ইউক্রেনের ৪০ টিরও বেশি ক্ষেপণাস্ত্র হামলা রাশিয়ার

2

গত ২৪ ঘণ্টায় ইউক্রেনের ৪০টিরও বেশি শহর ও অঞ্চলে ক্ষেপণাস্ত্র হামলা চালিয়েছে রাশিয়া। গতকাল বৃহস্পতিবার ইউক্রেনের কর্মকর্তারা জানিয়েছেন। ইউক্রেনের সশস্ত্র বাহিনীর জেনারেল স্টাফ জানিয়েছে, বিমান হামলা ৪০ টিরও বেশি বসতিতে আঘাত করেছে, যখন ইউক্রেনের বিমান বাহিনী ২৫টি রাশিয়ান লক্ষ্যবস্তুতে ৩২টি ক্ষেপণাস্ত্র হামলা চালিয়েছে। বন্দর শহর মাইকোলাইভের মেয়র ওলেক্সান্ডার সেনকেভিচ একটি সোশ্যাল মিডিয়া পোস্টে বলেছেন যে দক্ষিণের শহরটিতে ব্যাপক গোলাগুলি হয়েছে। তিনি বলেন, একটি পাঁচ তলা আবাসিক ভবন ক্ষেপণাস্ত্র আঘাত হেনেছে, উপরের তলা দুটি সম্পূর্ণ ধ্বংস হয়ে গেছে, কয়েকটি বাড়ি ধ্বংসস্তূপের পরিনত হয়েছে। উদ্ধারকারীরা ঘটনাস্থলে কাজ করছে। এদিকে, ডিনিপ্রোপেট্রোভস্ক অঞ্চলের গভর্নর ভ্যালেন্টিন রেজনিচেঙ্কো জানিয়েছেন, নিকোপোল শহরের ৩০টিরও বেশি বহুতল অ্যাপার্টমেন্ট ব্লক এবং ব্যক্তিগত বাড়ি, গ্যাস পাইপলাইন এবং পাওয়ার লাইনগুলিতে ক্ষেপণাস্ত্র আঘাত হেনেছে। রেজনিচেঙ্কো একটি টেলিগ্রাম পোস্টে বলেছেন যে হামলার পর ২ হাজারেরও বেশি পরিবার বিদ্যুৎবিহীন হয়ে পড়েছে। অন্যদিকে, গতকাল বৃহস্পতিবার ইউক্রেনের কিয়েভ এলাকায় ইরানের তৈরি ‘কামিকাজে ড্রোন’ হামলা হয়েছে বলে দাবি করেছেন কিয়েভের আঞ্চলিক গভর্নর ওলেক্সি কুলেবা। কুলেবা বলেন, বৃহস্পতিবারের হামলাগুলো রাজধানী শহরের আশেপাশের এলাকায় হয়েছে। প্রাথমিক তথ্যের ভিত্তিতে, ইরানের তৈরি লোটারিং যুদ্ধাস্ত্রের কারণে এই হামলা হয়েছে যা প্রায়ই ‘কামিকাজে ড্রোন’ নামে পরিচিত। এতে কোনো হতাহতের ঘটনা ঘটেছে কিনা তা এখনো স্পষ্ট নয়। প্রেসিডেন্টর কার্যালয়ের উপ-প্রধান কিরিলো টাইমোশেঙ্কো টেলিগ্রামে বলেছেন, ড্রোন হামলায় যে এলাকায় গুরুত্বপূর্ণ অবকাঠামোগত সুবিধাগুলি ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে। সূত্র: আলজাজিরা