরাপত্তা পরিষদের বৈঠকের প্রস্তুতি নিলো রাশিয়া’। তিনি আরও বলেন, এই হামলায় চারটি যাত্রীবাহী গাড়িতে আগুন লেগেছে। নিহতের সংখ্যা বাড়তে পারে বলে জানান তিনি। গত ২৪ ফেব্রুয়ারি ইউক্রেনে সামরিক অভিযানের ঘোষণা দেন রুশ প্রেসিডেন্ট ভøাদিমির পুতিন। এরপর আজ পর্যন্ত টানা ১৮৩ দিনের মতো চলছে দেশ দুইটির সংঘাত। এতে দুই পক্ষের বহু হতাহতের খবর পাওয়া যাচ্ছে। তবে যুদ্ধ বন্ধে এখন পর্যন্ত কোনো লক্ষণ নেই।